logo
বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ৩০ কার্তিক ১৪২৬

  ক্রীড়া ডেস্ক   ২৮ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০  

মুশফিকদের দুশ্চিন্তা বাড়াচ্ছে দিলিস্নর দূষণ

বায়ুদূষণে এ বছর সব থেকে খারাপ অবস্থায় পৌঁছেছে ভারতের রাজধানী নয়াদিলিস্ন। দূষণের মাত্রাকে অত্যন্ত বিপজ্জনক হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এরসঙ্গে আশঙ্কা করা হচ্ছে, দিওয়ালি উৎসবের কারণে দূষণের মাত্রা আরও বেড়ে যাবে। তাতে শঙ্কায় পড়েছে বাংলাদেশ-ভারত সিরিজের প্রথম টি২০। ৩ নভেম্বর দিলিস্নর অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে হবে ম্যাচটি।

বিশ্বব্যাপী শহরগুলোতে বায়ুদূষণের মাত্রা পরিমাপ করা 'এয়ার কোয়ালিটি ইন্ডেক্সের (একিউআই)' মান অনুযায়ী, ০-৫০ ভালো বলে বিবেচিত হয়, ৫১-১০০ সন্তোষজনক, ১০১-২০০ মাঝারি, ২০১-৩০০ খারাপ এবং ৩০১-৪০০ খুবই খারাপ অবস্থা। ৪০০'র উপরে যেকোনো অবস্থাকে গুরুতর হিসেবে বিবেচনা করা হয়, যা মারাত্মক স্বাস্থ্য সমস্যার কারণ হতে পারে।

একিউআই এক প্রতিবেদনে বলেছে, গত শুক্রবার নয়াদিলিস্নর বায়ুদূষণের মাত্রা ৩৮৮ ছুঁয়েছে। যেখানে এর নিরাপদ মাত্রা হচ্ছে ৬০। এ রকম দূষণের মধ্যে একটানা বাস করতে থাকলে ফুসফুসের নানা রোগসহ ক্যান্সারে আক্রান্ত হতে পারেন যে কেউ।

ভারত সরকারের একজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বাতাসের গতি কমে যাওয়াতেই দূষণের মাত্রা ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। ফলে ঘন হয়ে কুয়াশার মতো আস্তরণ সৃষ্টি হয়েছে দিলিস্নর বাতাসে। সামনে দিওয়ালিতে অবস্থার আরও অবনতির আশঙ্কা সৃষ্টি হয়েছে।

যদিও বিষয়টি নিয়ে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) এক কর্মকর্তা আশ্বস্ত করেছেন। দূষণ থেকে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের রক্ষা করতে ওই সময়ে পাঞ্জাব ও হরিয়ানার কৃষকদের আবর্জনা না পোড়ানোর অনুরোধ জানিয়েছেন দেশটির স্বাস্থ্য সচিব সি কে মিশ্রা।

দিলিস্নর বায়ুদূষণ ক্রিকেটারদের ওপর কোনো প্রভাব পড়বে না উলেস্নখ করে বিসিসিআইয়ের ওই কর্মকর্তা বলেছেন, 'দীপাবলির এক সপ্তাহ পরে এই ম্যাচ। তাই ধরে নেয়া যেতে পারে ম্যাচে খেলোয়াড়দের ওপর বায়ুদূষণ কোনো প্রভাব পড়বে না। আমরা জানি দীপাবলি উৎসবের পর দিলিস্নর বায়ুদূষণের মাত্রা এমনিতেই বেড়ে যায়। তবে এটাও ঠিক, দীপাবলিসংক্রান্ত কোনো কিছুই আমাদের হাতে নেই।'

২০১৭তে ভারত-শ্রীলংকা টেস্ট ম্যাচের খেলা শুরুর কিছুক্ষণের মধ্যেই লঙ্কান খেলোয়াড়রা মুখ ঢাকেন মাস্কে। দিলিস্নর বায়ুদূষণ সেদিন অসহনীয় হয়ে উঠেছিল শ্রীলংকান ক্রিকেটারদের কাছে। লঙ্কান ক্রিকেটারদের মুখে মাস্ক চরম বিব্রতকর অবস্থায় ফেলেছিল বিসিসিআইকে।

খুব বেশি দরকার হলে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের মুখে মাস্ক ব্যবহারের কথা জানাবে বিসিসিআই। দূষণ পরিস্থিতির কারণে দিওয়ালিতে কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করেছেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। কর্তৃপক্ষও বিকল্প হিসেবে লেজার লাইট ব্যবহারকে উৎসাহিত করছে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে