শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১

শিকলবন্দী সেই সাগর মারা গেছে, দাদার সাথে আর দেখা যাবেনা তাকে  

ফেনী প্রতিনিধি
  ১৮ জুন ২০২৪, ১৮:৫৪
ফাইল ছবি

ফেনী শহরের পরিচিত প্রতিবন্ধী ভিক্ষুক সিরাজুল হক। প্রায় সময় তাকে দেখা যেতো দাদার সাথে। তিনি তার প্রতিবন্ধী নাতি সাগরকে তার হুইল চেয়ারের সাথে শিকল দিয়ে বেঁধে রেখে ভিক্ষা করতো।

শহরে প্রায় দেখা যেতো এই বৃদ্ধ শিশুটিকে দিয়ে ফেনী শহরের অলিতে-গলিতে ভিক্ষা করাচ্ছেন। সাগর যেন পালাতে না পারে, সে জন্য শেকল দিয়ে বেঁধে রাখতেন দাদা।

ঈদের দিন বিকেলে ফেনী পৌরসভার মাষ্টারপাড়া এলাকায় ডোবা থেকে এক অজ্ঞাত শিশুর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে জানা যায় উদ্ধার করা লাশটি সাগরের।

দাদার সাথে ভিক্ষার সময় শিশুটির গলায় ঝোলানো থাকতো একটি কার্ড। সেখানে লেখা ছিলো নাম : সাগর চৌধুরী, মাতা : আমেনা বিবি, পিতা : গোলাপ চৌধুরী, বহুমাত্রিক প্রতিবন্ধিতা, জন্মতারিখ: ২ জানুয়ারি ২০১৭, পশ্চিম উকিলপাড়া, ফেনী। আর পালক দাদার নাম ছেরাজুল হক। এবিষয়ে বিস্তারিত জানান, একজন ফটো জার্নালিস্ট দুলাল তালুকদার।

সত্তর বছর বয়সী বৃদ্ধ ছেরাজুল হক তখন জানিয়েছিলেন, সাগর এতিম। মা-বাবা কেউ নেই। আমি তাকে লালন-পালন করে বড় করেছি। সে কথা বলতে পারে না। সে যদি হারিয়ে যায় আমি তাকে কোথায় খুঁজব? সে জন্য শিকল দিয়ে আটকে রাখি। সাগরকে নিয়ে তিনি ফেনী শহরের দাউদপুর ব্রিজ এলাকায় বসবাস করতেন।

নাতিকে হারিয়ে বৃদ্ধ ছেরাজুল হক বাকরুদ্ধ ও অসহায় অবস্থায় আছেন। সমবেদনা জানানোর ভাষা যেন আশপাশের লোকজন হারিয়ে পেলেছে।

যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে