logo
রবিবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২০, ১২ মাঘ ১৪২৬

  ক্রীড়া প্রতিবেদক   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধন আজ

ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের বর্ণাঢ্য উদ্বোধন আজ। বিপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে জমকালো উদ্বোধনী হতে যাচ্ছে এবার। রোববার বিকেল সাড়ে চারটায় মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে বিশেষ আসরের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের ব্যাপ্তিকাল হবে সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা। আজ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হলেও এই আসরের খেলা মাঠে গড়াবে ১১ ডিসেম্বর থেকে।

ঢাকা, সিলেট ও চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত হবে এবারের বিপিএলের ম্যাচগুলো। সাতটি ফ্র্যাঞ্চাইজির লড়াই শেষে ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে ২০২০ সালের ১৭ জানুয়ারি। সব মিলিয়ে ৪৬টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে বঙ্গবন্ধু বিপিএলে।

জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কারণে বিপিএলের গত আসর ছিল অনাড়ম্বর। ছিল না কোনো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। তবে এবার জমকালো ও ব্যয়বহুল আয়োজন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। উদ্বোধনী কনসার্টের পৃষ্ঠপোষকতা করবে বসুন্ধরা গ্রম্নপ। আর বিপিএলের টাইটেল স্পন্সর হিসেবে থাকছে আকাশ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে। অনুষ্ঠানের মাঝে এক পর্যায়ে প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন ঘোষণা করবেন। এরপরই জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মঞ্চ মাতাবেন বলিউড তারকা সালমান খান ও ক্যাটরিনা কাইফ। বাংলাদেশের জেমস ও মমতাজের পাশাপাশি সংগীত পরিবেশন করবেন বলিউডের সনু নিগম ও কৈলাশ খের।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের জন্য মাঠের পূর্ব গ্যালারির সামনে তৈরি করা হয়েছে মঞ্চ। উল্টো দিকের প্রেসিডেন্ট বক্সের সামনে বানানো হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য আলাদা মঞ্চ। গ্যালারির ভাঙা চেয়ার সরিয়ে বসানো হচ্ছে নতুন চেয়ার। বিসিবির এই আনন্দ আয়োজন যদিও খুব কম দর্শকই মাঠে বসে উপভোগ করতে পারবেন।

কারণ মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের দর্শক ধারণক্ষমতা ২৬ হাজার হলেও মঞ্চের পেছনে, ডান ও বাঁদিকের গ্যালারি কনসার্টের জন্য বরাদ্দ রাখছে না বিসিবি। সম্মুখের গ্র্যান্ড স্ট্যান্ড, ভিআইপি গ্যালারি, শহীদ জুয়েল স্ট্যান্ড ও শহীদ মুস্তাক স্ট্যান্ডে বসতে পারবেন দর্শকরা। মঞ্চের সামনে বসানো হবে হাজারখানেক চেয়ার। সবমিলিয়ে ৮ হাজার দর্শকের জন্য করা হচ্ছে আয়োজন। যার মধ্যে অন্তত ৩ হাজার সৌজন্য টিকিট চলে যাবে বিসিবি কাউন্সিলর, ক্লাব অফিসিয়াল ও সরকারি কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের ব্যক্তিবর্গের কাছে। সাধারণ দর্শকদের জন্য তাতে বরাদ্দ থাকছে মাত্র ৫ হাজার টিকিট।

টিকিটের সর্বনিম্ন মূল্য ধরা হয়েছে ১ হাজার টাকা, সর্বোচ্চ দশ হাজার টাকা। টিকিট পাওয়া যাবে মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম, শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়াম, ওয়েস্টিন হোটেল, বনানীর ফাহিম মিউজিক ও গুলশানের ক্যাফে ইডেনে। এছাড়া সহজ ডটকম-এ পাওয়া যাবে টিকিট।

চাহিদার তুলনায় জোগান অপ্রতুল হওয়ায় বড় অংশই তাকিয়ে থাকবেন টিভি পর্দার দিকে। দর্শকদের জন্য সুখবর, এবার একযোগে তিনটি চ্যানেলে উপভোগ করা যাবে বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। এটি সরাসরি সম্প্রচার করবে যথাক্রমে গাজী টিভি, মাছরাঙা টিভি ও নিউজ২৪। অবশ্য গাজী টিভি ও মাছরাঙা টিভি বিপিএলের সব ম্যাচ সম্প্রচার করবে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে