শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

আবারও ৬ বলে ৬ ছক্কা হাঁকিয়ে ইতিহাস

যাযাদি ডেস্ক
  ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২০:১৩
ছবি সংগৃহিত

মধ্যপ্রাচের দেশগুলো খেলায় বেশ মনোযোগি হয়েছে। বিশেষ করে ফুটবল এবং ক্রিকেটে। কাতার ফুটবল বিশ্বকাপের পর খেলার প্রতি আগ্রহ বাড়ে তাদের। এমন সফল বিশ্বকাপ আয়োজন এর আগে কোনো দেশ করতে পারেনি। কাতার বিশ্বকে দেখিয়ে দিয়েছে সফলতা কাকে বলে।

এদিকে টি-টোয়েন্টিতে হরহামেশাই চার-ছক্কার ফুলঝুরির দেখা মেলে। তবে ৬ বলে ৬ ছক্কা হাঁকানোর নজির খুব একটা নেই। এবার সেই বিরল ঘটনাই ঘটালেন নেপালের ব্যাটার দীপেন্দ্র সিং আইরে। ৬ বলে ৬ ছক্কা হাঁকিয়ে ভারতের যুবরাজ সিং ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাইরন পোলার্ডের পাশে নাম বসালেন তিনি।

শনিবার (১৩ এপ্রিল) ওমানের আল আমিরাত স্টেডিয়ামে এসিসি প্রিমিয়ার কাপে কাতারের মুখোমুখি হয় নেপাল। টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নামে নেপাল।

উদ্বোধনী জুটি খুব বেশিক্ষণ স্থায়ী না হলেও ঠিকই ফিফটি পূর্ণ করেন ওপেনার আসিফ শেখ। ৪১ বলে ৫২ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন এই ওপেনার।

এরপর ব্যাট করতে নেমে ১৮ বলে ৩৫ রানে ফেরেন কুশল মাল্লা। তবে একপ্রান্ত আগলে রেখে টর্নেডো ইনিংস খেলেন দীপেন্দ্র সিং আইরে। মাত্র ২১ বলে ৩ চার ও ৭ ছক্কায় ৬৪ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি।

ইনিংসের শেষ ওভারে ডানহাতি পেসার কামরান খানের ওভারে ৬ ছক্কা হাঁকান আইরে। ফলে এ নিয়ে তৃতীয়বার আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ৬ বলে ৬ ছক্কার ঘটনা দেখল ক্রিকেটবিশ্ব। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ২১০ রানের পুঁজি পায় দলটি।

এর আগে, ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের স্টুয়ার্ড ব্রডকে ৬ বলে ৬ ছক্কা হাঁকান ভারতের যুবরাজ সিং। এরপর ২০২১ সালে আকিলা ধনাঞ্জয়াকে ৬ ছক্কা হাঁকান ক্যারিবিয়ান তারকা ব্যাটার পোলার্ড।

নেপালের হয়ে ৬০টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলেছেন ২৪ বছর বয়সী এই ব্যাটার। এর আগেও টানা ৬টি ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন তিনি। তবে সেটি দুটি আলাদা ওভার থেকে এসেছিল। মঙ্গোলিয়ার বিপক্ষে সেই ম্যাচে টি-টোয়েন্টির সর্বোচ্চ ৩১৪ রানের রেকর্ড গড়েছিল নেপাল। ৯ বলে হাফসেঞ্চুরি তুলে টি-টোয়েন্টিতে দ্রুততম ফিফটির রেকর্ড গড়েন তিনি। এতে যুবরাজ সিং, ক্রিস গেইল ও হজরতুল্লাহ জাজাইকে পেছনে ফেলেন আইরে।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে