logo
বুধবার, ০৫ আগস্ট ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৬

  স্বদেশ ডেস্ক   ০৬ জুলাই ২০২০, ০০:০০  

কলাপাড়ায় লাশ উদ্ধার

গোপালগঞ্জ ও রংপুরে দুই নারী খুন

গোপালগঞ্জ ও রংপুরে দুই নারী খুন
গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া ও রংপুরের পীরগাছায় দুই নারী খুন হয়েছেন। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

কোটালীপাড়া (গোপালগঞ্জ) : গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে কুলসুম বেগম (৬৮) নামে এক বৃদ্ধাকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করেছে তার সৎ সন্তানরা। শনিবার উপজেলার রাধাগঞ্জ ইউনিয়নের রাজিন্দারপাড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় পুলিশ শনিবার রাতেই উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ৪ নারীকে গ্রেপ্তার করেছে। হত্যার শিকার কুলসুম বেগম রাজিন্দারপাড় গ্রামের সবর আলী সিকদারের দ্বিতীয় স্ত্রী।

কোটালীপাড়া থানার ওসি শেখ লুৎফর রহমান বলেন, 'এ ঘটনায় শনিবার রাতেই কুলসুম বেগমের ছেলে স্বপন সিকদার বাদী হয়ে ৭ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন। রাতেই অভিযান চালিয়ে এ ঘটনায় জড়িত ৪ নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে। প্রাথমিকভাবে পিটিয়ে হত্যার প্রমাণ পেয়েছি আমরা।'

রংপুর : রংপুরের পীরগাছায় মিতু আক্তার (২৭) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার বড় পানসিয়া গ্রাম থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। মিতু আক্তার ওই গ্রামের রহুল আমিনের স্ত্রী। এটি হত্যা না আত্মহত্যা তা নিয়ে রহস্য দেখা দিয়েছে। এ নিয়ে পরস্পরবিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, পীরগাছা উপজেলার পূর্বদেবু গ্রামের মৃত মাজহারুল ইসলামের মেয়ে মিতু আক্তারের সঙ্গে প্রায় ৫ বছর আগে রুহুল আমিনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুক নিয়ে পারিবারিক কলহ চলছিল। স্বামীর পরিবারের লোকজনের দাবি, মিতু আক্তার সবার অগোচরে শনিবার রাত ১১টার দিকে শয়নকক্ষে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তবে মিতুর চাচা মঞ্জুরুল ইসলামের দাবি, মিতুকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে ফাঁসে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।

পীরগাছা থানার ওসি রেজাউল করিম বলেন, মিতুর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এটি হত্যা না আত্মহত্যা ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর বোঝা যাবে।

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) : পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় এক কলেজ ছাত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। প্রেমঘটিত কারণে এ আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করেছে পুলিশ। রবিবার উপজেলার মহিপুর থানার বিপিনপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য পটুয়াখালী মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহত ছাত্রের নাম মো. সোয়েব (২০)। সে মহিপুর মুক্তিযোদ্ধা মেমোরিয়াল কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী। বাড়ির পাশে একটি খালি ঘরের আড়ার সাথে রশি দিয়ে ফাঁস দিয়ে সে আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে।

মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান জানান, আত্মহত্যার প্রকৃত ঘটনা উদ্‌ঘাটনের চেষ্টা চলছে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে