বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১
উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

গৌরনদী ও আগৈলঝাড়ায় আ'লীগের দুই প্রার্থী ঘোষণা

গৌরনদী (বরিশাল) প্রতিনিধি
  ০৪ এপ্রিল ২০২৪, ০০:০০

বরিশাল-১ আসনের গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য আওয়ামী লীগের অন্তত ১০ জন নেতাকর্মী প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। ছয় মাস ধরে তারা গণসংযোগ করেছেন। এর মধ্যে গত ৩১ মার্চ রাতে জেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের উপস্থিতিতে দুই উপজেলার দু'জনকে প্রার্থী ঘোষণা করা হয়। এতে প্রচারণায় থাকা অন্য নেতারা হঠাৎ নিশ্চুপ বনে গেছেন।

বরিশাল-১ (গৌরনদী-আগৈলঝাড়া) আসনের সংসদ সদস্য এবং জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসানাত আবদুলস্নাহর সেরালস্থ বাসভবনে ওইদিন রাতে ওই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গৌরনদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র হারিছুর রহমান এবং আগৈলঝাড়ার সংসদ সদস্যের ছেলে সেরনিয়াবাত আশিক আবদুলস্নাহ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। বিষয়টি জানাজানির পর নেতাকর্মীরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দুই নেতার ছবি দিয়ে আনন্দ উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে বৈঠকে উপস্থিত সম্ভাব্য এক প্রার্থী বলেন, সংসদ সদস্যের বাসভবনে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের উপস্থিতিতে রাতে দু'জনকে প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয়েছে। যেহেতু আবুল হাসানাত আবদুলস্নাহ দু'জনকে মনোনীত করেছেন, এ জন্য তিনি প্রার্থী হবেন না।

দলীয় সূত্র ও সম্ভাব্য প্রাথীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া নির্বাচন হবে। নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগে থেকেই চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়ে মাঠে নামেন গৌরনদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এইচ এম জয়নাল আবেদীন, বর্তমান চেয়ারম্যান ও মহিলা আওয়ামী লীগের জেলার সাধারণ সম্পাদক সৈয়দা মনিরুন নাহার মেরি, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মনির হোসেন মিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ হোসেন মুন্সী, পৌর মেয়র হারিছুর রহমান হারিছের সহোদর আওয়ামী লীগ নেতা হাবিবুর রহমান হাবিব এবং উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আনিসুর রহমান আনিচ। তারা ছয় থেকে সাত মাস ধরে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে ব্যানার, ফেস্টুন, বিলবোর্ড মতবিনিময়সহ গণসংযোগ করেছেন। কিন্তু গত রোববারের পর হঠাৎ তাদের প্রচারণা স্থবির হয়ে পড়ে। ইতিমধ্যে প্রার্থী হতে পৌর মেয়রের পদ ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন হারিছুর রহমান। এইচ এম জয়নাল আবেদীন বলেন, 'আমি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ায় নেতাকর্মীরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিষয়টি প্রচার করেছে তবে এটা সঠিক নয়।' নিজের প্রার্থিতার বিষয়ে বলেন, পরিস্থিতির ওপর সিদ্ধান্ত নেবেন।

মো. ফরহাদ হোসেন মুন্সী বলেন, বরিশালের রাজনৈতিক অভিভাবক আবুল হাসানাত আবদুলস্নাহর সিন্ধান্তের ওপর তার প্রার্থী হওয়ার বিষয়টি নির্ভর করে। দলীয় সূত্রে জানায়, আগৈলঝাড়ায় সম্ভাব্য প্রাথী হিসেবে বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রইস সেরনিয়াবাত, সাধারণ সম্পাদক আবু সালেহ মো. লিটন প্রচারণা চালান। কয়েকদিন ধরে প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় আসেন সংসদ সদস্য আবুল হাসানাত আবদুলস্নাহর কনিষ্ঠ ছেলে সেরনিয়াবাত আশিক আবদুলস্নাহ।

এ বিষয় জানতে চাইলে বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট তালুকদার মো. ইউনুস এ ব্যাপারে কথা বলতে রাজি হননি। এমনকি হারিছুর রহমান ও আশিক আবদুলস্নাহর সঙ্গে যোগাযোগ করতে চাইলে তাদের মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে