ব্রয়লার মুরগী ডাবল সেঞ্চুরি, বেড়েছে ডিমসহ নিত্যপণ্যের দাম

ব্রয়লার মুরগী ডাবল সেঞ্চুরি, বেড়েছে ডিমসহ নিত্যপণ্যের দাম
ফাইল ছবি

জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে ব্রয়লার মুরগী, ডিম, টমেটো, চাল, পেঁয়াজ, কাঁচা মরিচসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় প্রায় প্রতিটি পণ্যের মূল্যও বেড়েছে। বিগত কয়েকদিন ধরে ধারাবাহিকভাবে বাড়ছে ব্রয়লার মুরগির দাম।

শুক্রবার (১২ আগস্ট) সরেজমিনে কারওয়ান বাজারে দেখা যায়, প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২০০ টাকা ও পাকিস্তানি মুরগি ২৯০ টাকায়। এক সপ্তাহ আগে ব্রয়লার মুরগির দাম ছিল প্রতি কেজি ১৬০ টাকা ও পাকিস্তানি মুরগি ২৮০ টাকা। এর সঙ্গে চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সব ধরনের সবজি। তবে কাঁচা মরিচের দাম কিছুটা কমেছে।

সজিব চিকেন ব্রয়লার হাউজের কর্মচারী মো. উজ্জ্বল বলেন, 'গতকাল ব্রয়লার প্রতি কেজি ১৮০ টাকা করে বিক্রি করেছি। এক সপ্তাহ আগে ১৬০ টাকা ছিল। গাড়ি ভাড়াসহ অন্যান্য জিনিসের দাম বেড়ে যাওয়ায় প্রতি কেজি ব্রয়লার কিনতে আমাদের ১৯৩ টাকার বেশি পড়ে।'

ডিম বিক্রেতা শরিফ হোসেন বলেন, 'ডিমের দাম এত বেড়ে যাবে ভাবতে পারিনি। পরিবহন খরচসহ অন্যান্য খরচ বেড়ে গেছে। তাই দাম বাড়তি।'

কারওয়ান বাজারে আজ কেজিপ্রতি টমেটো বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকায়। এক সপ্তাহে আগে ছিল ৮০ টাকা। কাঁচামরিচ ২৪০ টাকা, এক সপ্তাহ আগে যা ছিল ১৮০ টাকা। পেঁয়াজ কেজিপ্রতি ১০-১৫ টাকা বেড়ে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা, বরবটি কেজিতে ১০ টাকা বেড়ে ৬০ টাকা, শসা ১০ টাকা বেড়ে ৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। আলু ৩০ টাকা, পেঁপে ২০ টাকা, পটল ঢেঁড়স ও চিচিঙ্গা ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

প্রতি কেজি গরুর মাংসের দাম ৬৫০ টাকা, খাসির মাংস ১ হাজার টাকা। দাম বাড়ার তালিকায় রয়েছে ইলিশও। এক কেজি ওজনের ইলিশের কেজি বিক্রি হচ্ছে এক হাজার ৬০০ থেকে এক হাজার ৮০০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল এক হাজার ২০০ থেকে এক হাজার ৩০০ টাকা। ৭০০-৮০০ গ্রাম ওজনের ইলিশের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৯০০ থেকে এক হাজার টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ৭০০ থেকে ৮০০ টাকা। আর ৪০০-৫০০ গ্রাম ওজনের ইলিশের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৭০০ থেকে ৮০০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ৪৫০ থেকে ৫০০ টাকা।

যাযাদি/ এসএইচ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে