logo
বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২০, ৯ মাঘ ১৪২৬

  যাযাদি রিপোর্ট   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

টিসিবির পেঁয়াজ কিনতে দীর্ঘ লাইন, ভোগান্তি

কয়েক মাস ধরে পেঁয়াজের 'ঝাঁজ' বেড়ে যাওয়ায় যেখানেই টিসিবির ট্রাক দেখছেন, সেখানেই পেঁয়াজ কিনতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করছেন লোকজন।

টিসিবির পেঁয়াজ কিনতে দীর্ঘ লাইন, ভোগান্তি
দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে স্বল্পমূল্যে পেঁয়াজ কিনছেন ক্রেতারা। ছবিটি শনিবার রাজধানীর মতিঝিল এলাকা থেকে তোলা -যাযাদি
পেঁয়াজের বাজার লাগামহীন হওয়ায় সাধারণের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে রাখতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় কমে দামে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যটি বিক্রি শুরু করে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। তবে পণ্যটি পেতে বেশ ভোগান্তির মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে লোকজনকে। অবস্থা এমন যে, পেঁয়াজের ট্রাকের হদিস না থাকলেও দুই ঘণ্টা ধরে লাইনে অপেক্ষা করছেন বহু মানুষ।

রাজধানীর শান্তিনগর কাঁচা বাজারের সামনে শনিবার সকাল ১০টায় শতাধিক মানুষের জটলা দেখা গেল। খোঁজ নিয়ে জানা যায় টিসিবির পেঁয়াজ নিয়ে গাড়ি আসবে। তাই শতাধিক নারী-পুরুষ আগেই লাইন ধরেছেন। সাড়ে দশটার একটু পরেই মাঝারি আকারের একটি পিকআপ ভ্যান এসে দাঁড়ালো জটলার কেন্দ্রবিন্দু হয়ে। তখনই লাইনের লোকজন নড়েচড়ে উঠলেন। শুরু হলো হুড়োহুড়ি।

শান্তিবাগ থেকে পঞ্চাশোর্ধ্ব আব্দুল আজিজ এসেছেন টিসিবির পেঁয়াজ কিনতে। তিনি বললেন, এখানে ৪৫ টাকায় পেঁয়াজ পাওয়া যাবে, সেজন্য দু'ঘণ্টা আগে লাইন ধরেছি।

এক কেজি পেঁয়াজের জন্য এত ভোগান্তি? জবাবে তিনি বলেন, আমরা গরিব মানুষ, কী করব। ২০০ টাকায় পেঁয়াজ কেনার ক্ষমতা থাকলে-তো এই রোদে লাইন ধরতাম না।

গাড়ির ওপরে দাঁড়িয়ে থাকা টিসিবির ডিলার বলেন, কেবল এলাম। এখন বিক্রি শুরু করব। এক হাজার কেজি পেঁয়াজ আছে গাড়িতে। শেষ না হওয়া পর্যন্ত ৪৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি করব।

টিসিবির পেঁয়াজ কেনার এ চিত্র কেবল শান্তিনগর কাঁচা বাজারের সামনেই নয়। খুচরা বাজারে গত কয়েক মাস ধরে পেঁয়াজের 'ঝাঁজ' বেড়ে যাওয়ায় রাজধানীর যেখানেই টিসিবির ট্রাক দেখছেন, সেখানেই পেঁয়াজ কিনতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করছেন লোকজন। শুধু তাই নয়, গত ১৮ নভেম্বর প্রায় পৌনে দুই ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে পেঁয়াজ কিনেছেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীও।

চট্টগ্রামে পুলিশ নারী

কল্যাণের পেঁয়াজ বিক্রি

এদিকে চট্টগ্রামের খোলাবাজারে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করেছে পুলিশ কর্মকর্তাদের স্ত্রীদের গঠিত পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতির (পুনাক) মহানগর শাখা। শনিবার সকালে নগরের খুলশী থানার দামপাড়ায় পুনাক কার্যালয়ের সামনে এই কর্মসূচির উদ্বোধন করেন উপপুলিশ কমিশনার (উত্তর) বিজয় বসাক।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রামের আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান বিএসএম গ্রম্নপ থেকে পেঁয়াজ কিনে তা বিনা লাভে বিক্রি করছে সংগঠনটি। প্রাথমিকভাবে কোতোয়ালি, পাহাড়তলি, খুলশী, চান্দগাঁও ও ইপিজেড থানার পুলিশের সহযোগিতায় ট্রাকে করে এসব পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। কেজিপ্রতি ৪৫ টাকায় কিনে একই দরে তা ক্রেতাদের মাঝে বিক্রি করা হচ্ছে।

জানতে চাইলে উপপুলিশ কমিশনার (পিওএম) হাসান মো. শওকত আলী বলেন, বিএসএম গ্রম্নপ থেকে পেঁয়াজ কিনে তা বিনা লাভে বিক্রি করছে পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতি। তাদের সহযোগিতা করছে নগর পুলিশ। জনসাধারণ যাতে বাজারমূল্যের চেয়ে অনেক কম দামে পেঁয়াজ কিনতে পারে, সে জন্য এই উদ্যোগ নিয়েছে পুনাক।

খুলশী থানা এলাকায় পেঁয়াজ ট্রাকে করে বিক্রি হচ্ছে দামপাড়ায় পুনাকের সামনে। গতকাল দুপুরে সেখানে দেখা যায়, ক্রেতাদের দীর্ঘ লাইন। একজন ক্রেতা এক কেজি করে পেঁয়াজ কেনার সুযোগ পাচ্ছেন।

পেঁয়াজ কিনতে আসা মোহাম্মদ সাইফুল বলেন, বাজারে ১০০ টাকার নিচে পেঁয়াজ নেই। বাজারদরের চেয়ে অর্ধেকের কম দামে পেঁয়াজ কেনার সুযোগ পেয়েছি। এক কেজি পেঁয়াজ দিয়ে এক-দেড় সপ্তাহ চলবে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে