দিনে কত কাপ কফি পান স্বাস্থ্যসম্মত

দিনে কত কাপ কফি পান স্বাস্থ্যসম্মত

সকাল সকাল এক কাপ কফি না হলে অনেকের ঘুমই ভাঙে না। এই পানীয়ের স্বাদে বুঁদ সারা পৃথিবী। কফি শুধু স্বাদেই অনন্য নয়,পাশাপাশি এই পানীয় হার্টের রোগ, অবসাদ, ওজন কমানো, মন চাঙ্গা করার মতো কাজ করতে পারে। তাই কফি হয়ে উঠেছে আমাদের খুব কাছের একটি পানীয়।

তবে কোনও কিছুই বেশি খাওয়া ভালো নয়। তেমনি কফিও বেশি খাওয়া ভালো নয়। বিষয়টি অবশ্য অনেকেই বিষয়টি জানেন না। তাই দিনে একের পর এক কফির কাপ ফাঁকা করতে থাকেন তারা।

আসলে কফির মধ্যে থাকে ক্যাফেইন নামক একটি উপাদান। এটিই কফির মূল উপাদান। এটা শরীরের পক্ষে একটা মাত্রা পর্যন্ত ভালো। তার বেশি খেলেই সমস্যা। ‘আমেরিকান জার্নাল অব ক্লিনিক্যাল নিউট্রিশন’-এ প্রকাশিত গবেষণায় বলা হচ্ছে- মাত্রাতিরিক্ত কফি ডেকে আনতে পারে নানা বিপদ।

কী কী বিপদ ডেকে আনতে পারে মাত্রাতিরিক্ত কফি?

প্রচুর পরিমাণে কফি এক সময়ে রক্তে ক্যাফিন বোঝাই করে দেয়। ফলে তার প্রতি আসক্তি তৈরি হতে থাকে। অন্যান্য নেশায় যেমন হয়, তেমনই হতে থাকে কফি নিয়েও। নির্দিষ্ট সময় অন্তর কফি না পেলে মেজাজ খারাপ হতে থাকে।

রক্তে মাত্রাতিরিক্ত ক্যাফিন প্রভাব ফেলে হৃদযন্ত্রেও। ফলে এই অঙ্গের কাজকর্মও ব্যাহত হয়। এমনকি রক্তচাপও বদলে যেতে পারে।

যারা প্রচুর পরিমাণে কফি পান করেন, তাদের অনেকের ঘুম কমে যায়। ফলে মস্তিষ্কের কাজও ব্যাহত হয়।

তাহলে দিনে সর্বোচ্চ কত কাপ কফি খাওয়া উচিত?

গবেষণাপত্রটি বলছে, দিনের মাথায় চার কাপ। বড় জোর এই পরিমাণে কফি পান করা উচিত। আর কোনো কোনো দিন ব্যতিক্রম হলে পাঁচ কাপ। কোনো ভাবেই তার বেশি নয়। চার কাপ কফি খেলে হৃদযন্ত্র নিয়ে আশঙ্কা করতে হবে না। ঘুমেরও ব্যাঘাত ঘটবে না।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে