শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১

মাদারীপুরের জনগনের কাছে ছেলেকে উৎসর্গ করে দিলেন শাজাহান খান

স্টাফ রিপোর্টার, মাদারীপুর
  ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:২৫

আমার বাবা মৌলভী আচমত আলী খান ১৯৫৪ সালে পূর্ববাংলা নির্বাচনে এমএলএ নির্বাচিত হয়েছিলেন। ১৯৫৪ সালে এমপি নির্বাচিত হন। ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ছিলেন। ১৯৭৩ সালে প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি মাদারীপুর জেলা আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন। ২০১৬ সালে বাবা মরনাত্ত্বর স্বাধীনতা পুরস্কার লাভ করেন। বাবা জীবীত থাকা অবস্থায় আমাকে আপনাদের (জনগনের) কাছে উৎসর্গ করেছেন সেবা করার জন্য। আমিও আমার ছেলে আসিফকে আপনাদের কাছে উৎসর্গ করে দিলাম। আপানারা জনগনই আমার ছেলেকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবেন। আগামী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আপনারা সমর্থন দিয়েছেন আমার ছেলে আসিফকে। আপনারাই ভোটের মাধ্যমে আমার ছেলেকে বিজয়ী করতে পারবেন।

মঙ্গলবার দুপুরে শহরের সার্বিক ফিলিং স্টেশন মাঠে মাদারীপুর পৌর আওয়ামীলীগ আয়োজিত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনোত্তর প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জাতীয় সংসদের খাদ্য মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি শাজাহান খান এমপি এ কথা বলেন।

শাজাহান খান আরো বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এই দেশ, এই মাটি, এই দেশের জনগনকে ভালোবেসে জীবন উৎসর্গ করেছেন। আমিও তার সৈনিক হিসেবে, তার আদর্শ বুকে ধারন করে, তার দেখানো পথে এগিয়ে চলছি। সকল ভয়ভীতি পেছনে ফেলে আমি আমার সাহসের সাথে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ২০১৩ সালে গার্মেন্টস সেক্টরের সেই আগুন সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে রুখে দাড়িয়েছিলাম। ২০১৫ সালে বিএনপি যখন সারা দেশে জ¦ালাও পোড়াও, আগুন সন্ত্রাস, পেট্রোল বোমা মেরে গাড়ি পোড়ানো শুরু করে তখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে বলেছিল আপনাকে দায়িত্ব দিয়েছি পরিবহন ব্যবস্থা সচল রাখার জন্য, বিএনপি—জামাত চাচ্ছে পরিবহন অচল করে দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করতে। আপনাদের এই সন্তান শাজাহান খান সেদিন প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশমতে মুক্তিযোদ্ধা, পেশাজীবী ও শ্রমিকদের সাথে নিয়ে দেশের নানা প্রান্তে গিয়ে বিএনপি—জামাতের আগুন সন্ত্রাস বন্ধ করেছিলাম। ওই সময় আমাকে ও আমার পরিবারের সদস্যদের হত্যা করার হুমকি দিয়েছিল বিএনপি—জামাত। আমি কোন হুমকিতে মাথা নত করি নাই। আগামীতেও কারো হুমকিতে মাথা নত করবো না। আমি জনগনের জন্য রাজনীতি করি এবং সেই জনগনের জন্যই জীবন দিতে প্রস্তুত আছি।

প্রতিনিধি সভায় বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড. ওবাইদুর রহমান খান, মাদারীপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র নুরুল আলম বাবু চৌধুরী, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সৈয়দ সাখাওয়াত হোসেন সেলিম, জেলা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি হাফিজুর রহমান খান যাচ্চু, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য ও জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি মো. আসিবুর রহমান খান আসিফ প্রমুখ। পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি কে.এম আকায়েদ মুরাদ (স্বপন খান) এর সভাপতিত্বে ও দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরিচালনা পৌর কমিটির সদস্য সচিব রাসেল তালুকদার এবং পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এইচ.এম মনিরুজ্জামান আক্তার হাওলাদারের সঞ্চালনায় প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত হয়।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে