logo
  • Sun, 23 Sep, 2018

  নাজমুন নাহার পলি   ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০  

পরিবেশনে চাই নান্দনিকতা

পরিবেশনে চাই নান্দনিকতা
খাবারে শুধু পেট ভরলে চলে না, কখনো কখনো মনও ভরতে হয়। খাবার পরিবেশনে তাই থাকা চাই নান্দনিকতা। যেনতেনভাবে পরিবেশিত খাবার কারও কাক্সিক্ষত নয়। এতে ভোক্তার রুচির ঘাটতি দেখা দিতে পারে।

খাবারের টেবিল সাজাতে সবার্ধুনিক ও কাযর্কর পদ্ধতি হলো ‘ফুড কাভির্ং’। ভিন্ন ভিন্ন সবজি ও ফলের কাভির্ং করে খাবারের প্লেট সাজিয়ে প্রকাশ করতে পারা যায় শিল্পী মনের প্রকাশটাও।

এখন জেনে নেয়া যাক কাভির্ং কী? কাভির্ং হচ্ছে মূলত খোদাই করা। আর ফুড কাভির্ং হচ্ছে সবজি ও ফলের ওপর শিল্পের অঁাচড় কেটে খাবারের প্রতি অতিথিকে আকৃষ্ট করার একটি কাযর্কর কৌশল। কেননা, অতিথিকে খাবারে আকৃষ্ট করে রাখতে খাবার পরিবেশনে গুরুত্ব দিতেই হবে। ফুড কাভির্ং খাবার পরিবেশনে সৌন্দযর্ বাড়ায়। রান্না মজাদার করার পাশাপাশি ফুড ফ্যাক্টরি এমনকি গৃহিণীদের কাছেও কাভির্ং এখন বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।

কাভির্ং একটি শৈল্পিক কাজ বলে কাভির্ংম্যানের থাকতে হবে সুন্দর মন। সুন্দর মন মানেই শিল্পী-মন। এ জন্য শুরুর আগেই করে নিতে হবে পরিকল্পনা। এটা বার বার চেষ্টা করতে হবে। নতুন কিছু দেখে সেটা কাভির্ংয়ের চেষ্টা করতে হবে। একটি বিষয় খেয়াল রাখতে হবে, কাভির্ংয়ের সময় যেন সব উপকরণ হাতের নাগালে থাকে।

কাভির্ং করতে চাই নিখুঁত উপকরণ। কিছু কিছু সবজি ও ফল একেবারে নরম থাকে। তাই সেগুলোর জন্যও চাই আলাদা নাইফ। কাভির্ংয়ের সরঞ্জাম সাধারণত এক সঙ্গে কিনতে পাওয়া যায় না। আলাদাভাবে সব উপকরণ সংগ্রহ করতে হবে। বিভিন্ন কুকারিজ স্টল ও চেইন শপে খেঁাজ করতে হবে কাভির্ং উপকরণ।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

উপরে