​ পূর্বধলায় আগিয়া ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হতে চান প্রায় পোনে এক ডজন প্রার্থী

​  পূর্বধলায় আগিয়া ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হতে চান প্রায় পোনে এক ডজন প্রার্থী

ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার আগিয়া ইউনিয়নে নির্বাচনী প্রচারনা বেশ জমে উঠেছে। এই ইউনিয়নে নির্বাচনের তারিখ নির্ধারন হয়েছে ২৮নভেম্বর। আগিয়া ইউনিয়নে সর্বমোট ২৫হাজার ৬৯জন ভোটার রয়েছে। তার মধ্যে ১২হাজার ৭৬৯ জন পুরুষ ও ১২হাজার ৩০০জন মহিলা ভোটার রয়েছে।

এখানে নির্বাচনে অংশগ্রহনের জন্য আওয়ামী লীগ থেকে প্রায় পোনে এক ডজন প্রাথী থাকলেও সবার নজর নৌকার দিকে। আর সেজন্য নৌকার মনোনয়ন বাগিয়ে আনতে বর্তমানে প্রার্থীরা ঢাকায় তদবিরে ব্যস্থ আছেন। তবে নির্বাচনী প্রচরানা ও আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নের জন্য যারা ব্যস্ত সময় পার করছেন তাদের মধ্যে দলীয় মনোনয়ন না পেলে অনেকেই দলের স্বার্থে নির্বাচন থেকে সরে দাড়াবেন। এই ইউনিয়নে বিএনপি সমর্থিত দুজন প্রাথী থাকলেও দলীয় সিদ্ধান্তের উপর নির্ভর করবে তারা পার্থী হবেন কি হবেন না। তা নিয়ে ভোটারদের মাঝেও রয়েছে বেশ সন্দেহ।

আগিয়া ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করতে চান বতর্মান চেয়ারম্যান মো: সিরাজুল ইসলাম রুবেল। তিনি গত নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বিপুলভোটে নির্বাচিত হয়েছিলেন। নির্বাচিত হওয়ার পর এলাকার সার্বিক উন্নয়ন করার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করেছেন বলে তিনি জানিয়েছেন। আর সেই পুঁজিকে কাজে লাগিয়ে তিনি নৌকার প্রাথী হিসেবে দলীয় মনোনয়নের জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা সাবেক চেয়ারম্যান মৌলভী আব্দুল ওয়াহেদ তালুকদার নৌকার প্রার্থী হিসেবে নিজেকে জানান দিচ্ছেন। প্রবীণ এই আওয়ামী লীগ নেতা এর আগে বেশ ক'বার নির্বাচন করে ১বার জয় লাভ করেছেন। তবে তিনি জানান আর এক নির্বাচনে তিনি জয় লাভ করলেও তাকে জয়ী ঘোষনা করা হয়নি। এ নিয়ে মামলা করলে মামলার রায় তারে পক্ষে আসলেও ততদিনে মেয়াদ শেষ হয়ে যায়। বিগত নির্বাচনে নিজেকে সরিয়ে রাখলেও এই নির্বাচনে অংশগ্রহনের জন্য দলীয় টিকেট পেতে লবিং করে যাচ্ছেন।

অপরপ্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান সানোয়ার হোসেন চৌধুরীও নৌকার টিকিট পেতে প্রাণপণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এর আগেও দুইবার নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে একবার জয়ী হয়েছিলেন। বিগত নির্বাচনে নৌকার টিকেট পেয়ে জয়ী হতে না পারলেও তিনি এই পুরো সময়ে সুখে দু:খে মানুষের পাশে থেকেছেন। অপর সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল আজিজ তালুকদার নির্বাচনে অংশগ্রহনের জন্য পুরোদমে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি ভোটারদোর দারে দারে গিয়ে ভোটারদের সমর্থন আদায়ের চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

নতুন প্রার্থী হিসেবে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মির্জা আব্দুল আজিজ রুবেন বেশ আলোচিত। তিনি নিজের প্রার্থীতার সপক্ষে এলাকায় জনসংযোগ করে যাচ্ছেন। তরুণ যুবলীগ নেতা মো: লিটন মিয়া নির্বাচনের অংশগ্রহনের জন্য অনেক আগে থেকেই মাঠে ময়দানে কাজ করে চলছেন। সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল আজিজের পুত্র মোখলেছুর রহমান খান মুছা মিয়া মনোনয়নের প্রত্যাশায় দৌঁড়ঝাপ করছেন। এছাড়া বিএনপি থেকে দলীয়ভাবে কোন প্রার্থী ঘোষনা না করায় দলের সমর্থনে উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক শাকিল হায়াত খান বাদশা ও উপজেলা মৎস্যজীবি দলের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন এই দুই প্রার্থী নির্বাচনে অংশগ্রহনের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন।

যাযাদি/এসআই

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে