৫ বছরেও রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন আলোর মুখ দেখেনি : মোমেন

৫ বছরেও রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন আলোর মুখ দেখেনি : মোমেন

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের বিষয়টি অত্যন্ত জোরালোভাবে উত্থাপন করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডক্টর এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, অনেক প্রচেষ্টার পরও গত পাঁচ বছরে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন আলোর মুখ দেখেনি।

বৃহস্পতিবার কম্বোডিয়ার রাজধানী নমপেনে এক বৈঠকে ইউরোপিয়ান কমিশনের ভাইস-প্রেসিডেন্ট জোসেপ বোরেল ফন্টেলেসকে এ কথা বলেন তিনি।

ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে বাংলাদেশকেও

সংকটে পড়তে হচ্ছে উলেস্নখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাজ্য, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, স্পেন, জাপান, কোরিয়া, ফ্রান্সের মতো দেশগুলোর মিয়ানমারের সঙ্গে অধিকতর বিনিয়োগ ও বাণিজ্য থাকায় তাদের দিক থেকেও রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে মিয়ানমারের ওপর চাপ বজায় রাখা প্রয়োজন।

মিয়ানমারকে তাদের নাগরিকদের ফিরিয়ে নিতে চাপ দেওয়ার জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের কার্যকর সমর্থন প্রত্যাশা করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। অন্যথায় মিয়ানমার ও বাংলাদেশ এমনকি সমগ্র অঞ্চলের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা বিপন্ন হতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।

ভিয়েতনামের সমর্থন চান মোমেন

এদিকে, বৃহস্পতিবার কম্বোডিয়ার রাজধানী নমপেনে ভিয়েতনামের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বুই থান সোনের সঙ্গে অনুষ্ঠিত বৈঠকে অ্যাসোসিয়েশন অব সাউথইস্ট এশিয়ান ন্যাশনসের (আসিয়ান) সেক্টরাল ডায়ালগ পার্টনার হতে জোটটির গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ভিয়েতনামের সমর্থন চেয়েছেন ডক্টর এ কে আব্দুল মোমেন।

বৈঠকে ডক্টর মোমেন বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতে ভিয়েতনামকে বিনিয়োগের জন্য আমন্ত্রণ জানান। বিশেষ করে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অঞ্চল, কৃষি ও আইসিটির মতো অগ্রাধিকার খাতে ভিয়েতনামকে বিনিয়োগের আহ্বান জানান। তিনি ব্যবসা-বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধির জন্য নিয়মিতভাবে প্রযুক্তিগত দক্ষতা বিনিময়ের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

এছাড়া মিয়ানমারের ওপর বন্ধুত্বপূর্ণ প্রভাব প্রয়োগ করে বাংলাদেশ থেকে তাদের নাগরিকদের ফিরিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখতে তিনি ভিয়েতনামের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে অনুরোধ করেন।

রোহিঙ্গা ইসু্যতে সহযোগিতা চায় বাংলাদেশ

এদিকে, বৃহস্পতিবার কম্বোডিয়ার রাজধানী নমপেনে ব্রম্ননাই দারুসসালামের দ্বিতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী দাতো সেরি সেতিয়া হাজি এরিওয়ান বিন পেহিন দাতু পেকারমা জয়া হাজি মোহাম্মদ ইউসুফের স?ঙ্গে বৈঠ?কে মিয়ানমারের জোরপূর্বক বাস্তুচু্যত রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে ব্রম্ননাইয়ের সহযোগিতা চেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডক্টর মোমেন।

বৈঠকে তারা পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন এবং আগামী দিনে বন্ধুপ্রতিম দুই দেশের মধ্যে বিদ্যমান চমৎকার সম্পর্ক আরও জোরদারের প্রতিশ্রম্নতি পুনর্ব্যক্ত করেন।

মোমেন মিয়ানমারের নাগরিকদের বিষয়ে বাংলাদেশের উদ্বেগের কথা জানান এবং মিয়ানমারের ১১ লা?খের বে?শি রো?হিঙ্গা?কে দ্রম্নত, নিরাপদ ও মর্যাদাপূর্ণ প্রত্যাবাসনের জন্য অনুকূল পরিস্থিতি তৈরিতে মিয়ানমারকে রাজি করাতে আসিয়ান দেশগুলোর আরও সমন্বিত ও সক্রিয় সমর্থনের আহ্বান জানান।

ডক্টর মোমেন আসিয়ানের সেক্টরাল ডায়ালগ পার্টনার (এসডিপি) হওয়ার জন্য বাংলাদেশের পক্ষে ব্রম্ননাই দারুসসালামের সমর্থনও প্রত্যাশা করেন।

ব্রম্ননাইয়ের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দাতো ইউসুফ মহামারির কারণে ২০২০ সালে স্থগিত হয়ে যাওয়া ব্রম্ননাইয়ের সুলতানের বাংলাদেশে সফরের বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেন। ডক্টর মোমেন এই প্রস্তাবকে আন্তরিকভাবে স্বাগত জানান এবং উভয় মন্ত্রী এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি গ্রহণে একমত হন।

তিমুর-লেস্তের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক

এদিকে, বৃহস্পতিবার কম্বোডিয়ার রাজধানী নমপেনে তিমুর-লেস্তের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডালজিজা আলবার্টিনা রেইস ম্যাগনোর সঙ্গে বৈঠক করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। বৈঠকে উভয় মন্ত্রী দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও জোরদার করার অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেন। এ সময় দু দেশের পারস্পরিক সুবিধার বিভিন্ন বিষয়, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন, বাংলাদেশ শান্তিরক্ষা বাহিনী, দারিদ্র্যবিমোচন, গণশিক্ষা, নারীর ক্ষমতায়ন, কৃষি গবেষণা, মৎস্য, পশুসম্পদ ও পোল্ট্রি শিল্প, ডিজিটালাইজেশন, যুব উন্নয়ন, শিক্ষার্থী বিনিময় কর্মসূচি, বাণিজ্য ও বিনিয়োগের ক্ষেত্রে অধিকতর সহযোগিতার প্রয়োজনীয়তার বিষয়ে তারা আলোচনা করেন।

ডক্টর মোমেন উভয় দেশের বিদ্যমান সম্পর্ক আরও জোরদার করতে উচ্চ পর্যায়ের রাজনৈতিক ও সরকারি নিয়মিত সফর বিনিময়ের প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। একই সঙ্গে সামনের দিনগুলোতে উভয় দেশের মধ্যে আরও দক্ষ অংশীদারিত্বের লক্ষ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা ও অভিজ্ঞতা বিনিময়ের প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

বৈঠকে কম্বোডিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আঞ্চলিক সংস্থা শাখার মহাপরিচালক (রিজিওনাল অর্গানাইজেশন) ও উভয় দেশের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডক্টর এ কে আব্দুল মোমেন ২৯তম আসিয়ান আঞ্চলিক ফোরামের (এআরএফ) মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে অংশ নিতে বর্তমানে কম্বোডিয়া সফরে রয়েছেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে