স্বপ্নের পদ্মা সেতুতে জড়িয়ে বিশ্বখ্যাত গ্রী এসি

স্বপ্নের পদ্মা সেতুতে জড়িয়ে বিশ্বখ্যাত গ্রী এসি

যোগাযোগের ক্ষেত্রে নতুন দিগন্তের উন্মোচন করতে যাচ্ছে স্বপ্নের পদ্মা সেতু দেশের দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে ব্যাপক পরিবর্তন আনবে বহুল প্রতীক্ষিত এই সেতু যান চলাচলের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত বহুমুখী পদ্মা সেতু এখন শুধু অপেক্ষা উদ্বোধনের

স্বপ্নজয়ে সারা দেশেই যেন আলোর দ্যুতি ছড়াচ্ছে পদ্মা সেতু এই সেতু আমাদের আবেগের নাম জাতীয় অহংকার সাহসের আরেক নাম সক্ষমতার প্রতীক আর এই আবেগের সাথে, ভালোবাসার সাথে জড়িয়ে আছে আরেকটি নাম গ্রী এসি পদ্মা সেতুর সেই নির্মাণ কাজের শুরু থেকে অঙ্গাঅঙ্গিভাবে জড়িয়ে আছে বিশ্বের ১নং গ্রী এসি সেতুর সার্ভিস পয়েন্ট, মাল্টিপারপাস হল, রিসোর্ট, মোটেল ম্যাচ, সুপারভিশন অফিস, ডরমেটরিসহ সব জায়গায় ব্যবহার হচ্ছে শুধুমাত্র গ্রী এসি সকল পয়েন্টে ব্যবহার করা হয়েছে গ্রী এয়ারকন্ডিশনারের Multi VRF AC, Split Wall Mounted AC, Ceilling Type AC, Portable AC, Floor Standing AC Ges Cassette Type AC

গ্রী এসি উৎপাদন বাজারজাতের সাথে সংশ্লিষ্টরা বলেছেন, পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণ ছিল একটি বড় চ্যালেঞ্জের কাজ আর সেই চ্যালেঞ্জের সাথে আমরা যুক্ত থাকতে পেরে ভালো লাগছে আমরা এখন স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধনের অপেক্ষায় আছি

উল্লেখ্য, দেশে এসি উৎপাদন বাজারজাতের সঙ্গে যুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে অন্যতম ইলেকট্রো মার্ট তারা বাজারজাত করে গ্রী ব্যান্ডের এসি একসময় এসির ব্যবহার ছিল অনেকটা বিলাসিতার মতো কিন্তু সময়ের ব্যবধানে বিলাসিতার বদলে যাপিত জীবনের প্রয়োজনীয় অনুসঙ্গ হয়ে উঠেছে এসি এখনতো উচ্চ বিত্তের পাশাপাশি মধ্যবিত্তরাও এসি ব্যবহার করছেন আর শুধু রাজধানী ঢাকা শহরেই নয়, জেলা পর্যায়ে মধ্য, উচ্চ বিত্তরাও এখন এসি ব্যবহার করেন তাই এখন আর বিলাসিতা নয়, যাপিত জীবনের প্রয়োজনীয় অনুষঙ্গ হয়ে উঠেছে এসি কারণে এসির বাজার যেমন দ্রুত বাড়ছে, তেমনি তা ছড়িয়ে পড়ছে দেশজুড়ে জেলা শহরের পাশাপাশি এখন অনেক উপজেলাতেও এসির বিকিকিনি জমজমাট, যা যন্ত্রের বাজার বড় করতে বড় ভূমিকা রাখছে আর বাজার বাড়তে থাকায় এখন এসি দেশে উৎপাদন সংযোজন হচ্ছে

বড় হচ্ছে এসির বাজার

দেশে মধ্যম আয়ের মানুষের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ার দরুন এসির বাজার প্রতি বছর বাড়ছে নতুন নতুন বিল্ডিং, বহুতল শপিং মল, অ্যাপার্টমেন্টগুলোতে এসির ব্যবহার যেন অনেকটা সাধারণ ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ এয়ার কন্ডিশনিং ইকুইপমেন্টস ইমপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিএইআইএ) বলছে, গত পাঁচ বছরে এসির বাজার প্রায় ৩০ শতাংশ হারে বৃদ্ধি পেয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের তথ্যানুযায়ী, ২০১৯-২০ অর্থবছরে দেশের এয়ার কন্ডিশনারের বাজারের বেশ উন্নতি হয়েছিল ওই বছর ৩৬২ কোটি টাকা মূল্যের .৮৮ লাখ কম্প্রেসার ইউনিট (মূল উপাদান) আমদানি করা হয় যেখানে ২০১৮-১৯ অর্থবছরে আমদানি করা হয় ১৬৫ কোটি টাকার .৩৪ লাখ ইউনিট এরপর করোনার কারণে, কম্প্রেসার ইউনিটের আমদানি কমলেও এখন আবার দ্রুত বাড়ছে

দেশের তাপমাত্রা এবং আদ্রতা অনুযায়ী আগামী দিনে এসির বাজার আরও ব্যাপক ভাবে বেড়ে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে বিশেষত যখন আমাদের দেশে এখন প্রায় নয় মাসই গরম তাপমাত্রা বিরাজ করে

এছাড়া এসি তৈরিতে প্রযুক্তির অভাবনীয় আগমন যেমনঃ ইনভার্টার প্রযুক্তি অথবা এয়ার পিউরিফিকেশন প্রযুক্তি বাজারে আসার কারণে ভবিষ্যতে সেগুলো এই মার্কেটের ব্যাপকতায় কার্যকরী ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে

খাতের উৎপাদক পরিবেশকেরা জানিয়েছেন, দেশে এসির বাজার দ্রুত বড় হচ্ছে যেহেতু দেশে গরমের সময়কাল বাড়ছে তাই এসি বিক্রির সম্ভাবনাও সমানতালে বাড়ছে করোনার আগে ২০১৯ সালে প্রায় লাখ ৮০ হাজার এসি বিক্রি হয় ২০২০ সালে করোনার কারণে যা কমে সাড়ে তিন লাখে নেমে আসে তবে গত বছর বিক্রি বেড়ে প্রায় লাখে উঠেছে চলতি বছর লাখ ৩০ হাজার ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে

গ্রী এসির বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠান ইলেকট্রোমার্ট লিমিটেডের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ নুরুল আফসার বলেন এসি এখন অতি প্রয়োজনীয় যন্ত্র হয়ে উঠেছে এটা এখন আর বিলাসিতার জিনিস নয় আধুনিক কর্মময় জীবনে প্রতিটি কর্মক্ষেত্রে কাজের মান, স্বাচ্ছন্দ্যময় কর্মপরিবেশ শারীরিক কর্মক্ষমতা বৃদ্ধিতে এসি এখন অত্যাবশ্যকীয় উপাদান তাই অন্যান্য প্রয়োজনীয় আসবাপপত্রের মধ্যে ঘরে জায়গা করে নিচ্ছে এসি তিনি বলেন, করোনায় সময় এসির বাজারে একটা বড় ধাক্কা এসেছিল, যা মানুষের ভুল ধারণা ছিল বর্তমানে গ্রী এসিতে ব্যবহৃত প্রযুক্তি যেমন বায়োলজিক্যাল ফিল্টার, ক্যাচেইন ফিল্টার, সিলভার আয়রন ফ্লিটার এবং ক্লোজসমা এয়ার পিউরিফিকেশন টেকনোলজি থাকার কারণে ঘরের বাতাসের ভাইরাস ব্যাকটেরিয়া প্রতিরোধ করে সম্পূর্ণরূপে বিশুদ্ধ করে করোনা প্রতিরোধে সক্ষম তাতে এখন আবার দ্রুত বিক্রি বাড়ছে বর্তমানে দেশের এয়ারকন্ডিশনার চাহিদার প্রায় ৬০ শতাংশ গ্রী এসি পূরণ করে যাচ্ছে

এখন দেশেই উৎপাদন হচ্ছে গ্রী এসি

একসময় দেশের এসির বাজারের পুরোটাই ছিল আমদানির্ভর জন্য দামও ছিল বেশি দেশে চাহিদা বাড়তে থাকায় ধীরে ধীরে কারখানাগুলো বিদেশ থেকে সরঞ্জাম এনে দেশে সংযোজন শুরু করে আর এখন দেশেই তৈরি হচ্ছে গ্রী এসি প্রতিষ্ঠানটি ১৯৯৮ সাল থেকে প্রায় দুই যুগের বেশী সময় ধরে এদেশে গ্রী এসি বাজারজাতকরণ করে যাচ্ছে এবং ২০২০ সাল থেকে দেশেই এসি উৎপাদন করছে, তবে মূল কমপ্রেসরসহ কিছু যন্ত্রাংশ আসছে বিদেশ থেকে কারণে দামও কিছুটা কমেছে সাশ্রয়ী মূল্যে মধ্যবিত্তের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে দাম রেখে দেশে এসি তৈরি করছে কোম্পানিটি আধুনিক প্রযুক্তিসম্পন্ন গ্রী এসি মন কেড়েছে ক্রেতাদের দেশে গ্রী এসি বাজারজাত করছে ইলেকট্রোমার্ট লিমিটেড

নতুন নতুন প্রযুক্তি নিয়ে আসছে গ্রী

সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে পথ চলাই যেন গ্রীর সাফল্যের অন্যতম কারণ তাইতো নতুন নতুন প্রযুক্তি যুক্ত হচ্ছে গ্রী এসিতে বাজারে এখন দুই ধরনের এসি পাওয়া যায় ইনভার্টার নন-ইনভার্টার এর মধ্যে ইনভার্টারের দাম কিছুটা বেশি কারণ, ধরনের এসিতে বিদ্যুৎ খরচ কম এটি ঘরের আরামদায়ক তাপমাত্রা ঠিক রেখে এসির শক্তি খরচ কমিয়ে নিয়ে আসে

দাম কেমন

দেশে এসি বিক্রিতে শীর্ষ পর্যায়ে রয়েছে গ্রী এসি বাজারে ব্র্যান্ডভেদে এক টনের বিদেশি ইনভার্টার এসির দাম ৬০ থেকে ৬৫ হাজার টাকা আর নন-ইনভার্টারের দাম ৫০ হাজার টাকার মধ্যে দেড় টন ইনভার্টার এসির দাম ৭৫ থেকে ৮৫ হাজার টাকা

এসির বিক্রি প্রসঙ্গে রাজধানীর কাওরানবাজারের একটি ইলেকট্রনিকস্ শোরুমের বিক্রেতা বলেন, আগে এসি কিনতে আসতো চবিত্তরা বিলাসপণ্য হিসেবেও অনেকে ব্যবহার করতো কিন্তু এখন বিলাসিতা নয়, প্রয়োজনেই মানুষ এসি ব্যবহার করছে তিনি বলেন, মধ্যবিত্তরা যেমন টেলিভিশন ব্যবহার করেন এখন তাদের কাছে প্রয়োজনীয় পণ্য হিসেবে উঠে এসেছে এসি আর শুধু কি বাড়িতে, পাড়া-মহল্লার দোকান, ডিপার্টমেন্টাল স্টোর থেকে শুরু করে সেলুনেও এখন এসি ব্যবহার করা হচ্ছে দিন দিন এসির এই ব্যবহার বাড়ছে বলে জানান তিনি

এবার গরমের শুরুতেই এসি কিনেছেন একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চাকুরিজীবী এহসান দেশের একটি জেলা শহরের এই চাকরিজীবী বলেন, গরমে বাচাটা রাতে একদম ঘুমাতে পারে না এছাড়া সারাদিন অফিস করে বাড়িতে ফিরে গরমে আর ভালো লাগে না তাই প্রয়োজনের জন্যই তিনি এসি কিনেছেন বলে জানান এহসান বলেন, রাতে যদি ভালো ঘুম না হয় তাহলে পরের দিন অফিসে মনোযোগ দিয়ে কাজ করা যায় না এতে নিজের মধ্যেও এক ধরনের চাপ তৈরী হয় তাই তিনি এসি কিনেছেন এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এসি এখন আর বিলাসিতার বস্তু নয়, এটা টেলিভিশনের মতোই আমাদের মতো মধ্যবিত্তদের জন্য একটি প্রয়োজনীয় জিনিস

এসির খরচ কি অনেক বেশী

প্রায় দুই বছর ধরে এসি ব্যবহার করছেন উত্তরার বাসিন্দা আমজাদ কবির তিনি বলেন, অনেকে মনে করেন এসি কিনলে বোধহয় বিদ্যুৎ খরচ অনেক হবে তাই পোষাতে পারবেন না কিন্তু ব্যাপারটি আসলে তা নয় তিনি বলেন, দুই ধরনের এসি আছে ইনভার্টার নন-ইনভার্টার এর মধ্যে ইনভার্টারের দাম কিছুটা বেশি কারণ, ধরনের এসিতে বিদ্যুৎ খরচ কম তাই কেউ যদি কেনার সময় একটু বেশী দাম দিয়ে ইনভার্টার এসি কিনেন তাহলে তার বিদ্যুৎ খরচ তেমন বাড়বে না

কোন লোকেশনে এসি বেশি ব্যবহৃত হয়?

চাহিদানুযায়ী ঢাকা শহরে এসি বেশী ব্যবহার হয় তারপরেই রয়েছে চ্ট্টগ্রাম তবে এখন মফস্বল শহরগুলোতেও প্রচুর এসি বিক্রি হচ্ছে এসি ইন্সটল করার সময় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো রুমের আকার, জানালার সংখ্যা, সূর্য-মুখী জানালার সংখ্যা বিবেচনায় রেখে বেশিরভাগ মানুষই . টন এসি ব্যবহার করে থাকেন

এসি কেনার আগে অবশ্যই যা জানতে হবে

দিন দিন উত্তপ্ত হচ্ছে পৃথিবী আর তার সাথে বাংলাদেশে গরম যেন পাল্লা দিয়ে বাড়ছে তাই ঘরে একটি এসি না হলে আর চলছেই না তবে এসি কেনার আগে জেনে নিন প্রয়োজনীয় কিছু তথ্য কিভাবে কোন এসিটি আপনার ঘরের জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত হবে এসি এমন ঘরে লাগাবেন যে রুমগুলি সবচেয়ে বেশী ব্যবহার করা হয় সব ঘরেতো আর এসি লাগান সম্ভব নয় তাই সবচেয়ে বেশী ব্যবহার করা হয় এমন ঘরে লাগালে আপনার ঘরে বিদ্যুৎ খরচ অনেক কম হবে আর এসির সুফল পুরোপুরি ভোগ করতে পারবেন সাধারণত আমরা চার প্রকারের এসি দেখতে পাই

বর্তমানে Split Wall Mounted, Ceiling Type, Portable Ges Cassette Type এসি সবচেয়ে বেশী ব্যবহৃত আপনি শুধুমাত্র আপনার ঘর ঠান্ডা করার জন্য বা ঠান্ডা/গরম দুটিই যাতে করতে পারেন ধরনের এসি কিনতে পারেন যদি আপনার বসবাসের জায়গা মধ্যম মানের তাপমাত্রার এলাকায় হয় আর ধরনের এসির দামও তুলনামূলক কম আপনার বাসার যে ওয়ারিং আছে তাতেই সংযোগ যোগ্য এবং ইন্সটল করা সহজ বর্তমানে খুব সহজে এসি স্থাপন এবং রক্ষণাবেক্ষণ করা যায় ইলেক্ট্রো মার্ট লিমিটেড গ্রী এসির প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রে ফ্রি ইন্সটেলশন এবং তিন বছর ফ্রি বিক্রয়োত্তর সেবা প্রদান করে থাকে ফলে ব্যবহারকারী বিষয়ে পুরোপুরি চিন্তামুক্ত থাকতে পারেন

যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে