রোববার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১

বেদে শিশুদের ছয়মাসের পাঠদান কর্মসূচি, তাতেই খুশি বাবা-মা

মাসুম পারভেজ, কেরানীগঞ্জ (ঢাকা)
  ২৪ মে ২০২৪, ১৯:৩৮
ছবি-যায়যায়দিন

ঢাকার কেরানীগঞ্জে বেদে জনগোষ্ঠীর শিশুদের অক্ষরজ্ঞান প্রদান ও মহিলাদের বিনামূল্যে সেলাই প্রশিক্ষণ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৪ মে) বিকালে উপজেলার তেঘরিয়া উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে চিরন্তন সমাজকল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে অর্ধশতাধিক বেদে জনগোষ্ঠীর মহিলা ও শিশুদের নিয়ে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, কেরানীগঞ্জের তেঘরিয়া, বাস্তা ও রোহিতপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় ৬০টি বেদে পরিবার বাস করে। তাদের মধ্যে অনেকে এক বছর থেকে দশ বছর পর্যন্ত বসবাস করছে এখানে। বংশ পরম্পরায় বেদে পেশা যারা টিকিয়ে রেখেছেন তাদের অনেকেরই নেই শিক্ষাজ্ঞান। তাই এখানকার বেদে সন্তানদের শিক্ষার জ্ঞান দিতে চিরন্তন সমাজকল্যাণ সংস্থার নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ৬ মাস ব্যাপী এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

বেদে জনগোষ্ঠীর পাখি আক্তার (৩০) জানান, আমাদের মধ্যে যাদের একটু টাকা-পয়সা আছে তারা ছেলেমেয়েদের পড়ায়। কিন্তু যারা আর্থিক অনটনে থাকে তাদের সন্তানদের কাজে নামিয়ে দেওয়া হয়। এ সংগঠনটি আমাদের সন্তানদের ছয়মাস বিনামূল্যে পড়াবে। এতে কিছুটা হলেও শিশুরা শিখতে পারবে।

বেদে জনগোষ্ঠীতে থাকা কিশোরী সুরাইয়া বলেন, কোনোদিন স্কুলে যাইনি, গ্রামের ছেলে মেয়েদের স্কুলে যেতে দেখে আমারও স্কুলে যেতে মন চায়। আমাদের বেদে পল্লীর ছেলেমেয়েদের কেউ স্কুলে যেতে বলে না। ভোর হলেই আমরা বাবা-মায়ের সঙ্গে গ্রামের পাড়া-মহল্লায় ঘুরে বেড়াই। গ্রামের শিশুদের খেলা দেখাই। লেখাপড়া করে আমরা অন্য পেশায় কাজ করতে চাই।

বেদিনী মনিজা খাতুন বলেন, বেদে শিশুদের পড়াশোনার আগ্রহ থাকলেও এদের শিক্ষার ক্ষেত্রে কেউ এগিয়ে আসে না। কিন্তু সামাজিক সংগঠন চিরন্তন সমাজকল্যাণ সংস্থার আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছে। তাদের জন্য আমাদের সন্তানরা পড়াশোনা করতে পারবে, আমরা অনেক খুশি।

চিরন্তন সমাজকল্যাণ সংস্থার সভাপতি পীযূষ ক্রান্তি সরকারের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনটির সহসভাপতি মো. শাহজাহান, সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল, সাংগঠনিক সম্পাদক রাজ কুমার বাড়ৌ ও কোষাধ্যক্ষ আবুল কাশেম প্রমুখ।

সংস্থার সভাপতি পীযূষ ক্রান্তি সরকার বলেন, একজন কোমলমতি শিশুর হাতে যখন বই-খাতা থাকার কথা, সেখানে শিশুরা হাতে তুলে দেওয়া হয় সাপের বাক্স। এবং কেরানীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় বেদে শিশুদের হাত পেতে ভিক্ষা করতে দেখি। আমাদের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের উদ্যোগ বেদে জনগোষ্ঠীর শিশুদের অক্ষরজ্ঞান ও মহিলাদের সেলাই প্রশিক্ষণের ছয়মাসে কার্যক্রম শুরু করছি। এ কার্যক্রম মাধ্যমে বেদে জনগোষ্ঠীর শিশু ও মহিলা সামান্য কিছু হলে উপকৃত হবেন বলে আশা করি।

যাযাদি/ এসএম

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে