মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০
walton

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পূর্বধলা আসনে ৬ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল

পূর্বধলা (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি
  ০১ ডিসেম্বর ২০২৩, ১২:১৬

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ গ্রহনের জন্য ১৬১, নেত্রকোণা-৫ (পূর্বধলা উপজেলা) আসনে বিভিন্ন দলের ৬জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন।

তাদের মধ্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ১জন, জাতীয় পার্টি থেকে ১জন, স্বতন্ত্র ৩জন ও তৃণমুল বিএনপি থেকে ১জন প্রার্থী রয়েছেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিনে ৬ প্রার্থীর মাঝে ৫জনই উপজেলার সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ের মনোনয়ন পত্র জমা দেন। তৃণমুল বিএনপি নেতা জমাদেন নেত্রকোণায় রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে।

যারা মনোনয়ন পত্র জমা দেন তারা হলেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আহমদ হোসেন। জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী, উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ওয়াহিদুজ্জামান তালুকদার আজাদ। স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মাঝে রয়েছেন জাহাঙ্গীর নগর ইউনিভার্সিটির সাবেক উপাচার্য ড. আনোয়ার হোসেন। ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ কৃষি প্রকৌশল বিভাগের নির্বাচিত চেয়ারম্যান মিছবাহুজ্জামান চন্দন। ঢাকা মহানগর উত্তর কৃষক লীগের সাবেক সহ সভাপতি মাজহারুল ইসলাম সোহেল ফকির। তৃণমুল বিএনপি থেকে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন দলটিতে সদ্য যোগদানকারী নেতা আব্দুল ওয়াহাব হামিদী।

স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মাঝে ড. আনোয়ার হোসেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের নির্বাহী কমিটির সদস্য হলেও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নৌকার প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন সংগ্রহ করেছিলেন। পরবর্তীতে মনোনয়ন বঞ্চিত হলে তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহনের জন্য তিনি মনোনয়ন পত্র জমা দেন। তিনি বর্তমান সংসদ সদস্য ওয়ারেসাত হোসেন বেলাল বীরপ্রতীকের বড় ভাই। ওয়ারেসাত হোসেন বেলাল তিনি বর্তমানে অসুস্থ থাকায় নির্বাচন থেকে দুরে রয়েছেন। ইঞ্জিনিয়ার মিছবাহুজ্জামান চন্দন রাজনৈতিক জীবনে তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শাখার দুই বারের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদকসহ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের তথ্য ও গবেষণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনিও দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ গ্রহনের জন্য মনোনয়ন দাখিল করেছেন। উল্লেখ্য তিনি উপজেলা জাতীয় পার্টির প্রার্থী ওয়াহিদুজ্জামান তালুকদারের আপন বড় ভাই। অপর স্বতন্ত্র প্রার্থী মাজহারুল ইসলাম সোহেল ফকির আওয়ামী লীগের মনোনয়নের আশায় দীর্ঘদিন যাবত মাঠে প্রচারনা চালিয়ে আসছিলেন। তিনিও দলীয় টিকিটের আশায় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। তৃণমূল বিএনপি থেকে মনোনয়ন জমা দেওয়া প্রার্থী আব্দুল ওয়াহাব হামিদী এর আগে জমিয়তের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন। একাধিক সুত্র জানিয়েছে দলীয় শৃংখলা ভঙ্গের দায়ে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এছাড়া তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা বিতর্কিত পোস্ট দেওয়ার কারনে তিনি অনেকটাই আলোচিত সমালোচিত।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে