বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১

শতকোটিপতিদের নতুন তালিকা শীর্ষে বার্নার্ড আর্নল্ট

ধনীদের তালিকায় মার্কিনদের পর সবচেয়ে বেশি আছেন চীনারা; হংকংয়ের নাগরিকসহ চীনের মূল ভূখন্ডের ধনীদের মধ্যে শতকোটিপতির সংখ্যা ৪৭৩ জন
অর্থ-বাণিজ্য ডেস্ক
  ০৪ এপ্রিল ২০২৪, ০০:০০

চলতি বছরটি বিশ্বের শতকোটিপতি বা বিলিয়নিয়ারদের দারুণ কাটছে। যুদ্ধ, রাজনৈতিক অস্থিরতা ও উচ্চ মূল্যস্ফীতির মতো বাধা পেরিয়ে ধনীদের সম্পদমূল্য বাড়ছেই। গত এক বছরে তাদের সম্পদমূল্য বেড়েছে দুই লাখ কোটি ডলার। ফোর্বস ম্যাগাজিন ২০২৪ সালের ধনীদের নতুন তালিকায় এ তথ্য জানিয়েছে।

ধনীদের তালিকায় এখন সবার ওপরে বার্নার্ড আর্নল্ট ও পরিবার। ফোর্বস ম্যাগাজিনের রিচেস্ট ইন ২০২৪ শীর্ষক প্রতিবেদনে এই পরিবার নিজেদের শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে। চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে বার্নার্ড আর্নল্ট ইলন মাস্ককে হটিয়ে বিশ্বের শীর্ষ ধনীর আসন লাভ করেন। তার সম্পদমূল্য ২২ হাজার ২৪০ কোটি ডলার।

২০২৪ সালের ধনীতম ব্যক্তিদের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে আছেন অ্যামাজনের সহপ্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস। তার সম্পদমূল্য ১৯ হাজার ৮৭০ কোটি ডলার। তৃতীয় স্থানে আছেন ইলন মাস্ক। টেসলার প্রতিষ্ঠাতা এই ধনীর সম্পদমূল্য ১৯ হাজার ২০ কোটি ডলার। ১৭ হাজার ৪৪০ কোটি ডলার নিয়ে চতুর্থ স্থানে আছেন সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকের সহপ্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ। পঞ্চম স্থানে আছেন ওরাকলের সহপ্রতিষ্ঠাতা ল্যারি এলিসন। তার সম্পদমূল্য ১৫ হাজার ৩৪০ কোটি ডলার।

বিশ্বে এখন যত শতকোটিপতি আছেন, অতীতে তাদের সংখ্যা কখনোই এত বেশি ছিল না। এখন সব মিলিয়ে শতকোটিপতি আছেন ২ হাজার ৭৮১ জন; এই সংখ্যাটা গত বছরের চেয়ে ১৪১ জন বেশি এবং ২০২১ সালে যখন শতকোটিপতিদের সংখ্যাগত সর্বশেষ রেকর্ড স্থাপিত হয়, তার চেয়ে ২৬ জন বেশি।

শতকোটিপতির সংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে তাদের মোট সম্পদমূল্যও স্বাভাবিকভাবে বেড়েছে। সামগ্রিকভাবে এখন তাদের সম্পদমূল্য ১৪ লাখ ২০ হাজার কোটি ডলার; এই পরিসংখ্যান ২০২৩ সালের চেয়ে দুই লাখ কোটি ডলার বেশি এবং ২০২১ সালের সর্বশেষ রেকর্ডের চেয়ে ১ লাখ ১০ হাজার কোটি ডলার বেশি।

শতকোটিপতিদের তালিকায় স্থান পাওয়া দুই-তৃতীয়াংশ মানুষের সম্পদ মূল্য গত বছরের তুলনায় বেড়েছে, মাত্র এক-চতুর্থাংশ ধনীর সম্পদমূল্য কমেছে। শীর্ষ ২০ জন ধনীর সম্পদ মূল্য সবচেয়ে বেশি বেড়েছে। এদের সম্পদ মূল্য বেড়েছে সামগ্রিকভাবে ৭০ হাজার কোটি ডলার। জাতীয়তার দিক থেকে সবচেয়ে বেশি সম্পদ বেড়েছে মার্কিন ধনীদের। তালিকায় এখন মার্কিন ধনীদের সংখ্যা রেকর্ড ৮১৩ জনে উঠেছে; তাদের সম্মিলিত সম্পদমূল্য ৫ দশমিক ৭ ট্রিলিয়ন ডলার।

ফোর্বসের ধনীদের তালিকায় ষষ্ঠ স্থানে আছেন দানবীর, ওরাকল অব ওমাহা ও বিনিয়োগ গুরু হিসেবে খ্যাত ওয়ারেন বাফেট। তার সম্পদমূল্য ১৩ হাজার ৭৭০ কোটি ডলার। সপ্তম স্থানে আছেন মাইক্রোসফটের সহপ্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস; তার সম্পদমূল্য ১৩ হাজার ৭০ কোটি ডলার। অষ্টম স্থানে আছেন অ্যালফাবেটের সহপ্রতিষ্ঠাতা ল্যারি পেজ; তার সম্পদ মূল্য ১২ হাজার ৮৮০ কোটি ডলার। ১২ হাজার ৪৭০ কোটি ডলারের সম্পদ নিয়ে নবম স্থানে আছেন লস অ্যাঞ্জেলেস ক্লিপার্সের স্বত্বাধিকারী স্টিভ বালমার এবং অ্যালফাবেটের আরেক সহপ্রতিষ্ঠাতা সার্জেই ব্রিন আছেন নবম স্থানে। তার সম্পদ মূল্য ১২ হাজার ৩৭০ কোটি ডলার।

শীর্ষ ১০ ধনীর মধ্যে প্রথম স্থানে থাকা বার্নার্ড আর্নল্ট পরিবার ছাড়া বাকি সবাই মার্কিন; আর্নল্ট পরিবার ফরাসি।

ধনীদের তালিকায় মার্কিনদের পর সবচেয়ে বেশি আছেন চীনারা; হংকংয়ের নাগরিকসহ চীনের মূল ভূখন্ডের ধনীদের মধ্যে শতকোটিপতির সংখ্যা ৪৭৩ জন। যদিও দেশটির অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো নয়। দেশটির আবাসন খাতসহ বিভিন্ন খাতে যে সংকট চলছে, তার জেরে সামগ্রিকভাবে চীনা ধনীদের সম্পদমূল্য কমেছে ৩০ হাজার কোটি ডলার। দুইশ' বিলিয়নিয়ার বা শতকোটিপতি নিয়ে তালিকায় তৃতীয় স্থানে আছে ভারত, দেশটির ধনীদের জন্য এটি নতুন রেকর্ড। অর্থাৎ এর আগে আর কখনো এতসংখ্যক ভারতীয় শতকোটিপতি ছিলেন না।

তালিকায় ১১তম স্থানে আছেন ভারত ও এশিয়ার শীর্ষ ধনী মুকেশ আম্বানি। তার সম্পদমূল্য ১১ হাজার ৬২০ কোটি ডলার। আরেক ভারতীয় শীর্ষ ধনী ও একসময় এশিয়ার শীর্ষ ধনী গৌতম আদানির সম্পদমূল্য ৮ হাজার ৪৭০ কোটি ডলার তার অবস্থান এখন ১৭তম।

২০২৪ সালের শীর্ষ এই শতকোটিপতিদের তালিকা তৈরিতে ফোর্বস গত ৮ মার্চ থেকে স্টকমূল্য ও মুদ্রার বিনিময় মূল্য ব্যবহার করছে। তবে গতকাল বেশির ভাগ ধনীর সম্পদ মূল্য কমেছে।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে