বেলকুচিতে সরিষা ফলনের লক্ষ্যমাত্রা ছেড়ে যাবার সম্ভবনা

বেলকুচিতে সরিষা ফলনের লক্ষ্যমাত্রা ছেড়ে যাবার সম্ভবনা

বেলকুচি উপজেলায় ফসলের মাঠ হলুদের সমারহে ভরপুর। দিগন্ত জুড়ে যতদূর চোখ যায় হলুদ আর হলুদ রঙে সেঝেছে পুরো এলাকা। সরিষা ফুলে মৌ মৌ গন্ধ আর মৌমাছির কর্মব্যস্ততায় যেন নতুন প্রাণ পেয়েছে ফসলের মাঠ।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার কার্যালয়ের তথ্যমতে, সরিষা আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ৬ হাজার ২শত হেক্টর এবং ফলন ৬ হাজার ৯ শত ৪৪ মেঃ টন। সরিষা মূল্য বেশী থাকায় এবং আধুনিক জাতের সরিষার স¤প্রসারনের ফলে আবাদী জমির পরিমানের লক্ষ্যমাত্রা ছেড়ে সরিষার আবাদ হয়েছে ৬ হাজার ৫ শত ৫০ হেঃ এবং ফলন হবে প্রায় ৭ হাজার ৫ শত মেঃ টন।

একই সাথে সরিষা জমিতে এ বছর ৯ জন চাষীর ১ হাজার ৮ শত মৌ বক্স স্থাপন করে মৌচাষ করছেন। মধু আহরনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে প্রায় ১০ মেঃ টন।

উপজেলা কৃষি কৃষি কর্মকর্তা কল্যাণ প্রসাদ পাল প্রতিবেদককে জানান, তেলজাতীয় ফসলের উৎপাদণ বৃদ্ধি প্রকল্পের আওতায় কৃষকদের প্রশিক্ষণ প্রদান এবং সরকারের প্রণোদনা ও রাজস্ব খাতের মাধমে আধুনিক জাতের বারি সরিষা১৪, বারি সরিষা১৭, বিনা সরিষা৪ এবং বিনা সরিষা৯ জাতের বীজ সহায়তা প্রদানের জন্য সরিষার আবাদ বৃদ্ধি পেয়েছে।

মৌচাষ করার ফলে ফলন ১০ থেকে প্রায় ১৫% বৃদ্ধি পাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন। তিনি আরও জানান কৃষকের মাঠ ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য মাঠে বেলকুচি উপজেলা কৃষি স¤প্রসারণ অধিদপ্তরের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ নিয়মিত কাজ করে যাচ্ছেন।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

ক্যাম্পাস
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
হাট্টি মা টিম টিম
কৃষি ও সম্ভাবনা
রঙ বেরঙ

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে