'ধর্ষণের সমাধান মৃতু্যদন্ড নয়'

'ধর্ষণের সমাধান মৃতু্যদন্ড নয়'
মিশেল ব্যাচলেট

ধর্ষণ বড় ধরনের একটি অপরাধ। এটা প্রতিরোধে আইনের শাসন, অপরাধের দ্রম্নত তদন্ত ও বিচার নিশ্চিত করতে হবে। তবে মৃতু্যদন্ড কোনো সমাধান নয়- বলেছেন জাতিসংঘ মানবাধিকারবিষয়ক হাইকমিশনার মিশেল ব্যাচলেট। এক বিবৃতিতে শুক্রবার তিনি এ কথা বলেন।

বিবৃতিতে বিশ্বব্যাপী সরকারগুলোকে ধর্ষণ ও যৌন সহিংসতা প্রতিরোধে তাদের প্রচেষ্টা দ্বিগুণ করা, ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা, দ্রম্নত অপরাধের তদন্ত ও বিচার নিশ্চিত করার আহ্বান জানান মিশেল ব্যাচলেট।

তিনি বলেন, সম্প্রতি আলজেরিয়া, বাংলাদেশ, ভারত, মরক্কো, নাইজেরিয়া, পাকিস্তান ও তিউনিসিয়াসহ বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে ধর্ষণের অসংখ্য রিপোর্টের পরিপ্রেক্ষিতে মানুষ যথাযথভাবে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। যৌন নিপীড়ন

রোধের প্রতিকার এবং বিচারের দাবি জানিয়েছেন। ন্যায়বিচারের দাবির সঙ্গে আমিও একাত্মতা প্রকাশ করছি। তবে আমি উদ্বিগ্ন যে, কিছু জায়গায় এরই মধ্যে নিষ্ঠুর-অমানবিক শাস্তি এবং অপরাধীদের মৃতু্যদন্ড কার্যকরে আইন গৃহীত হয়েছে।

নারী নির্যাতন ও ধর্ষণ প্রতিরোধে নাইজেরিয়ার আইন সংশোধন করা হয়েছে। বাংলাদেশে রাষ্ট্রপতি ধর্ষণের জন্য মৃতু্যদন্ড প্রবর্তনে মহিলা ও শিশু নির্যাতন (প্রতিরোধ) আইন সংশোধন করে একটি অধ্যাদেশ জারি করেছেন। পাকিস্তানের জনসাধারণ ফাঁসির আহ্বান জানিয়েছে। আরও অনেক দেশজুড়ে মৃতু্যদন্ডের আবেদন জানানো হয়েছে। মৃতু্যদন্ডের মূল যুক্তিটি হলো ধর্ষণ রোধ করা। তবে বাস্তবে এমন কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি যে, অপরাধ দমনে মৃতু্যদন্ড অন্য যে কোনো ধরনের শাস্তির চেয়ে বেশি কার্যকর।

বিশ্বের বেশিরভাগ দেশগুলোর মূল সমস্যা হলো যৌন সহিংসতার শিকার ব্যক্তি ন্যায়বিচার পায় না। ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার জন্য আহ্বান জানান তিনি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

Copyright JaiJaiDin ©2020

Design and developed by Orangebd

close

উপরে