শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১

বিয়ের আগে লিভ ইন বিয়েবিচ্ছেদের হার কমাবে : জিনাত আমান

যাযাদি ডেস্ক
  ১৫ মে ২০২৪, ১৩:০৩
জিনাত আমান

নারীদের স্বাধীনতা নিয়ে কাজ করতে গিয়ে সাবেক বলিউড অভিনেত্রী সোমা আলী জানতে পেরেছেন তাদের জীবনে অনেক সমস্যা।

অন্যদিকে আরেক বলিউড অভিনেত্রী জিনাত আমান মেয়েদের পরামর্শ দিয়েছেন বিয়ের আগে তারা যেন লিভ ইন করে নেন। কারণ এতে করে একটা স্বচ্ছ ধারনা পাবে সে। পরে যেন আফসোস করতে না হয়। তার মতে সব বিষযে জানার অধিকার সবার আছে। চারদিকে এতো এতো বিয়ে বিচ্ছেদের ঘটনা ঘটছে তা দেখে সোমার আলীর মন খারাপ। তাই তিনি চান বিয়ে আগে সব কিছু দেখে নেওয়া ভালো। এতে বিবাহবিচ্ছেদের হার কমাতে সাহায্য করে।

জানা যায়, বিয়ের আগে লিভ ইনের পরামর্শ দিয়েছিলেন বলিউউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী জিনাত আমান। তবে তার এ পরামর্শ অনেকেই ভালোভাবে নিতে পারেননি। সমালোচনা করেছেন। কিন্তু বি-টাউনেরত জনপ্রিয় আরেক নায়িকা সোমি আলি পূর্ণ সমর্থন জানালেন জিনাতের এ পরামর্শে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের এক প্রতিবেদনে উঠে এসেছে এ তথ্য।

জিনাতের ভাইরাল হওয়া সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টের হয়ে গলা মিলিয়েছেন সোমি। তিনি বলেন, আমি যখন মাউন্ট মেরির বিদ্যাচলে থাকতাম, তখন জিনাতজি এবং মাজহার ভাই (জিনাতের প্রয়াত স্বামী) আমার প্রতিবেশী ছিলেন। জ্যাকি শ্রফ এবং আয়েশা (শ্রফ)-ও কাছাকাছি থাকতেন। আমরা যখনই শুটিংয়ে যেতাম, তখনই দেখা হতো।

এরপর বলেন, সম্প্রতি অনেকেই তার নিন্দা করেছেন। আমাদের জনসংখ্যা বর্তমানে ৮০০ কোটিতে পৌঁছেছে। আমি মোটেও লিভ-ইন সম্পর্কের বিরোধী নই। জিনাতজির বক্তব্যকে ১০০ শতাংশ সমর্থন করি। কারণ আপনি যখন কারও সঙ্গে লিভ-ইন সম্পর্কে থাকেন, তখন আপনি সীমানা নির্ধারণ করে দিতে পারেন। না মানে না। আপনারা একে-অপরের সম্পর্কে জানতে পারেন। আমাদের সবারই কিছু পছন্দ-অপছন্দ আছে। লিভ ইনের ক্ষেত্রে সেটা আগে থেকে বোঝা সম্ভব। এটি বিবাহবিচ্ছেদের হার কমাতে সাহায্য করে।

নব্বইয়ের দশকে হিন্দি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় অভিনেত্রী ছিলেন সোমি আলি। সম্পর্কে ছিলেন বলিউড অভিনেতা সালমান খানের সঙ্গেও। বর্তমানে তিনি কাজ করছেন নারী স্বাধীনতা নিয়ে।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে