logo
রবিবার, ০৫ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৬

  যাযাদি রিপোর্ট   ০৬ জুন ২০২০, ০০:০০  

ডা. মঈনের পরিবার পাচ্ছে ৫০ লাখ টাকা

ডা. মঈনের পরিবার পাচ্ছে ৫০ লাখ টাকা
ডা. মো. মঈন উদ্দিন
প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের জন্য সরকার ঘোষিত ক্ষতিপূরণের টাকা পাচ্ছে দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া প্রথম চিকিৎসক ডা. মো. মঈন উদ্দিনের পরিবার। শুক্রবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. হাবিবুর রহমান খান গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

অতিরিক্ত সচিব বলেন, 'করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতু্যবরণ করা প্রথম চিকিৎসক হিসেবে সরকারি ক্ষতিপূরণের ৫০ লাখ টাকা তার পরিবারকে দেওয়া হবে। ক্ষতিপূরণের জন্য ডা. মঈনের পরিবারের আবেদনটি সমস্ত প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে ইতোমধ্যে অর্থ মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হয়েছে। আশা করছি, অর্থ মন্ত্রণালয় দ্রম্নতই ক্ষতি পূরণের অর্থ ডাক্তার মঈনের পরিবারকে প্রদান করবে।'

গত ৫ এপ্রিল সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ডা. মঈন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হন। পরে ১৫ এপ্রিল কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃতু্য হয়।

করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের সেবায় দায়িত্বরত চিকিৎসক-নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীসহ সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে থাকা মাঠপ্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী ও সশস্ত্রবাহিনী এবং প্রত্যক্ষভাবে নিয়োজিত প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীরা দায়িত্ব পালনকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

ওই বিষয়ে গত ২৩ এপ্রিল একটি পরিপত্র প্রকাশ করে অর্থ মন্ত্রণালয়। যাতে বলা হয়, করোনা আক্রান্ত সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বেতন কাঠামো অনুযায়ী ৫ লাখ টাকা থেকে ১০ লাখ টাকা এবং আক্রান্ত হয়ে মারা গেলে তার পরিবার ২৫ লাখ টাকা থেকে ৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত ক্ষতিপূরণ পাবেন।

সে অনুযায়ী গত ২৭ এপ্রিল ডাক্তার মঈন উদ্দিনের স্ত্রী ডা. চৌধুরী রিফাত জাহান মন্ত্রণালয় বরাবর আবেদন করেছিলেন। তিনি বলেন, 'আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা সহযোগিতা করেছেন। তবে ক্ষতিপূরণ পাস হয়েছে কি না, তা এখনো মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়নি।'

অর্থ মন্ত্রণালয়ের উপসচিব ড. মোহাম্মদ আবু ইউসুফ বলেন, 'ঘোষিত ক্ষতিপূরণ দ্রম্নততম সময়ের মধ্যে প্রদান করা আমাদের উদ্দেশ্য। চিকিৎসক মঈন উদ্দিনের আবেদন ছাড়াও যে সব আবেদন আমরা পেয়েছি, সকল আবেদন দ্রম্নততম সময়ের মধ্যে ছাড় দেব।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে