​সালথায় পেঁয়াজের চারা রোপন শুরু হয়েছে

​সালথায় পেঁয়াজের চারা রোপন শুরু হয়েছে

ফরিদপুরের সালথায় বীজতলা থেকে উঠিয়ে ফসলী জমিতে পেঁয়াজের চারা রোপনের কাজ শুরু হয়েছে। উপজেলায় মোট আবাদী প্রায় ৮০ শতাংশ জমিতে পিয়াজের আবাদ করা হয়ে থাকে। জমিতে পুরোদমে হালি পেঁয়াজ রোপনের ক্ষেত্র প্রস্তত করার কাজ চলছে। বীজ থেকে উৎপাদিত চারা রোপন করা হচ্ছে মাঠ জুড়ে।

সালথা উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ উপজেলায় চলতি মৌসুমে ১২ হাজার হেক্টরে জমিতে পেঁয়াজের চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে। যা মোট আবাদী জমির ৮০ শতাংশ । এ উপজেলায় লাল তীর কিং, তাহেরপুরী, বারি-১ সহ বিভিন্ন জাতের পেঁয়াজর আবাদ করা হচ্ছে। তীব্র শীত উপেক্ষা করে পেঁয়াজের চারা রোপনে এখন ব্যস্ত কৃষক। মাত্র ক’দিন আগে বৃষ্টির কারনে তলিয়ে যাওয়া নীচু জমিতে চারা রোপনের কাজ শুরুকরা না গেলেও অপেক্ষাকৃত উচুঁ জমি এখন ফসল রোপনের উপযোগী বিধায় কৃষকের ঘুম নাই। কৃষক সূত্রে জানাযায় আবহাওয়া অনুকুলে থাকলে আগামী ১০ থেকে ১৫ দিনের ভেতরে নীচু জমিও আবাদের উপযোগী হয়ে উঠবে।

উপজেলার ৮ টি ইউনিয়নের প্রতিটি এলাকায় পেঁয়াজ চারা রোপনের ধুম পড়ে গেছে। এখন কিষান সংকট নেই তাই কৃষকদের সমস্যা হচ্ছেনা। প্রতিদিন ভোর থেকে পেঁয়াজের চারা উত্তোলনের পর জমিতে রোপন করার কাজে সবাই ব্যস্ত। তবে গেল বৃষ্টিতে পেঁয়াজের চারার ক্ষতি হওয়ায় পেঁয়াজ চাষ কিছুটা কমে যাবে। আগামী ২০২২ ইং সনের মধ্য জানুয়ারী মাসের ভেতরে পেঁয়াজ রোপন সম্পন্ন হবেবলে কৃষক আশাবাদি।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জিবাংশু দাস বলেন, এবছর সালথা উপজেলায় মোট ১২ হেক্টর জমিতে পেঁয়াজের আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে। বৃষ্টির জন্য বীজতলার ক্ষতি হওয়ায় লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে কিছু কম আবাদ হতে পারে। তবে পেঁয়াজ উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা কৃষকের পাশে থেকে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিচ্ছেন।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

ক্যাম্পাস
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
হাট্টি মা টিম টিম
কৃষি ও সম্ভাবনা
রঙ বেরঙ

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে