শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

‘অভিনেত্রী হলে মেয়ের সঙ্গেও বিছানায় যেতাম’

যাযাদি ডেস্ক
  ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫:৩১

সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে কিভাবে কাস্টিং কাউচের শিকার হয়েছেন তার ভয়ংকর অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী রতন রাজপুত। নিজের ব্লগে তুলে ধরেন তার কাস্টিং কাউচের অভিজ্ঞতা।

নিজের ব্লগে তিনি বলেন, ‘৬০ থেকে ৬৫ বছর বয়সী এক প্রযোজক কাজের লোভ দেখিয়ে আমাকে কম্প্রোমাইজের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। ঘটনাটা বেশ কয়েক বছর পুরনো হলেও সেই ঘটনা আজও আমার স্মৃতিতে রয়েছে।’

সম্প্রতি এক ভিডিও পোস্ট করে সেই পুরোনো দিনের কথা স্মরণ করলেন ভারতীয় টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেত্রী রতন রাজপুত। সেই বছর একজন প্রযোজকের সঙ্গে তার সাক্ষাৎ হয়। তিনি যে ইন্ডাস্ট্রিতে খুব পরিচিত মুখ এমনটা নয়। তবে বেশ কিছু কাজ করার সুবাদে সকলে তাকে চেনেন। রতনের সঙ্গে দেখা হতেই তার জন্য চার থেকে পাঁচ লাখ টাকা খরচ করতে রাজি হয়ে যান সেই প্রযোজক। সেই সঙ্গে তার ক্যারিয়ারের আকাশ কুসুম পরবর্তন এনে দেবেন বলেও কথা দেন তিনি।

অভিনেত্রী সেই প্রযোজকের কথা শুনে তার কাছে জানতে চান, ‘আমি এসব কেন করব। উত্তরে প্রযোজক বলেছিলেন, আপনাকে আমার সঙ্গে বন্ধুত্ব করতে হবে।’

পাল্টা উত্তরে রতন বলেছিলেন, ‘আপনি আমার বাবার বয়সী। আপনার সঙ্গে বন্ধুত্ব কী করে করব।’ রতনের কথা শুনে রেগে যান প্রযোজক। এরপরই বিস্ফোরক মন্তব্য করে প্রযোজক বলেন, ‘আমার মেয়ে যদি অভিনেত্রী হতো তাহলে তার সঙ্গেও আমি বিছানায় যেতাম।’

এই কথা শুনে মেজাজ হারিয়ে সেখান থেকে চলে আসেন অভিনেত্রী রতন রাজপুত। তিনি কোনোদিন কাজের জন্য কোনো রকম কম্প্রোমাইজ করতে রাজি ছিলেন না। সম্মানের সঙ্গে বাঁচাই তার জীবনের মূল লক্ষ্য।

২০০৭ সালে সেই ঘটনার রেশ আজও যেনো অভিনেত্রীর স্মৃতিতে রয়েছে। কাস্টিং কাউচের কথা শেয়ার করার সময় তিনি বলেন, ‘এতো খারাপ মানুষ আমি সত্যি দেখিনি। এই ধরনের মানুষের মরে যাওয়া উচিত। এখন আমার মনে হয় যে আমি আরও একবার ওখানে যাই। ওনার সঙ্গে দেখা করি। আর নিজের পায়ের জুতো দিয়ে তাকে পেটাই।’

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে