বঙ্গবন্ধুসেতুতে একদিনে গাড়ি পারাপারে রেকর্ড

বঙ্গবন্ধুসেতুতে একদিনে গাড়ি পারাপারে রেকর্ড

ঈদে ঘরমুখো মানুষের চাপে গত ২৪ ঘণ্টায় বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে রেকর্ড সংখ্যক যানবাহন পারাপার হয়েছে। দূরপাল্লার যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকলেও সোমবার (১০ মে) ভোর ৬টা থেকে মঙ্গলবার (১১ মে) ভোর ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় বঙ্গবন্ধুসেতু দিয়ে ৪১ হাজার ৬২৫টি যানবাহন পারাপার এবং দুই কোটি ৫৬ লাখ টাকা টোল আদায় করা হয়েছে। পারাপার হওয়া যানবাহনের মধ্যে ব্যক্তিগত গাড়ির সংখ্যা বেশি।

স্বাভাবিক সময়ে এ সেতু দিয়ে ১১-১২ হাজার যানবাহন চলাচল করে থাকে। বতর্মানে প্রায় চার গুণ যানবাহন পারাপার হয়েছে। সেতু কর্তৃপক্ষ সরাসরি মিডিয়ার কাছে কোন বক্তব্য দিতে রাজি না হলেও সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

সরেজমিনে জানা যায়, মহাসড়কে দূরপাল্লার কোন বাস চলাচল করছেনা। তবে ট্রাক, মাইক্রোবাস, পিকআপ, প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেলের চাপ রয়েছে। এরমধ্যে মঙ্গলবার সকাল থেকে উত্তরবঙ্গমুখী অতিরিক্ত যানবাহনের চাপ সামাল দিতে পুলিশ হিমশিম খাচ্ছে। মালবাহী ট্রাক, খোলা ট্রাক, পিকআপ, মাইক্রোবাস, ব্যক্তিগত গাড়ি ও মোটরসাইকেলে গাদাগাদি করে ঘরমুখো মানুষ বাড়ি ফিরছেন। করোনাকালীন সময়ে সরকারি নির্দেশনায় মহাসড়কে দূরপাল্লার বাস বন্ধ থাকায় দুর্ঘটনার ঝুঁকি নিয়ে বাড়ি ফিরছে যাত্রী সাধারণ। মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে যাত্রীরা গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছে। দীর্ঘ সময়েও গাড়ি না পেয়ে অনেকে হেঁটেই গন্তব্যের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন। পথে পথে তারা চরম ভোগান্তির শিকারও হচ্ছে।

এলেঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইয়াসির আরাফাত জানান, মহাসড়কে দূরপাল্লার বাস না চললেও ট্রাকসহ অন্যান্য যানবাহনের অতিরিক্ত চাপ রয়েছে। যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে- কোথাও যানজট নেই। এছাড়া মহাসড়কে কোন দূরপাল্লার বাস চলাচল করতে দেওয়া হচ্ছেনা।

যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে