রোববার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১

ফিলিস্তিনিদের পক্ষে জাতিসংঘে ১৪৩ ভোট, চূড়ান্ত বিজয়ের অপেক্ষা

যাযাদি ডেস্ক
  ১১ মে ২০২৪, ০০:১৮
জাতিসঙ্ঘ নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠক - ছবি : সংগৃহীত

জাতিসংঘে ফিলিস্তিনিদের জয় হয়েছে। ১৪৩ ভোট পেয়ে স্বাধীন রাষ্ট্র গঠন প্রক্রিয়ায় অনেক দূর এগিয়ে গিয়েছে ফিলিস্তিন। এবার সামনে এগিয়ে যাবার পালা। দখলদার ইসরাইলিদের তীব্র বিরোধীতার পরও ১৪৩ দেশে ফিলিস্তিনিদের পক্ষ ভোট দিয়েছে। এতে প্রমাণিত হয়েছে বিশ্বের অধিকাংশ দেশে ফিলিস্তিনিদের স্বাধীনতার পক্ষে।

জানা যায়, স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গঠনের পক্ষে জাতিসঙ্ঘে ভোটাভুটি হয়েছে। এতে দেশটির পক্ষে বাংলাদেশসহ মোট ১৪৩টি দেশ ভোট দিয়েছে। আর প্রস্তাবের বিপক্ষে মাত্র ভোট দিয়েছে নয়টি দেশ। আর ভোটদানে বিরত ছিল ২৫টি দেশ। গতকাল শুক্রবার (১০ মে) স্থানীয় সময় নিউইয়র্কে জাতিসঙ্ঘের সাধারণ পরিষদে এই প্রস্তাবটি উত্থাপিত হয়।

প্রস্তাবে বলা হয়, স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গঠনের পক্ষে নিরাপত্তা পরিষদে আবারো ভোটাভোটি হোক। এতে আপনাদের সমর্থন আছে কিনা। পরে ১৪৩টি দেশের ভোটে প্রস্তাবটি পাস হয়। এবার চূড়ান্ত ভোটের অপেক্ষা। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যদি ভোটো না দেয় তাহলে স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গঠনের পক্ষে অধিকাংশ দেশ ভোট দিবে। আর এতে ফিলিস্তিনি স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করবে।

গত সপ্তাহে নিরাপত্তা পরিষদে স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গঠন এবং তাদের পূর্ণ সদস্যপদ দেয়ার একটি প্রস্তাব উত্থাপিত হয়। তবে শুধুমাত্র যুক্তরাষ্ট্রের ভেটোর কারণে প্রস্তাবটি গৃহীত হয়নি। এরপর ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি এবং পূর্ণ সদস্যপদ দিতে নিরাপত্তা পরিষদে আবারো ভোট আয়োজনের জন্য সাধারণ পরিষদে প্রস্তাব তোলা হয়। আর এই প্রস্তাবের পক্ষে জাতিসঙ্ঘের সদস্যভুক্ত চারভাগের তিন ভাগ দেশ ভোট দিয়েছে।

কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আলজাজিরা জানিয়েছে, আজকের এই ভোটটি ফিলিস্তিনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ছিল। কারণ, এটির মাধ্যমে তারা বেশকিছু অধিকার পেয়েছে। ফিলিস্তিন এখন থেকে সাধারণ পরিষদে প্রস্তাব উত্থাপন বা এতে সমর্থন এবং সংশোধন করতে পারবে। সেই সাথে ফিলিস্তিনি প্রতিনিধি এখন থেকে সদস্য দেশগুলোর আসনে বসতে পারবেন এবং ফিলিস্তিন সক্রিয়ভাবে অধিবেশনে অংশগ্রহণ করতে পারবে। এছাড়া বিশ্বের বেশিরভাগ দেশ যে ফিলিস্তিনের পক্ষে রয়েছে, সেটি এই ভোটের মাধ্যমে আবারো প্রকাশ পেয়েছে।

‘বিশ্ব ফিলিস্তিনি জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছে’- এমন মন্তব্য করে জাতিসঙ্ঘের ভোটকে স্বাগত জানিয়েছেন ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস।

তিনি বলেন, প্রস্তাব পাস থেকে প্রমাণিত হয়েছে যে বিশ্ব ফিলিস্তিনের জনগণের অধিকার ও স্বাধীনতার সাথে এবং ইসরাইলের দখলদারির বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছে।

যাযাদি/ এসব

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে