রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ৩ মাঘ ১৪২৭

একদিনে সর্বোচ্চ মৃতু্যর রেকর্ড যুক্তরাষ্ট্রে

একদিনে সর্বোচ্চ মৃতু্যর রেকর্ড যুক্তরাষ্ট্রে

করোনা সংক্রমণের লাগাম টানা যাচ্ছে না যুক্তরাষ্ট্রে। সময়ের সঙ্গে পালস্না দিয়ে দেশটিতে সংক্রমণ ও মৃতু্য বাড়ছেই। করোনা মহামারির এক বছরে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃতু্যতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে দেশটি। জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় যুক্তরাষ্ট্রে নতুন করে প্রায় চার হাজার ৫শ' জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে। দেশটিতে একদিনে এটাই সর্বোচ্চ মৃতু্যর রেকর্ড। সংবাদসূত্র :রয়টার্স, সিএনএন

ওই পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় যুক্তরাষ্ট্রে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা দুই লাখ ৩৫ হাজার। অন্যদিকে, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে চার হাজার ৪৭০ জন। কোভিড ট্র্যাকিং প্রোজেক্ট অনুযায়ী, প্রায় এক লাখ ৩১ হাজার মানুষ সম্প্রতি করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে।

এদিকে, ওয়ার্ল্ডোমিটারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা দুই কোটি ৩৩ লাখ ৬৮ হাজার ২২৫। এর মধ্যে মারা গেছে তিন লাখ ৮৯ হাজার ৫৯৯। এরই মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছে এক কোটি ৩৮ লাখ ১৬ হাজার ২৮ জন। দেশটিতে বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৯১ লাখ ৬২ হাজার ৫৯৮। অপরদিকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় আছে ২৯ হাজার ২২২ জন।

এখন পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯ কোটি ২০ লাখ ১২ হাজার ৫১৯ জন। এর মধ্যে মারা গেছে ১৯ লাখ ৭০ হাজার ৯৫ জন। তবে করোনা থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ছয় কোটি ৫৮ লাখ ৫০ হাজার ১২০ জন।

এদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট ভবনে গত বুধবার হামলার ঘটনার পর তিন আইনপ্রণেতার দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে। গত সপ্তাহে ক্যাপিটল ভবনে হামলা চালায় ট্রাম্পের উগ্র সমর্থকরা। এমন নজিরবিহীন হামলার ঘটনা যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে আর দেখা যায়নি। হামলার সময় আইনপ্রণেতারা কয়েক ঘণ্টা ধরে নিরাপদ আশ্রয়ে ছিলেন। এরপর সেখান থেকে তাদের সরিয়ে নেওয়া হয়। বেশ কিছু ফুটেজে দেখা গেছে, সেখানে অনেক রিপাবলিকান সদস্য মাস্ক পরা ছিলেন না।

একটি ভিডিওতে দেখা গেছে বেশ কয়েকজন আইনপ্রণেতা মাস্ক পরতে বলা হলেও তারা তা করেনি। সিবিএস-এর বেশ কিছু ছবিতে দেখা গেছে, প্রমিলা জয়পালও ক্যাপিটল ভবনের ভেতরে থাকা অবস্থায় মাস্ক ছাড়া ছিলেন।

গত কয়েকদিনে বেশ কয়েকজন আইনপ্রণেতা তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার পর করোনা আক্রান্তের বিষয়টি ধরা পড়েছে। এরা হলেন-মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষের ডেমোক্র্যাট সদস্য বোনি ওয়াটসন কোলেম্যান, প্রমিলা জয়পাল এবং ব্র্যাড শেইডার।

এদিকে, মেডিকেল বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন যে, আরও আইনপ্রণেতারাও হয়তো করোনায় আক্রান্ত হয়ে থাকতে পারেন। নিউজার্সির ডেমোক্র্যাট প্রতিনিধি বোনি ওয়াটসন কোলম্যান প্রথম তার করোনায় আক্রান্তের খবর নিশ্চিত করেন। এক টুইট বার্তায় ক্যানসারজয়ী এই আইনপ্রণেতা বলেন, তার দেহে করোনার মৃদু উপসর্গ দেখা দিয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে