logo
মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০, ৩০ আষাঢ় ১৪২৬

  ফয়সাল খান   ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

বিদেশি লেখকের বই প্রকাশ ২৩ প্রতিষ্ঠানকে শোকজ

বিদেশি লেখকের বই প্রকাশ ২৩ প্রতিষ্ঠানকে শোকজ
অমর একুশে গ্রন্থমেলার নীতিমালা লঙ্ঘন করে বিদেশি লেখকের বই প্রকাশ করায় ২৩ প্রতিষ্ঠানকে শোকজ করেছে বাংলা একাডেমি। এসব প্রতিষ্ঠানের বেশিরভাগই বিদেশি লেখকের বই প্রকাশ করেছে বলে জানা গেছে।

মেলা পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব জালাল আহমদ স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বলা হয়, সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলো নীতিমালা ও নিয়মাবলি ৭.১ ধারা লঙ্ঘন করেছে। গ্রন্থমেলার টাস্কফোর্স উপ-কমিটি একাধিক দিন পরিদর্শন ও পর্যবেক্ষণ করে এসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ধারা লঙ্ঘনের অভিযোগ এনেছে।

অমর একুশে গ্রন্থমেলার নীতিমালা ও নিয়মাবলির ৭.১ ধারায় বলা হয়েছে, মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রকাশকগণ কেবল বাংলাদেশে মুদ্রিত ও প্রকাশিত বাংলাদেশের লেখকদের মৌলিক/অনূদিত/সম্পাদিত/সংকলিত বই বিক্রি করতে পারবেন। অথচ এ ধারা লঙ্ঘন করে মেলায় বিদেশি লেখকদের শত শত বই প্রকাশ ও বিক্রি করছেন প্রকাশকরা। তাই গ্রন্থমেলার নীতিমালা লঙ্ঘন করায় ২৩ প্রতিষ্ঠানকে শোকজ করেছে গ্রন্থমেলার টাস্কফোর্স উপকমিটি।

নীতিমাল লঙ্ঘনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- জয়বাংলা, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন, জয় বাংলা আর্ট গ্যালারি অ্যান্ড স্টুডিও, মাইক্রোস ডিজিটাল, শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর সংগঠন, শিশু সাহিত্য বইঘর, ছোটদের জ্ঞান-বিজ্ঞান একাডেমি, ছোটদের মেলা, জনতা প্রকাশ, বাঁধ পাবলিকেশন্স, কালিকলম প্রকাশনা, নবরাগ প্রকাশনী, মেয়র মোহাম্মদ হানিফ স্মৃতি সংসদ, আলগাজী পাবলিকেশন্স, আবিষ্কার, শিশু-কিশোর প্রকাশন, মুক্ত প্রকাশ, শিশু প্রকাশ, কালধারা, মৌ প্রকাশনী, মেধা পাবলিকেশন্স, নিহাল পাবলিকেশন ও অভ্র প্রকাশ।

এ প্রসঙ্গে আবিষ্কার কোয়ালিটি প্রকাশনের প্রকাশক দোলোয়ার হাসান বলেন, 'যে ধারার কথা উলেস্নখ করে আমাকে চিঠি দেয়া হয়েছে সেই ধারা আমি লঙ্ঘন করিনি। অথচ নবযুগ, ইউপিএলসহ অর্ধশত প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান লঙ্ঘন করেছে কিন্তু তাদের চিঠি দেয়া হয়নি। কারণ তারা ক্ষমতাসীন দলের ছত্রছায়ায় বই প্রকাশ করেন।'

বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুলস্নাহ সিরাজী বলেন, 'আমরা ২৩টি প্রকাশনাকে প্রাথমিকভাবে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছি। তারা নীতিমালা লঙ্ঘন করেছেন। এই বিষয়ে আমরা পাঠক, লেখক, প্রকাশক, সাংবাদিকসহ সংশ্লিষ্ট সবার আরও সহযোগিতা কামনা করছি। তাদের কাছ থেকে জবাব পাওয়ার পর আগামী মেলায় আমরা তাদের বিষয়ে ভেবে দেখব।'

'নানীর বাণী ও দ্য আরেফিন' বই দুটি বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা  'নানীর বাণী ও দ্য আরেফিন' বই দুইটির প্রকাশনা ও বিক্রি নিষিদ্ধ করে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সঙ্গে সঙ্গে, একুশে বইমেলা থেকে বই দুইটি সরিয়ে নিতে বাংলা একাডেমির ডিজিকে নির্দেশ দিয়েছেন। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে স্বরাষ্ট্র সচিব, ডিসি-এসপি ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। বই দুটির লেখক দিয়ার্ষি আরাগ।

এ সংক্রান্ত বিষয়টি আমলে নিয়ে বুধবার হাইকোর্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ স্বপ্রণোদিত হয়ে বই দুটির প্রকাশনা ও বিক্রি নিষিদ্ধ করে আদেশ দেন। এ দুটি বই মানুষের ধর্মীয় ও ব্যক্তি স্বাধীনতায় আঘাত করেছে উলেস্নখ করে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী আজহার উলস্নাহ ভূঁইয়া আদালতের নজরে আনেন।

তিনি জানান, বই দুটি মানুষের ধর্মীয় বিশ্বাস, ব্যক্তি স্বাধীনতায় আঘাত করেছে। আইনজীবীদের পক্ষে বিষয়টি আদালতের নজরে এনেছি। আদালত বিষয়টি আমলে নিয়ে আদেশ দেন। আদেশে বই দুটির প্রকাশনা ও বিক্রি নিষিদ্ধ করেন। একুশে বইমেলা থেকে বই দুটি সরিয়ে নিতে বাংলা একাডেমির ডিজিকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

নতুন বই

বাংলা একাডেমির দেওয়া তথ্যমতে, গতকাল মেলায় নতুন বই এসেছে ১৫৬টি। এর মধ্যে কামরুল হকের 'বঙ্গবন্ধু ও সংবাদপত্রে ছয়দফা থেকে গণঅভু্যত্থান' প্রকাশ করেছে বাংলা একাডেমি। ঐতিহ্য এনেছে মনি হায়দারের 'এক টুকরা কাগজ', পাঠক সমাবেশ এনেছে আনোয়ারা সৈয়দ হকের 'বৃষ্টির ভেতরে রবীন্দ্রনাথ, শোভা প্রকাশনী এনেছে সেলিনা হোসেনের 'কথাশিল্পী লায়লা হাসান', আব্দুল মান্নানের 'নির্বাচিত প্রবন্ধ', ইত্যাদি এনেছে বিকুল চক্রবর্তীর 'কর্মে আলোকিত মানুষেরা', অনিন্দ্য প্রকাশ এনেছে আহমেদ রফিকের 'চিত্রে ভাস্কর্যে রূপসী মানবী', সময় প্রকাশন এনেছে 'শেখ মুজিব কিশোর জীবনী' এবং চয়ন প্রকাশনের 'নানা দেশের রংবেরঙের গল্প' উলেস্নখযোগ্য।

গুণীজন স্মৃতি পুরস্কার ঘোষণা

বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুলস্নাহ সিরাজী বুধবার অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২০ উপলক্ষে বাংলা একাডেমি পরিচালিত চারটি গুণীজন স্মৃতি পুরস্কার ঘোষণা করেন। ২০১৯ সালে প্রকাশিত বিষয় ও গুণমানসম্মত সর্বাধিকসংখ্যক গ্রন্থ প্রকাশের জন্য কথাপ্রকাশকে চিত্তরঞ্জন সাহা স্মৃতি পুরস্কার-২০২০, ২০১৯ সালে প্রকাশিত গ্রন্থের মধ্যে শৈল্পিক ও গুণমান বিচারে সেরা গ্রন্থ বিভাগে আবুল হাসনাত রচিত প্রত্যয়ী স্মৃতি ও অন্যান্য  গ্রন্থের জন্য জার্নিম্যান বুক্‌সকে, মঈনুস সুলতান রচিত  জোহানেসবার্গের জার্নাল গ্রন্থের জন্য প্রথমা প্রকাশনকে এবং রফিকুন নবী রচিত স্মৃতির পথরেখা  গ্রন্থের জন্য বেঙ্গল পাবলিকেশন্‌সকে মুনীর চৌধুরী স্মৃতি পুরস্কার ২০২০ প্রদান করা হয়। ২০১৯ সালে প্রকাশিত শিশুতোষ গ্রন্থের মধ্য থেকে গুণমান বিচারে সর্বাধিক গ্রন্থ প্রকাশের জন্য পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স লিমিটেডকে রোকনুজ্জামান খান দাদাভাই স্মৃতি পুরস্কার-২০২০ এবং ২০২০ সালের অমর একুশে গ্রন্থমেলায় অংশগ্রহণকারী প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানসমূহের মধ্য থেকে নান্দনিক অঙ্গসজ্জায় সেরা প্রতিষ্ঠান হিসেবে অভিযান (এক ইউনিট), কুঁড়েঘর প্রকাশনী লিমিটেড (২-৪ ইউনিট), বাংলা প্রকাশ (প্যাভেলিয়ন)-কে শিল্পী কাইয়ুম চৌধুরী স্মৃতি পুরস্কার ২০২০ প্রদান করা হয়। আগামী ২৯ ফেব্রম্নয়ারি অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২০-র সমাপনী অনুষ্ঠানে আনুষ্ঠানিকভাবে এসব পুরস্কার পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে তুলে দেয়া হবে।

মূলমঞ্চের আয়োজন

গতকাল বিকালে গ্রন্থমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় কামরুল হক রচিত বঙ্গবন্ধু ও সংবাদপত্র : ছয় দফা থেকে গণঅভু্যত্থান শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ পাঠ করেন সোহরাব হাসান। আলোচনায় অংশ নেন মোরশেদ শফিউল হাসান এবং হারুন হাবীব। লেখকের বক্তব্য প্রদান করেন কামরুল হক। সভাপতিত্ব করেন কামাল লোহানী।

কবিকণ্ঠে কবিতা পাঠ করেন কবি আবিদ আনোয়ার, জুয়েল মাজহার, নাসরীন নঈম, ফরিদ আহমেদ দুলাল, সোহেল হাসান গালিব। আবৃত্তি পরিবেশন করেন আবৃত্তিশিল্পী শাকিলা মতিন মৃদুলা ও আবু নাসের মানিক। সন্ধ্যায় ছিল মো. মাসুম হুসাইনের পরিচালনায় নৃত্য সংগঠন 'পরম্পরা নৃত্যালয়'-এর নৃত্য পরিবেশনা। সংগীত পরিবেশন করেন শিল্পী মানসী সাধু, উম্মে রুমা ট্রফি, ফারহানা ফেরদৌসী তানিয়া, কামাল আহমেদ, আজমা সুরাইয়া শিল্পী, মাহবুবা রহমান, নাসরিন জাহান, মুন্নী কাদের।

কম্বোডিয়ার প্রতিমন্ত্রীর গ্রন্থমেলা পরিদর্শন

বুধবার বিকেলে কম্বোডিয়ার পররাষ্ট্র ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতাবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ইত সোফিয়া'র নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল অমর একুশে গ্রন্থমেলা পরিদর্শন করেন। বাংলা একাডেমিতে কম্বোডিয়ান প্রতিনিধি দলকে স্বাগত জানান একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুলস্নাহ সিরাজী।

আজ যা থাকছে

আজ ২৭ ফেব্রম্নয়ারি বৃহস্পতিবার, অমর একুশে গ্রন্থমেলার ২৬তম দিন। মেলা চলবে বেলা ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত। বিকাল ৪টায় অনুষ্ঠিত হবে শামসুজ্জামান খান সম্পাদিত বঙ্গবন্ধু নানা বর্ণে নানা রেখায়  শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ পাঠ করবেন আহমাদ মাযহার। আলোচনায় অংশ নেবেন সাইফুলস্নাহ মাহমুদ দুলাল, এনামুল করিম নির্ঝর এবং আমীরুল ইসলাম। সভাপতিত্ব করবেন মাহফুজা খানম। সন্ধ্যায় রয়েছে কবিকণ্ঠে কবিতাপাঠ, আবৃত্তি এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে