বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

পূর্বধলায় ৪দিনেও স্বাভাবিক হয়নি বিদ্যুৎ পরিস্থিতি! ভোগান্তিতে গ্রাহকরা

পূর্বধলা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি
  ৩০ মে ২০২৪, ২০:৪১
ছবি-যায়যায়দিন

নেত্রকোণার পূর্বধলায় ঘুর্নিঝড় রেমালের প্রভাবে উপজেলার বিদ্যুতের ব্যপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে। উপজেলার বিভিন্ন স্থানে বিদ্যুতের খুটি ভেঙ্গে গিয়ে ও গাছপালা পড়ে তার ছিড়ে গিয়ে বিদ্যুতের লাইন ছিন্নভিন্ন হয়ে রয়েছে।

এতে উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়নে ঝড়ের চারদিন পরও এখন পর্যন্ত বিদ্যুত পায়নি। তবে বিদ্যুৎ বিভাগের লোকজন জানিয়েছেন তারা পুরো উপজেলা খুব দ্রুত বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে দিনরাত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

ঘুর্ণিঝড়ের কারনে উপজেলা আগিয়া, ঘাগড়া, খলিশাউড়, বিশকাকুনী জারিয়া ইউনিয়নসহ বিভিন্ন এলাকায় কোন কোন স্থানে ঝড়ের চারদিন পর এখন পর্যন্ত বিদ্যুৎ পায়নি। উপজেলা আগিয়া ইউনিয়নের কালডোয়ার গ্রামের জান্নাতুল মাওয়া আদর্শ মাদরসাার পরিচালক ইয়কুব আলী জানান গত চারদিন ধরে একটানা বিদ্যুৎ না থাকায় অনেক সমস্যা হচ্ছে।

বিশেষ করে পানির জন্য সবচেয়ে বেশি কষ্ট হচ্ছে। একই ইউনিয়নের বাট্টা গ্রামের সাংবাদিক মজিবুর রহমান জানান, আমাদের এলাকায় বিদ্যুত না থাকায় লোকজন মোবাইল চার্জ দিতে পারছেনা, ফ্রিজের খাবার নষ্ট হচ্ছে, পানির জন্য কষ্ট করতে হচ্ছে।

উপজেলা ঘাগড়া ইউনিয়নের ঘাগড়া দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মোতালিব জানান গত কয়েকদন ধরে বিদ্যুৎ না থাকায় অন্যান্য সমস্যার পাশাপাশি মোবাইল নেটওয়ার্কের ব্যপক সমস্যা হচ্ছে। বিশেষ করে গ্রামীন ফোনের নেটওয়ার্ক পাওয়া যাচ্ছে না। ফলে যোগাযোগ করতে বিরম্বনায় পড়তে হচ্ছে।

নেত্রকোনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির পূর্বধলা জোনাল অফিসের ডেপুটি জেলারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) মো: গোলাম মোর্তজা জানান ঝড়ে গাছপালা পড়ে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ৬টি বৈদ্যুতিক পুল ভেঙ্গে যাওয়ার সঞ্চালন লাইনের তার ছিড়ে গেছে।

এছাড়া বিভিন্ন এলাকায় প্রায় ১০০টি স্পটে তার ছিড়ে গেছে। ৬০-৭০টি মিটার বিকল হয়ে গেছে। ভেঙ্গে যাওয়া পুল ইতিমধ্যে ঠিকাদারের মাধ্যমে মেরামত করা হয়েছে। বাকী সমস্যাগুলি দ্রæত সমাধানের জন্য দিনরাত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আশা করছি আগামী শুক্রবাওে মাঝে বিদু্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে।

যাযাদি/ এম

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে