গত ২৪ ঘণ্টায় ৬ জনের মৃতু্য শনাক্ত ৬৩৫

দেশে হঠাৎ করেই বাড়ছে করোনা শনাক্তের হার

দেশে হঠাৎ করেই বাড়ছে করোনা শনাক্তের হার
টানা তিন দিনে দেশে করোনা রোগী শনাক্তের সংখ্যা বাড়লেও অনেকেরই যেন মাস্ক পরার বালাই নেই। সাপ্তাহিক ছুটির দিন শুক্রবার চট্টগ্রামের পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকতে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে পর্যটকদের উপচে পড়া ভিড় -স্টারমেইল

দেশে হঠাৎ করেই বাড়ছে করোনা রোগীর সংখ্যা। সম্প্রতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা কমতে থাকায় অনেকটাই স্বস্তি ফিরতে শুরু করেছিল সাধারণ মানুষের মধ্যে। কিন্তু গত কয়েকদিন অব্যাহতভাবে করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি নতুন করে চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেওয়া তথ্য মতে, শুক্রবার দেশে করোনাভাইরাসে নতুন করে ৬৩৫ জন শনাক্ত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ছিল ৬১৯ জন। এর আগের দিন ছিল ৬১৪ জন। এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে শুক্রবার মারা গেছেন ৬ জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনা সংক্রান্ত নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

করোনা টিকা দেওয়া শুরু হওয়ার পর থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ক্ষেত্রে সাধারণ মানুষের মধ্যে অনেক উদাসীনতা দেখা দেয়। এতে কারোনা সংক্রমণ বাড়তে পারে এমন আশঙ্কায় সম্প্রতি বিভিন্ন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হসিনাও সবাইকে সতর্ক করেছেন। তিনি বলেছেন, করোনার টিকা নিলেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে, মাস্ক পরতে হবে।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ক্ষেত্রে উদাসীনতায় এমনটা হতে পারে। তাই করোনা টিকা দিলেও মাস্ক পরাসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

জানতে চাইলে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এম এ আজিজ যায়যায়দিনকে বলেন, 'করোনা মহামারি শুরু হওয়ার পর সরকারের পক্ষ থেকে নেওয়া নো মাস্ক নো সার্ভিস, মোবাইল কোর্ট, সচেতনতা কর্মসূচি খুব জোরালোভাবে পালন করা হয়। যার কারণে সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলেছে। কিন্তু টিকাদান কর্মসূচি শুরু হওয়ার পর অনেকের মধ্যে গা ছাড়া ভাব চলে আসে। সে কারণে আবারও করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়ে থাকতে পারে। তাই সবার উচিত হবে করোনা নির্মূল হওয়ার আগ পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা। করোনার টিকা নেওয়ার পরও মাস্ক পরাসহ অন্য স্বাস্থ্যবিধিগুলো মেনে চলতে হবে।'

অন্যদিকে, শুক্রবার নতুন শনাক্ত ৬৩৫ জনকে নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত করোনা শনাক্ত হয়েছেন পাঁচ লাখ ৪৯ হাজার ১৮৪ জন। মারা যাওয়া ৬ জনের মধ্যে পুরুষ ৪ জন, আর ২ জন নারী। বয়স বিবেচনায় ষাটোর্ধ্ব রয়েছেন ৪ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে আছেন একজন এবং ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে আছেন একজন। তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ৩ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ২ জন আর খুলনা বিভাগের আছেন একজন। তারা সবাই হাসপাতালে মারা গেছেন।

শুক্রবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা রোগী শনাক্তের হার চার দশমিক ৬৩ শতাংশ, আর এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৩৩ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯১ দশমিক ২৫ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃতু্যহার এক দশমিক ৫৪ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৬৭৬ জন, এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন পাঁচ লাখ এক হাজার ১৪৪ জন।

গতকাল করোনা থেকে সুস্থ হওয়া ৬৭৬ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন ৫১৪ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ১২৪ জন, রংপুর বিভাগের তিনজন, খুলনা বিভাগের ১০ জন, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের সাতজন করে, রাজশাহী বিভাগের ছয়জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগের আছেন পাঁচজন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৩ হাজার ৮৭৯টি, আর নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৩ হাজার ৭১০টি। এখন পর্যন্ত করোনার মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৪১ লাখ ১৯ হাজার ৩১টি। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ৩১ লাখ ৬৭ হাজার ৬১৯টি এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ৯ লাখ ৫১ হাজার ৪১২টি।

এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে পুরুষ মারা গেছেন ছয় হাজার ৩৮১ জন এবং নারী দুই হাজার ৬০ জন। শতকরা হিসেবে পুরুষ ৭৫ দশমিক ৬০ শতাংশ, আর নারী ২৪ দশমিক ৪০ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে কোয়ারেন্টিনে যুক্ত হয়েছেন ৫০৬ জন, ছাড়া পেয়েছেন ৩৬৬ জন। এখন পর্যন্ত কোয়ারেন্টিনে যুক্ত হয়েছেন ছয় লাখ ৩০ হাজার ২৮৮ জন, ছাড়া পেয়েছেন পাঁচ লাখ ৯৮ হাজার ৪০৬ জন। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে আছেন ৩১ হাজার ৮৮২ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আইসোলেশনে যুক্ত হয়েছেন ৫৭ জন, ছাড়া পেয়েছেন ৪৫ জন। এখন পর্যন্ত আইসোলেশনে যুক্ত হয়েছেন এক লাখ ৮১৫ জন, ছাড়া পেয়েছেন ৯১ হাজার ১৩২ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৯ হাজার ৬৮৩ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, দেশে বর্তমানে ২১৯টি পরীক্ষাগারে করোনার নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআরের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে ১১৮টি পরীক্ষাগারে, জিন-এক্সপার্ট মেশিনের মাধ্যমে পরীক্ষা হচ্ছে ২৯টি পরীক্ষাগারে এবংর্ যাপিড অ্যান্টিজেনের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে ৭২টি পরীক্ষাগারে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে