বাবার দ্বিতীয় বিয়ে, মেয়ের আত্মহত্যা

বাবার দ্বিতীয় বিয়ে, মেয়ের আত্মহত্যা

বাবা দ্বিতীয় বিয়ে করায় অভিমানে শরীরে কেরোসিন ঢেলে লালমনিরহাটের পাটগ্রামে মরিয়ম বেগম (২২) নামে এক মেয়ে আত্মহত্যা করেছেন। শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়ার পথে মরিয়মের মৃতু্য হয়।

নিহত মরিয়ম বেগম ওই এলাকার জহুরুল ইসলামের মেয়ে এবং হাতীবান্ধা উপজেলার ভোটমারী গ্রামের শামীম মিয়ার স্ত্রী।

এলাকাবাসী জানান, প্রথম স্ত্রী থাকার পরেও দ্বিতীয় বিয়ে করেন জহুরুল ইসলাম (৫০)। এ কারণে অভিমান করে প্রথম স্ত্রী বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। পরে বাবার দ্বিতীয় বিয়ের খবরে ক্ষুব্ধ হয়ে বৃহস্পতিবার বাবার বাড়ি আসেন মেয়ে মরিয়ম। দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে বাবা-মেয়ের মধ্যে বাগবিতন্ডা হয়।

একপর্যায়ে বাবার সঙ্গে অভিমান করে ঘরে ঢুকে নিজের শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন দেন মরিয়ম। এ সময় মেয়েকে বাঁচাতে নিজেই দগ্ধ হন বাবা জহুরুল ইসলাম। দগ্ধ বাবা-মেয়েকে প্রতিবেশীরা প্রথমে পাটগ্রাম স্বাস্থ্য কমপেস্নক্স ও পরে রংপুর মেডিকেল কলেজের (রমেক) বার্ন ইউনিটে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হলে শুক্রবার ভোরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় মেয়ে মরিয়মকে ঢামেক হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃতু্য হয়।

পাটগ্রাম থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত জানান, বাবা-মেয়ে দুজনেই দগ্ধ হয়েছেন। এ ঘটনায় কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে