মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১

কোমরের লুঙ্গিতে মোড়ানো আড়াই কেজি সোনা

স্টাফ রিপোর্টার, চুয়াডাঙ্গা
  ১০ জুলাই ২০২৪, ২২:৪১
ছবি : যায়যায়দিন

কোমরের লুঙ্গির ভেতর স্কচটেপ দিয়ে মোড়ানো ৪টি প্যাকেট। তার মধ্যে ৮টি স্বর্ণের বার। যার ওজন ২ কেজি ৩৩৫ গ্রাম। এই স্বর্ন ভারতে পাচারের জন্য মোটরসাইকেলযোগে সীমান্তে নিচ্ছিল পাচারকারী আকরাম হোসেন। কিন্তু বিধিবাম, ধরা পড়ে গেছে আকরাম।

চুয়াডাঙ্গার ভারত সীমান্তবর্তী ঠাকুরপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে ২ কেজি ৩৩৫ গ্রাম ওজনের ৮টি অবৈধ স্বর্ণের বারসহ এক স্বর্ন পাচারকারী আকরামকে আটক করেছে বিজিবি।

বুধবার (১০জুলাই) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে এক অভিযানে স্বর্ণের বার ও মোটরসাইকেলসহ একজনকে আটকের ঘটনাটি ঘটে। আটক আকরাম হোসেন (৩০) চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার ঠাকুরপুর গ্রামের মৃত আব্দুস সাত্তারের ছেলে।

চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফট্যান্যান্ট কর্ণেল সাঈদ মোহাম্মদ জাহিদুর রহমান জানান, ঠাকুরপুর সীমান্ত ব্যবহার করে এখান থেকে ভারতে অবৈধ স্বর্ণ পাচার হবে এমন খবর পায় বিজিবি। এরপর তার নির্দেশনায় ঠাকুরপুর বিওপি কমান্ডার সুবেদার মোঃ সাইফুল ইসলামের নের্তৃত্বে একদল বিজিবি সদস্য সীমান্তের মেইন পিলার ৯০ হতে দেড় কিলোমিটার বাংলাদেশের অভ্যন্তরে একটি বাগানের পাশে বটতলায় অবস্থান নেয়। এ সময় সন্দেহভাজন এক ব্যক্তিকে মোটরসাইকেলযোগে ওই এলাকা দিয়ে সীমান্তের দিকে যেতে দেখে বিজিবি সদস্যরা তাকে থামতে বলে।

এরপর সে মোটরসাইকেল চালিয়ে পালানোর চেষ্টা করলে তাকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে তার কোমরের লুঙ্গির ভেতর স্কচটেপ দিয়ে মোড়ানো ৪টি প্যাকেট আছে বলে সে স্বীকার করে। ওই প্যাকেটির ভেতর থেকে ২ কেজি ৩৩৫ গ্রাম ওজনের ৮টি অবৈধ স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়।

এ ব্যাপারে সুবেদার মোঃ সাইফুল ইসলাম বাদী হয়ে দর্শনা থানায় মামলা করে আটক চোরাকারবারীকে থানায় সোপর্দ করেছে। জব্দ করা স্বর্ণের বারগুলো পরীক্ষার পর চুয়াডাঙ্গা ট্রেজারী অফিসে জমা করা হবে বলে তিনি জানান।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে