উত্তাপ ছড়াচ্ছে পলস্নবীর মৃতু্য

উত্তাপ ছড়াচ্ছে পলস্নবীর মৃতু্য

ক'দিন ধরেই শোরগোল চলছে, আলোচনা চলছে ভারতীয় অভিনেত্রী পলস্নবী দে'র মৃতু্য নিয়ে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে উঠে আসছে বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত। পলস্নবীর প্রেমিক সাগ্নিকের রেজিস্ট্রি বিয়ের সার্টিফিকেট খুঁজছে পুলিশ। পাশাপাশি আত্মহত্যা নয়, খুন করা হয়েছে এই অভিনেত্রীকে- এমন অভিযোগও জোরালো হচ্ছে। পলস্নবীর বন্ধু-বান্ধবীদের কথায়, পলস্নবী আত্মহত্যা করার মেয়েই নয়। অন্যদিকে, পলস্নবীর মা-বাবা তার প্রেমিক সাগ্নিক ও তার বান্ধবী ঐন্দ্রিলার বিরুদ্ধে খুন, প্রতারণা, সম্পত্তি হস্তগত করা, অপরাধমূলক বিশ্বাসভঙ্গ ও ষড়যন্ত্রের অভিযোগ এনেছেন।

সোমবার পলস্নবীর লিভ ইন পার্টনার এবং অভিনেত্রীরই বন্ধু ঐন্দ্রিলা মুখোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেছে পরিবার। এরই মধ্যে তদন্ত শুরু করেছে গড়ফা থানার পুলিশ। সোমবার রাতভর পলস্নবীর সঙ্গী, সাগ্নিক চক্রবর্তীকে জেরা করে পুলিশ, জেরার সময় উপস্থিত ছিলেন কলকাতা পুলিশের এক ডেপুটি কমিশনার অতুল ভি। তার সামনেই সাগ্নিককে ম্যারাথন জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ। পলস্নবীর বাবা অভিযোগ জানান, অন্য এক তরুণীর সঙ্গে সম্পর্কে থাকতে চেয়েই মেয়েকে খুন করেছেন সাগ্নিক। পাশাপাশি মৃত অভিনেত্রীর পরিবারের অভিযোগ, নায়িকার উপার্জিত অর্থও হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছিলেন সাগ্নিক। খুনের পাশাপাশি সম্পত্তি হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগেও সাগ্নিকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এদিন সাগ্নিকে কাছ থেকে পলস্নবীর সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে একাধিক প্রশ্ন রাখে পুলিশ। কেন বিবাহিত হয়েও পলস্নবীর সঙ্গে লিভ ইন? তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের বিশদ তথ্যও জানতে চেয়েছে পুলিশ। তার আয়ের উৎস কী? যৌথ সম্পত্তিতে কিনতে পলস্নবী ঠিক কত টাকা দিয়েছে? সবটা জানতে চায় পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, পলস্নবী ও সাগ্নিক মিলে বেশ কিছু সম্পত্তি কিনেছিল। সেই আর্থিক লেনদেনের বিস্তারিত খতিয়ান দিতে হবে সাগ্নিককে। পলস্নবীর পরিবার থেকে প্রতিবেশীদের অভিযোগ, দু'জনের মধ্যে ঝামেলা লেগে থাকত। কী নিয়ে সমস্যা হচ্ছিল? তাও জানতে চাওয়া হয়। নতুন কোনো সম্পত্তি কেনা নিয়ে কি তাদের মধ্যে বিবাদের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল কি না তাও খতিয়ে দেখতে পুলিশ।

পলস্নবীর পরিবারের তরফে বান্ধবী ঐন্দ্রিলা মুখোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধেও খুনের অভিযোগ আনা হয়েছে, এই গোটা মামলায় তার ভূমিকা কতখানি সেটাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ। এখনও পর্যন্ত পুলিশি জেরার মুখে পড়তে হয়নি ঐন্দ্রিলাকে। তবে গোটা বিষয়টাকেই অস্বীকার করে ঐন্দ্রিলা বলেন, 'আমি জানতে পারলাম যে, আমার নামে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। কিন্তু আমি জানি না, কেন এই অভিযোগ। আমার সম্পর্কে নানা কথা বলা হচ্ছে। কিন্তু সত্যি কথা বলতে, পলস্নবী আর সাগ্নিক দু'জনই আমার বন্ধু।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে