​গোপালগঞ্জ শহরের অবৈধ দখলদারমুক্ত করে নিরাপদ সড়কে রূপান্তরের কাজ শুরু

​গোপালগঞ্জ শহরের অবৈধ দখলদারমুক্ত করে নিরাপদ সড়কে রূপান্তরের কাজ শুরু

গোপালগঞ্জ শহরের ২৪টি সরকারি হালট চিহ্নিত করে অবৈধ দখলদারমুক্ত করে পুরনো চৌহদ্দিতে ফিরিয়ে এনে নিরাপদ সড়কে রূপান্তরের কাজ শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে শহরের ইসলাম পাড়া, মিয়াপাড়া, বেদগ্রামসহ বিভিন্ন স্থানের ২৪টি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক যেসব সড়কে প্রতিনিয়ত যানবাহন চলাচল করে। অথচ এসব সড়ক ২০ থেকে ২২ ফুট প্রশস্ত হলেও অবৈধ দখলদাররা সেটি অবৈধ দখল করে স্থপনা নির্মণ করে ২২ ফুটের রাস্তা ৭ ফুটে নামিয়ে এনেছে। এসব সরকারি রাস্তার দু’পাশ দখলকারীদের তালিকা ও অবৈধ স্থাপনার সংখ্যা নিরূপণ করা হচ্ছে।

পর্যায়ক্রমে এসব অবৈধ দখলদারের নামে মামলা ও অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে। এমনটি বলেছেন গোপালগঞ্জ সদর সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মনোয়ার হোসেন।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) বলেন, ইতোমধ্যে শহরের বেদগ্রাম এলাকায় পাবলিকের দখলে থাকা ১৩ শতাংশ জায়গা উদ্ধার করা হয়েছে। সদর উপজেলার সোনাকুড় গ্রামের ঐতিহ্যবাহী নিলামাঠের ৪০ শতাংশ জায়গা পাবলিকের দখল থেকে মুক্ত করা হয়েছে, উচ্ছেদ করা হয়েছে ২৪টি অবৈধ স্থাপনা। সদর উপজেলার মাঝিগাতী দশপল্লী হাইস্কুলের মাঠ অবৈধ দখলদারদের কবল থেকে উদ্ধার করে খেলার মাঠে রূপান্তর করা হয়েছে। সেখানকার সকল অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে খেলার সরঞ্জামাদি দেওয়া হয়েছে, সেখানে এখন নিয়মিত খেলাধুলা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, উচ্ছেদ অভিযান সরকারের একটি চলমান প্রক্রিয়া। তবে শহরের ২৪টি সরকারি হালট রক্ষার্থে ইতিপূর্বে তেমন কোনো ব্যবস্থা না হওয়ায় অবৈধ দখলদাররা রাস্তার পাশে নানা স্থাপনা নির্মাণ করে সেই হালটগুলো দুই-তৃতীয়াংশ দখল করে ফেলেছে। এসব হালট থেকে সকল অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে জনগণের নির্বিঘ্নে যাতায়াতের জন্য নিরাপদ সড়ক সৃষ্টি করা হবে।

জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ প্রকল্প আশ্রয়ণ-২ এর ঘর নির্মাণ করতে গিয়ে আমরা জমি পাই না, অথচ শত শত একর সরকারি জায়গা অবৈধ দখলদাররা দখল করে আছে। সরকারি রাস্তার ওপর অনেকে বাড়ি, ঘর, দোকান করে আছে, স্কুলের খেলার মাঠ পর্যন্ত পাবলিক দখল করে আছে। এসব অবৈধ দখলদারের কবল থেকে সরকারি জমি উদ্ধারের কাজ চলছে। উচ্ছেদ অভিযান সরকারের একটি চলমান প্রক্রিয়া, গোপালগঞ্জে চলছে, চলমান থাকবে।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে