কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ অফিস অবরুদ্ধ : মির্জা কাদেরের সংবাদ সম্মেলন পণ্ড

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ অফিস অবরুদ্ধ : মির্জা কাদেরের সংবাদ সম্মেলন পণ্ড

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে বসুরহাট রূপালী চত্বরে বিকেল ৩টায় আ.লীগের দুই পক্ষ একই স্থানে পাল্টাপাল্টি সমাবেশ ডাকায় সোমবার সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করেছে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিয়াউল হক মীর। রোববার রাতে ও সোমবার সকালে মাইকিং করে সব ধরনের সভা-সমাবেশ ও গণজমায়েতের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌর এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করলেও পিকেটাররা রাস্তায় কাঠের গুঁড়ি ও গাছ ফেলে জনজীবনে দুর্ভোগ সৃষ্টি করেছে।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জিয়াউল হক মীর স্বাক্ষরিত এক আদেশে বলা হয়েছে, সোমবার সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত পুরো বসুরহাট পৌর এলাকার সর্বত্র এ আদেশ কার্যকর থাকবে। এদিকে নিষেধাজ্ঞা জারির পরপরই রোববার রাত ১১টার পর থেকে বিভিন্ন পয়েন্টে ডিবি পুলিশ, দাঙ্গা পুলিশ ও র‌্যাব মোতায়েন করা হয়েছে।

এর আগে শনিবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল সোমবার ৩টায় বসুরহাট বাজারের রূপালী চত্বরে বাংলাদেশ আ.লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির জাতীয় নেতৃবৃন্দ নিয়ে মিথ্যাচারের প্রতিবাদ সমাবেশের আহ্বান করে। পরে একই স্থানে সোমবার ৩টায় মেয়র আবদুল কাদের মির্জা সাংবাদিক মুজাক্কিরকে হত্যার প্রতিবাদে শোকসভা ও মিলাদ মাহফিলের ঘোষণা করেন।

এ সময় ম্যাজিস্ট্রেট সুপ্রভাত চাকমার নেতৃত্বে র‌্যাব, ডিবি পুলিশ, দাঙ্গা পুলিশ দলীয় কার্যালয় অবরুদ্ধ করে রাখে। গত শুক্রবারে বিকেলে উপজেলার চাপরাশিরহাট বাজারে আ’লীগের দুই গ্রুপের গোলাগুলিতে বাংলাদেশ সমাচার কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি বোরহান উদ্দিন মুজাক্কির গুলিবিদ্ধ হন। শনিবার রাত সাড়ে ১০টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।

রোববার রাত সাড়ে ৮টায় কোম্পানীগঞ্জের চরফকিরা ইউয়িনের পারিবারিক কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়। সোমবার সকাল থেকে পৌর এলাকায় পিকেটাররা রাস্তায় কাঠের গুঁড়ি ও গাছ ফেলে রাখে। এতে জনদুর্ভোগে পড়ে সাধারণ জনগণ।

এ ব্যাপারে বসুরহাট পৌলসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা সোমবার সকাল ৯টায় আ’লীগের দলীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের জানান, ফেনীর তথাকথিত এমপি নিজাম হাজারী, ফুলগাজি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান একরামকে যেভাবে প্রকাশ্যদিবালোকে গুলি করে, পরে গাড়িতে পেট্রোল ঢেলে জীবন্ত পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে, ঠিক সেইভাবে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল মুজাক্কিরকে চাপরাশিরহাট বাজারে গুলি করে হত্যা করেন। এ হত্যাকাণ্ড একই সূত্রে গাঁথা।

এদিকে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার অনুসারী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও চেয়ারম্যান প্রার্থীরা সোমবার বিকেল ৩টায় বসুরহাট রূপালী চত্বরে মুজাক্কির হত্যার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করতে চাইলে কর্তব্যরত ম্যাজিস্ট্রেট সুপ্রভাত চাকমার নেতৃত্বে র‌্যাব, ডিবি পুলিশ ও দাঙ্গা পুলিশ বাধা দিয়ে সংবাদ সম্মেলন পণ্ড করে দেয়।

যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে