logo
শনিবার ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১ পৌষ ১৪২৫

  ক্রীড়া ডেস্ক   ০৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০  

মরুর বুকে ইয়াসিরের ইতিহাস

মরুর বুকে ইয়াসিরের ইতিহাস
আবুধাবি টেস্টের চতুথর্ দিনে নিউজিল্যান্ডের সমারভিলকে আউট করার পর দুহাত উঁচিয়ে উদযাপন পাকিস্তানি স্পিনার ইয়াসির শাহ’র। ওটা ছিল টেস্ট ক্যারিয়ারে তার ২০০ শিকার। মাত্র ৩৩ টেস্টে ২০০ উইকেট নিয়ে বিশ্বরেকডের্র মালিকও বনে গেছেন তিনি Ñওয়েবসাইট
মরুর শহর আবুধাবিতে বৃহস্পতিবার সূযর্টা উঠেছিল অন্যরকম এক আবেশ ছড়িয়ে, আগের দিনই যে ইতিহাস গড়ার মঞ্চটা সাজিয়ে রেখেছিলেন ইয়াসির শাহ। পাকিস্তানের এই লেগস্পিনার ছিলেন একটি উইকেট শিকারের অপেক্ষায়। নাইটওয়াচম্যান উইলিয়াম সমারভিলকে লেগবিফোরের ফঁাদে ফেলে সাতসকালে ঘুচিয়ে ফেললেন অপেক্ষা, টেস্ট ক্যারিয়ারের ২০০তম উইকেট তুলে বনে গেলেন বিশ্বরেকডের্র মালিক। ভেঙে দিলেন ৮২ বছর টিকে থাকা পুরোনো রেকডির্ট।

কীতির্টা গড়তে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে আবুধাবি টেস্টে মাত্র ৫ উইকেট প্রয়োজন ছিল ইয়াসিরের। প্রথম ইনিংসে ৩ উইকেট নিয়ে প্রয়োজন মেটানোর খুব কাছে চলে গিয়েছিলেন। এরপর তৃতীয় দিনের শেষ বিকালে কিউইদের দ্বিতীয় ইনিংসে নিলেন একটি উইকেট, ইয়াসির দঁাড়িয়ে গেলেন ইতিহাসের দোরগোড়ায়। এর পরের গল্পটা তো বলা হয়েছে আগেই।

১৯৩৬ সালে জোহানেসবাগের্ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৩৬তম টেস্টে ২০০ উইকেটের দেখা পেয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক লেগস্পিনার ক্ল্যারি গ্রিমেট। সেই থেকে এত দিন পযর্ন্ত তিনিই ছিলেন টেস্টের দ্রæততম ২০০ উইকেট শিকারি বোলার। তার থেকেও তিন টেস্ট কম খেলে অথার্ৎ ৩৩ টেস্টেই আরেক লেগস্পিনার ইয়াসির পেলেন প্রত্যাশিত দ্রæততম ‘ডাবল’-এর দেখা।

গ্রিমেট যেখানে এই কীতির্ গড়তে ১০ বছর ৩৫৩ দিন সময় নিয়েছিলেন, ইয়াসির সেখানে সময় নিলেন মাত্র ৪ বছর ৪২ দিন। তবে সময়ের হিসাবে দ্রæততম শিকারি কিন্তু তিনি নন। ৩ বছর ৩৪০ দিনে সময় নিয়ে ২০০তম উইকেটের দেখা পেয়েছিলেন সাবেক অজি লেগস্পিনার শেন ওয়ানর্। এই তালিকায় তিনিই সবার ওপরে। ওয়ানের্র পর ইংল্যান্ডের গ্রায়েম সোয়ান। তিনি সময় নিয়েছিলেন ৩ বছর ৩৪৮ দিন। সোয়ানের স্বদেশি ইয়ান বোথাম ২০০ উইকেটের দেখা পেয়েছিলেন ৪ বছর ৩০ দিনে। তার চেয়ে ১২ দিন বেশি সময় নিলেন ইয়াসির।

দ্বিতীয় টেস্টের দুই ইনিংসে ১৪ উইকেট নিয়ে ইমরান খানের পাশে বসেছেন ইয়াসির। তার সামনে সুযোগ আছে আরও একটি রেকডর্ নিজের করে নেয়ার। চলতি সিরিজে ইতোমধ্যেই ২৭ উইকেট নিয়ে ফেলেছেন এই লেগস্পিনার। ১৯৮৭-৮৮ মৌসুমে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন টেস্টের সিরিজে ৩০ উইকেট নিয়েছিলেন আব্দুল কাদির। কিংবদন্তি এই লেগস্পিনারের রেকডির্ট স্পশর্ করতে আর ৩টি উইকেট লাগবে ইয়াসিরের। নিউজিল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংস চলছে, প্রতিপক্ষের রান নাগালের মধ্যে রাখতে ইয়াসিরের এই রেকডর্টার দিকেও তাকিয়ে পাকিস্তান।

৬০ রানে চতুথর্ উইকেট পতনের পর দারুণভাবে প্রতিরোধ গড়ে তুলেছে নিউজিল্যান্ড। ওই প্রতিরোধপবের্ সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন দলপতি কেন উইলিয়ামসন। হেনরি নিকোলসকে নিয়ে পঞ্চম উইকেটে দুশো ছাড়ানো জুটি গড়ার পথে ক্যারিয়ারের ১৯তম সেঞ্চুরিটাও তুলে নিয়েছেন এই ডানহাতি। প্রথম ইনিংসে ১১ রানের জন্য সেঞ্চুরিবঞ্চিত হয়েছিলেন, দলের অতি প্রয়োজনের মুহ‚তের্ দুদার্ন্ত ব্যাটিংশৈলী দেখিয়ে আক্ষেপটা ঘুচিয়েছেন তিনি। চতুথর্ দিন শেষে ১৩৯ রানে অপরাজিত রয়েছেন উইলিয়ামসন, ৯০ রানে অপরাজিত নিকোলস রয়েছেন সেঞ্চুরির অপেক্ষায়।

এই যুগলের অবিচ্ছিন্ন ২১২ রানের জুটিতে ৪ উইকেটে ২৭২ রান নিয়ে চতুথর্ দিন শেষ করেছে নিউজিল্যান্ড। সবমিলে ১৯৮ রানের লিড নিয়েছে দলটি।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে