​​​​​​​ফুলবাড়ীতে মুদি ব্যবসায়ীকে হত্যার দায়ে ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

​​​​​​​ফুলবাড়ীতে মুদি ব্যবসায়ীকে হত্যার দায়ে ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলায় মুদি ব্যবসায়ী হুমায়ুন কবীরকে হত্যা করে লাশ গুম করার দায়ে তিন আসামিকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার বিকেল ৪টায় দিনাজপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-২-এর বিচারক মেহেদী হাসান মণ্ডল এই আদেশ দেন। একই সঙ্গে এ মামলায় আরও চারজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে।

মৃত্যুদণ্ড পাওয়া আসামিরা হলেন ফুলবাড়ী উপজেলার গরপিংলাই গ্রামের তাসের উদ্দিনের ছেলে শরীফুল ইসলাম (৪৩), একই গ্রামের আজাহার আলীর ছেলে রেজাউল করিম (৪৮) ও আজীজ সিদ্দীকির ছেলে আতোয়ার রহমান ওরফে আতর আলী (৫১)।

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন আতোয়ার আলীর ছেলে গোলাম রব্বানী (৪৪) ও একরামুল হক, মৃত সিরাজ উদ্দীনের ছেলে সাঈদ আলী (৫৮) ও ইদ্রিস আলীর ছেলে জাহাঙ্গীর আলম। যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের একই সঙ্গে ২০ হাজার টাকা টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদণ্ডর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ২০০৯ সালের ২১ আগস্ট বিকালে উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের গড়পিংলাই গ্রামের হুমায়ুন কবীর (২৪) স্থানীয় জয়নগর বাজারে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন। এরপর তিনি আর বাড়ি ফেরেননি। পরদিন স্থানীয় একটি ইটভাটা থেকে মাথা থেঁতলানো অবস্থায় হুমায়ুনের মরাদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই দিনই নিহত ব্যক্তির ভাই তৌহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে ফুলবাড়ী থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

ফুলবাড়ী থানা-পুলিশ মামলার দীর্ঘ তদন্ত শেষে এজাহারে উল্লিখিত ৫ জনসহ আরও ২ জনের নাম উল্লেখ করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। জমিজমাসংক্রান্ত জেরে হুমায়ুন কবির খুন হন। দীর্ঘ ১৩ বছর ধরে ১৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যপ্রমাণ ও বিভিন্ন তথ্য উপস্থাপন শেষে আদালত সোমবার এই রায় ঘোষণা করেন।

যাযাদি/এসএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে