logo
বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ৩০ কার্তিক ১৪২৬

  ক্রীড়া প্রতিবেদক   ১৫ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০  

শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ

মোহামেডানকে না রাখায় সমালোচনা

মোহামেডানকে না রাখায় সমালোচনা
চট্টগ্রাম আবাহনী আয়োজিত তৃতীয় শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপে দেশের ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবকে না রাখায় সমালোচনার ঝড় উঠেছে চারদিকে। ফুঁসে উঠছে সাদা-কালো সমর্থকরাও। আমন্ত্রণ না জানিয়ে দেশের ফুটবলে অনন্য অবদান রাখা এই ক্লাবটিকে অবজ্ঞা করা হয়েছে বলে মনে করছেন মোহামেডান সমর্থকরা। কলকাতা মোহামেডানের মতো একটা দলকে আমন্ত্রণ জানানো হলেও বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় ক্লাবটিকে কেন বিবেচনায় আনলো না চট্টগ্রাম আবাহনীর কর্মকর্তারা সেটা বোধগম্য নয়।

এটা আমন্ত্রণমূলক টুর্নামেন্ট। আয়োজকরা যাকে খুশি আমন্ত্রণ জানাতে পারে; কিন্তু মোহামেডান সমর্থকদের বক্তব্য- চট্টগ্রাম আবাহনী দেশের ফুটবলপ্রেমিদের মনের ভাষা বুঝতে পারেননি। তাছাড়া কলকাতা মোহামেডান প্রথম আসরে অংশ নিয়ে গ্রম্নপে সবার নিচে ছিল। একটি ম্যাচও জিততে পারেনি কলকাতার সাদাকালোরা। সেখানে একই গ্রম্নপ থেকে ঢাকা মোহামেডান খেলেছিল সেমিফাইনালে। গ্রম্নপ ম্যাচে কলকাতা মোহামেডানকে ২-১ গোলে হারিয়েছিল বাংলাদেশের সাদাকালোরা।

এবার ৮ দলের মধ্যে আয়োজকরা তিনটি ক্লাবকেই আনছে ভারত থেকে। তিনটিই কলকাতার দল। কলকাতা মোহামেডান, ইস্টবেঙ্গল ও মোহনবাগান। বাংলাদেশ থেকে তারা রাখছে প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস এবং রানার্সআপ আবাহনীকে। সঙ্গে আয়োজক চট্টগ্রাম আবাহনী তো থাকছেই। অন্য দুটি দল হতে পারে থাইল্যান্ড এবং মালদ্বীপের।

মোহামেডানকে এই টুর্নামেন্টে আমন্ত্রণ না জানানো প্রসঙ্গে চট্টগ্রাম আবাহনীর ফুটবল ম্যানেজার এবং শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপের কো-অর্ডিনেটর শাকিল মাহমুদ চৌধুরী বলেন, 'ঢাকা মোহামেডান ফুটবল দল এত বড় টুর্নামেন্টে খেলার মতো আপ টু দ্য মার্ক নয়। যে মানের ফুটবল দল এই টুর্নামেন্টে এবার খেলবে, ঢাকা মোহামেডান ফুটবল দল সেই মানের নয়। এই টুর্নামেন্টে খেলার মতো দল না বলেই মোহামেডানকে আমরা বিবেচনায় রাখিনি।'

দেশের ঐতিহ্যবাহী ক্লাবকে আমন্ত্রণ না জানানোকে দুঃখজনক হিসেবে উলেস্নখ করেছেন মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিডেটের ডিরেক্টর ইনচার্জ লোকমান হোসেন ভুঁইয়া, 'বাংলাদেশের দুটি দল মোহামেডান ও আবাহনী ঐতিহ্যবাহী। শেখ কামালের নামের এতবড় টুর্নামেন্টে এই দুই দলের খেলা উচিত। আমরা এই টুর্নামেন্টে খেলতে চাই। আমন্ত্রণ জানালে অবশ্যই মোহামেডান খেলবে। কারণ, মোহামেডান সমর্থকপুষ্ট দল। আমরা প্রথম আসরে খেলেছিলাম। আমি মনে করি, মোহামেডান ও আবাহনীর মতো দুটি দল থাকলে টুর্নামেন্টে দর্শক বাড়বে, আকর্ষণও বাড়বে। তবে এবার টুর্নামেন্ট নিয়ে আয়োজকরা আমাদের সঙ্গে কোনো আলোচনা করেনি। বাংলাদেশে এতবড় একটা টুর্নামেন্ট হচ্ছে অথচ মোহামেডানকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। এটা দুঃখজনক।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে