শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

রামগড়ে অশ্রুশিক্ত নয়নে দেবী দুর্গাকে বিসর্জন

রামগড় (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি
  ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১১:৪৯

খাগড়াছড়ির রামগড়ে সনাতনী ধর্মের অনুসারীরা অশ্রুশিক্ত নয়নে দেবী দুর্গাকে বিদায় জানালেন।পূজার আচার আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে বুধবার (৫ অক্টোবর) দুপুরের পর রামগড় শ্রী শ্রী দক্ষিণেশ্বর কালি বাড়ি থেকে বিজয়া দশমীর শোভাযাত্রা বের করা হয়।কয়েক হাজার নারী পুরুষ, যুবক যুবতী,শিশু বৃদ্ধ ভক্তের সম্মিলিত অংশগ্রহনে শোভাযাত্রাটি পৌর শহরের মাষ্টার পাড়া,গর্জনতলি,জগন্নাথ পাড়া ঘুরে আনন্দপাড়ার ফেনী নদীর ঘাটে এসে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের লোকজনের মিলনমেলায় রূপ নেয়।

 

ঢাক-ঢোল, কাঁসর-ঘণ্টা, ধূপ আরতি ও পূজা-অর্চনায় সেখানে একে একে ফেনী নদীতে ভাসিয়ে অশ্রুসিক্ত নয়নে দেবী দুর্গাকে বিসর্জন দেয়া হয়। বিভিন্ন সম্প্রদায়ের কয়েক হাজার ভক্ত বৃন্দ এসময় বাংলাদেশ-ভরত সীমান্ত ফেনী নদীর দু'পাড়ে দেবী দুর্গার বিসর্জনের এ দৃশ্য উপভোগ করেন।

 

আয়োজকরা জানান, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে সুশৃঙ্খলভাবে শান্তি ও সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে সম্প্রীতির এই মহামিলন মেলার আনুষ্ঠানিকতা শেষ হল।সকল অনাচার,অশুভ শক্তিকে বিনাস করে সকলে জন্য শান্তির বার্তা দিয়ে যাবেন মা দুর্গা এমন প্রত্যাশা ভক্তদের।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক দর্শনার্থী জানান ,দু্র্গাউৎসব হিন্দু ধর্মের হলেও এ অঞ্চলে বসবারত মুসলিম, বৌদ্ধ, খ্রীষ্টান, মারমাসহ সকল সম্প্রদায়ের মিল-বন্ধনের উৎসব।এটি সম্প্রীতির উৎকৃষ্ট নিদর্শন।

 

রামগড় কালীবাড়ি মন্দির পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শুভাশিস দাস উপজেলা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সদস্যদের কে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, সকলের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ ও সহযোগিতায় শান্তি ও সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে সুশৃংখলভাবে অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই এই দুর্গোৎসব প্রতিমা বিসর্জনের মাধ্যমে শেষ হয়েছে।

 

যাযাদি/ সাইফুল

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে