logo
বৃহস্পতিবার, ০২ এপ্রিল ২০২০, ১৯ চৈত্র ১৪২৫

  মনপুরা (ভোলা) সংবাদদাতা   ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

ঝুপড়ি ঘরে চলছে মনপুরা পোস্ট অফিসের কার্যক্রম

ঝুপড়ি ঘরে চলছে মনপুরা পোস্ট অফিসের কার্যক্রম
ভোলার মনপুরা উপজেলা পোস্ট অফিসের ঝুঁকিপূর্ণ ভবন -যাযাদি
ভোলার মনপুরায় ১৮ বছর ধরে উপজেলা পোস্ট অফিসের কার্যক্রম চলছে ভাড়া করা টিনশেডের ঝুপড়ি ঘরে। নাজুক পরিস্থিতিতে ভয় ও আতঙ্কে রাত কাটাতে হচ্ছে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের। সরকারি অনেক কাজ করা যাচ্ছে না প্রয়োজনীয় পরিবেশ না থাকায়। এমনকি মনিঅর্ডার, মানিট্রান্সফার কিংবা অর্থসম্পর্কিত লেনদেন থেকে বিরত থাকতে হচ্ছে। এতে সরকারিভাবে পোস্ট অফিস পরিচালিত কাঙ্ক্ষিত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন জনসাধারণ।

জানা যায়, উপজেলা সদর পোস্ট অফিসটি তিনতলাবিশিষ্ট ভবন ছিল। ২০০২ সালে নদী ভাঙনের অজুহাতে তৎকালীন পোস্ট মাস্টার ভবনটি সরিয়ে নেওয়ার আর্জি জানান। যার পরিপ্রেক্ষিতে ভবনটি তড়িঘড়ি করে ভেঙে ফেলা হয়। অথচ সরেজমিনে দেখা যায়, ভবনটি ভেঙে ফেলার ১৮ বছর পরও মনপুরা সংলগ্ন পশ্চিম পাশের মেঘনা নদীর দূরত্ব এখনো প্রায় ১ কিলোমিটার। পাউবো কর্তৃক ডাম্পিং বস্নক ফেলে নির্মিত হয়েছে শহর রক্ষা বাঁধ। এতে হয়ে গেছে নদী ভাঙন রোধ। এমতাবস্থায় দাপ্তরিক ভবন হারিয়ে নাজুক পরিস্থিতিতে পরিচালিত হচ্ছে পোস্ট অফিসের কার্যক্রম। নতুন ভবন নির্মাণ হবে কি না এ নিয়ে রয়েছে শঙ্কা।

এ ব্যাপারে উপজেলা পোস্ট মাস্টার আব্দুল মান্নান জানান, এ রকম ঝুপড়ি ঘরে সবসময় আতঙ্কে থাকতে হয়। আর্থিক লেনদেনে হিমশিম খাচ্ছেন। নতুন ভবন নির্মাণে কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেছেন। আশা করছেন শিগগিরই নতুন ভবনের বরাদ্দ হবে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে