logo
বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ১০ জুলাই ২০২০, ০০:০০  

করোনা উপসর্গ নিয়ে আরও ১০ জনের মৃত্যু

করোনা উপসর্গ নিয়ে দেশের চার জেলায় ১১ জনের মৃতু্য হয়েছে। বুধ ও বৃহস্পতিবার কুমিলস্নায় ৭ জন, দিনাজপুরে ১ জন, চুয়াডাঙ্গায় ১ জন এবং ফেনীতে ২ জন মারা যান।

আমাদের আঞ্চলিক অফিস ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

কুমিলস্না : কুমিলস্নায় অস্থায়ীভাবে নির্মিত কোভিড-১৯ হাসপাতালে উপসর্গে গত ২৪ ঘণ্টায় ৭ জনের মৃতু্য হয়েছে। তারা প্রত্যেকেই আইসোলেশন ও করোনাভাইরাস ওয়ার্ডে মারা গেছেন।

হাসপাতালের পরিচালক মো. মুজিবুর রহমান বৃহস্পতিবার সকালে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, করোনাভাইরাসের উপসর্গ জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে বৃহস্পতিবার সকাল ছয়টায় চাঁদপুরের মতলব উপজেলার ৪০ বছরের এক পুরুষ, বুধবার রাতে কুমিলস্নার মনোহরগঞ্জ উপজেলার ৩৮ বছরের এক পুরুষ, কুমিলস্না নগরের কান্দিরপাড় এলাকার ৩৮ বছরের এক পুরুষ, কুমিলস্না শহরের ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধ ও ৬০ বছর বয়সি দুই নারী মারা গেছেন।

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) : দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে আব্দুল হাকিম (৫৬) নামে এক ব্যবসায়ীর মৃতু্য হয়েছে।

গত বুধবার বিকাল সাড়ে ৫টায় দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃতু্য হয়। ওই দিন সন্ধ্যায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফুলবাড়ী কানাহার সরকারি কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

করোনা উপসর্গে মৃতু্যবরণকারী আব্দুল হাকিম পৌর শহরের পশ্চিম গৌরীপাড়া গ্রামের বাসিন্দা, ফুলবাড়ী হেরা ট্রেডার্সের মালিক এবং ফুলবাড়ী ব্যবসায়ী সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক।

ফুলবাড়ী উপজেলা ভারপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রেজাউল করিম বলেন, আব্দুল হাকিমকে তার পরিবারের সদস্যরা বুধবার সকাল ৭টায় ফুলবাড়ী, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেস্নক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসে। কিন্তু আব্দুল হাকিমের করোনা উপসর্গ থাকায় তাকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা বিভাগে প্রেরণ করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই দিন বিকালে তার মৃতু্য হয়।

ফেনী :করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে ফেনী সদর হাসপাতালে দুইজন মারা গেছেন। ফেনী সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ইকবাল হোসেন ভূঁইয়া জানান, করোনাভাইরাসের উপসর্গ জর, শ্বাসকষ্ট ও ডায়াবেটিসসহ নানা রোগে ভুগে এক নারীসহ দুইজন বুধবার তাদের হাসপাতালে মারা যান।

তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী আবদুল মালেক মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ল্যাবে পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানান।

চুয়াডাঙ্গা : চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলায় করোনাভাইরাসের উপসর্গ জ্বর-শ্বাসকষ্ট নিয়ে এক বৃদ্ধ (৬৭) মারা গেছেন। সদর হাসপাতালের করোনাভাইরাস ইউনিটের ইয়েলো জোনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার রাতে তিনি মারা যান। সিভিল সার্জন কার্যালয় ও সদর হাসপাতাল সূত্রে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করা হয়েছে। মারা যাওয়া বৃদ্ধের বাড়ি দামুড়হুদা উপজেলার কাদিপুর গ্রামে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে বুধবার রাতেই তাকে নিজ গ্রামে দাফন করা হয়েছে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে