বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০
walton
কটূক্তি বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের

আদালতে তোপের মুখে শাহজাহান ওমর

যাযাদি ডেস্ক
  ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০০:০০

সুপ্রিম কোর্টে গিয়ে বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের তোপের মুখে পড়েছেন ঝালকাঠি-১ আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর বীর উত্তম। বুধবার দুপুরে সুপ্রিম কোর্টে এসে অপ্রীতিকর অবস্থায় পড়তে হয় সদ্য বিএনপি ছেড়ে সরকারি দলে নাম লেখানো শাহজাহান ওমরকে, যিনি নিজেও আইনজীবী। আইনজীবীরা তাকে উদ্দেশ করে কটূক্তিও করেন।

ঘটনার বিষয়ে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল ইসলাম সজল সাংবাদিকদের বলেন, 'দুপুর ১২টার দিকে শাহজাহান ওমর তার এক জুনিয়রকে আমার চেম্বারে পাঠান তার চেম্বারে যাওয়ার জন্য। আমি তার জুনিয়রকে বলে দেই, মোনাফেক-মীর জাফরের সঙ্গে আমি দেখা করতে যাব না। আমি তার চেম্বারে দেখা করতে না যাওয়ায় শাহজাহান ওমর আমার চেম্বারে চলে আসেন।'

তিনি আরও বলেন 'শাহজাহান ওমর এসেই আমার

সঙ্গে উচ্চবাচ্য শুরু করেন। জানতে চান, আমি কেন তাকে মোনাফেক-মীর জাফর বলেছি। আমি তাকে বলি আপনি বেইমান, মোনাফেক, মীরজাফর। এ সময় সাধারণ আইনজীবীরা তাকে আমার চেম্বার থেকে ধাওয়া করেন। চেম্বার থেকে বের হয়ে তিনি কফিশপের সামনে যান। সাধারণ আইনজীবীরা তাকে ঘিরে তার বিরুদ্ধে সেস্নাগান দিতে থাকেন।'

অ্যাডভোকেট সজল বলেন, বিএনপিপন্থি আইনজীবীরা তার কাছে জানতে চান প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলার আসামি হয়ে কীভাবে পুলিশ প্রটোকলে সুপ্রিম কোর্টে এলেন। এক পর্যায়ে শাহজাহান ওমর সুপ্রিম কোর্ট থেকে চলে যান বলে তিনি জানান।

আদালতে যাওয়ার কারণ জানতে চাইলে বিএনপির সদ্য বহিষ্কৃত ভাইস চেয়ারম্যান শাহজাহান ওমর বলেন, রেজিস্ট্রার কার্যালয়ে তিনি একটা কাজে এসেছিলেন।

ডিবিতে বুলিংয়ের অভিযোগ : এদিকে, বুধবার দুপুরে সাইবার বুলিংয়ের অভিযোগ নিয়ে রাজধানীর মিন্টো রোডে ঢাকা মেট্রোপলিটন গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) কার্যালয়ে যান শাহজাহান ওমর। বুধবার দুপুরে তিনি ডিবি কার্যালয়ে যান।

শাহজাহান ওমরের বিষয়ে জানতে চাইলে ডিবি প্রধান মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেন, আমাদের এখানে সব শ্রেণি-পেশার মানুষ আসেন। খেটে খাওয়া মানুষ থেকে শুরু করে বিভিন্ন পেশার মানুষ বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে আসেন। তেমনি একটি সমস্যা নিয়ে একজন এসেছেন। তিনি সাইবার বুলিংয়ের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ দিতে এসেছেন। তিনি আমাদের কাছে যে নামগুলো দেবেন, সে অনুযায়ী তদন্ত করে আমরা ব্যবস্থা নেব।

সাক্ষাৎ পাননি প্রধান বিচারপতির : এদিকে, বুধবার বেলা ১১টার দিকে প্রধান বিচারপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে এসেছিলেন ঝালকাঠি-১ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর বীরউত্তম। তবে প্রধান বিচারপতির সাক্ষাৎ পাননি তিনি। প্রধান বিচারপতির দপ্তর সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, বেলা ১১টার দিকে সুপ্রিম কোর্টে প্রধান বিচারপতির সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য আসেন তিনি। তবে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করেও প্রধান বিচারপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ মেলেনি তার।

এদিকে বিষয়টি অস্বীকার করে বিএনপি থেকে সদ্য বহিষ্কৃত সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার এম শাহজাহান ওমর বলেন, 'সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার কার্যালয়ে একটা কাজে এসেছিলাম।' আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, 'আওয়ামী লীগ আমার পুরনো দল। নিজ ঠিকানায় ফিরে এসেছি।'

প্রসঙ্গত, ঝালকাঠি-১ (কাঁঠালিয়া-রাজাপুর) আসনে নির্বাচন করতে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন বিএনপির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার এম শাহজাহান ওমর। তার বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ ওঠে। নির্বাচন অনুসন্ধান কমিটি তাকে শোকজও করে। গত ৪ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় ঝালকাঠি-১ আসনে নির্বাচন কমিশনের গঠন করা অনুসন্ধান কমিটির দায়িত্বপ্রাপ্ত বিচারক সিনিয়র সহকারী জজ পলস্নবেশ কুমার কুন্ডু তাকে শোকজ করেন।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে