চিলমারীর বিভিন্ন চ্যানেলে নাব্য হ্রাস, নৌরুট ঝুঁকিপূর্ণ

চিলমারীর বিভিন্ন চ্যানেলে নাব্য হ্রাস, নৌরুট ঝুঁকিপূর্ণ

চিলমারী উপজেলার উপর দিয়ে প্রবাহিত নদনদীতে পানি কমে যাওয়ায় নাব্যতা সংকট দেখা দিয়েছে। চলতি মৌসুমে বিভিন্ন চ্যানেলের নাব্য হ্রাসের ফলে অসংখ্য ডুবোচরে অভ্যন্তরীণ নৌরুট ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। পানির স্বাভাবিক প্রবাহ না থাকায় যাত্রীবাহী ও পণ্যবাহী বেশি ওজনের নৌযান ঝুঁকি নিয়ে বিকল্প পথ ব্যবহার করছে। বিশেষ করে নৈশকালীন নৌযানগুলোকে পড়তে হচ্ছে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে। এর ফলে জ্বালানি খরচ বৃদ্ধির পাশা-পাশি অতিরিক্ত সময়ও ব্যয় হচ্ছে।

চিলমারী নদীবন্দর রমনা ঘাট থেকে রৌমারী, রাজীবপুর, বাহাদুরাবাদ ঘাট ও গাইবান্ধা যাওয়ার পথে শতাধিক স্থানে ডুবোচর জেগে উঠায় নৌযানগুলো প্রায়ই চলাচল পথে আটকে যাচ্ছে। ইঞ্জিনচালিত নৌকার চালকরা জানান, চলতি মৌসুমে ব্রহ্মপুত্র নদের পানি প্রবাহ অত্যন্ত হ্রাস পাওয়ায় নৌ চলাচল মারাত্মকভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে। শীত ও ঘনকুয়াশা এবং পানি কমে যাওয়ায় নৌযান চালানো অসম্ভব হয়ে পড়েছে।

চিলমারী বন্দর সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে রমনা ঘাট থেকে রাজীবপুরে ২টি, রৌমারী ৪টি, কর্তিমারী ১টি, কোদাল কাটি, অষ্টমীর চর, নয়ারহাটে এবং চিলমারী ইউনিয়নে ১টি করে স্যালোইঞ্জিন চালিত নৌকা নিয়মিত যাতায়াত করছে। নৌকার মাঝি মালেক, হাফিজুর ও হাশেম আলী জানান, বর্তমানে রাজীবপুর, শাখাহাতি, ভাটিয়ারচর, কড়াইবরিশাল, বড়চর, কর্তিমারী, নালিতাখাতা এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানে নৌকা ডুবোচরে নিয়মিত আটকা পড়ছে। ফলে নৌকাচালক ও যাত্রীদেরকে বিড়ম্বনার শিকার হতে হচ্ছে। এ ছাড়াও নদীতে নাব্যতা না থাকার কারণে চিলমারী ভাসমান তেল ডিপোর বার্জসহ ভারতীয় পণ্যবাহী জাহাজগুলো ব্রহ্মপুত্র নদ দিয়ে স্বাচ্ছন্দে চলাচল করতে পারছে না। স্যালো ইঞ্জিনচালিত নৌকামালিকরা জানান, বিভিন্ন রুটে কোনো প্রকার ড্রেজিং এর ব্যবস্থা না থাকায় অসংখ্য ডুবোচর নদের গতিপথ পরিবর্তন এবং নৌরুটগুলোতে চর জেগে উঠায় নৌপথ ক্ষীণ হয়ে এসেছে।

ফলে পনৗযানগুলোকে অতিরিক্ত পথ ঘুরে গন্তব্যে যেতে হচ্ছে। বড় বড় ডুবোচর নাব্য হ্রাসের স্থানগুলোকে চিহ্নিত করে জরুরি ভিত্তিতে ড্রেজিং করা না হলে চিলমারীর অভ্যন্তরীণ নৌ-রুটগুলোর যোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙে পড়তে পারে। এতে বিপাকে পড়বে এই সকল রুট চলাচলকারী ইঞ্জিনচালিত নৌকার মালিক, শ্রমিক ও যাত্রীরা।

যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে