logo
সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ২২ আষাঢ় ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ৩০ জুন ২০২০, ০০:০০  

সংবাদ সংক্ষপে

সংবাদ সংক্ষপে
রুশ প্রেসিডেন্ট ভস্নাদিমির পুতিন
পুতিনের মন্তব্য

বিশ্বে একক আধিপত্য

প্রতিষ্ঠার যুগ শেষ

যাযাদি ডেস্ক

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভস্নাদিমির পুতিন আবারও যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বে পশ্চিমা দেশগুলোর একক আধিপত্য প্রতিষ্ঠার প্রচেষ্টার বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। রোববার একটি রুশ টেলিভিশনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে পাশ্চাত্যের আধিপত্যকামী মনোভাবের সমালোচনা করে তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে চরম স্বার্থবাদিতা এবং অপরের ওপর কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠার দিন শেষ হয়ে গেছে এবং এগুলো বর্তমান যুগে

অকার্যকর হয়ে পড়েছে।

রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন বলেন, গোটা বিশ্বকে এখন এই বাস্তবতা উপলব্ধি করতে হবে, যৌথ সংকটগুলো মোকাবিলায় সম্মিলিতভাবে কাজ করার বিকল্প নেই এবং আন্তর্জাতিক অঙ্গনে একক আধিপত্য বিস্তার করার প্রচেষ্টায় কোনো দেশ আর সফল হতে পারবে না। ফলে এ ব্যাপারে বিশ্ববাসীর সচেতনতা বৃদ্ধি পাবে এবং বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যকার সম্পর্কের গুণগত মান আগের চেয়ে অনেক উন্নত হবে বলে প্রেসিডেন্ট পুতিন আশা প্রকাশ করেন। সংবাদসূত্র : পার্স টুডে

যুক্তরাজ্য

পদত্যাগ করলেন জাতীয়

নিরাপত্তা উপদেষ্টা

যাযাদি ডেস্ক

পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন ব্রিটিশ মন্ত্রিপরিষদ সচিব ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মার্ক সেডউইল। রোববার রাতে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের কাছে পাঠানো চিঠিতে

পদত্যাগের কথা জানান তিনি।

আগামী সেপ্টেম্বর মাসে দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়াবেন বলে চিঠিতে উলেস্নখ করেছেন সেডউইল। তার পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন জনসন। সেডউইলের স্থলাভিষিক্ত হিসেবে প্রধানমন্ত্রী নিযুক্ত করেছেন ব্রেক্সিটবিষয়ক

উপদেষ্টা ডেভিড ফ্রস্টকে।

গত শনিবার জনসন মন্ত্রিসভায় কিছু বদল আনার ঘোষণা দিয়েছিলেন। তার পরদিনই পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিলেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব ও জাতীয়

নিরাপত্তা উপদেষ্টা সেডউইল।

জনসনের মেয়াদের আগে থেকেই নিরাপত্তা উপদেষ্টার দায়িত্বে ছিলেন সেডউইল। সাবেক প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে ২০১৭ সালে তাকে এই পদে বসান এবং পরের বছর তার কর্মপরিধি বাড়িয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়।

পদত্যাগের কারণ সম্পর্কে কূটনৈতিক সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি করোনা মোকাবিলার উপায় নিয়ে বরিসের সঙ্গে মতবিরোধ চলছিল উপদেষ্টাদের। তাতেই দায়িত্ব থেকে সরে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন সেডউইল।

সংবাদসূত্র : রয়টার্স

এবার বাড়িতে বসেই

করোনা পরীক্ষা

যাযাদি ডেস্ক

মুখের ভেতর থেকে কয়েক ফোঁটা লালারস নিয়ে বাড়িতে বসেই করা যাবে করোনাভাইরাস পরীক্ষা (টেস্ট)। এর জন্য কোনো বিশেষজ্ঞের প্রয়োজন হবে না, টেস্ট করা যাবে নিজে নিজেই।

ভারতের শীর্ষ স্বাস্থ্য সংস্থা আইসিএমআরের অনুমোদনপ্রাপ্ত এই 'ম্যাজিক কিটের' নাম 'কোভিড-১৯ অ্যান্টিজেন টেস্ট কিট'। এটি উৎপাদন ও বিপণনের অনুমতি পেয়েছে অন্তত আটটি সংস্থা। এরই মধ্যে উৎপাদিত কিটের গুণগত মান যাচাইয়ের কাজ শুরু হয়েছে। ভারতীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্র জানিয়েছে, সব ঠিক থাকলে আগামী এক মাসের মধ্যেই এই অ্যান্টিজেন কিট খোলাবাজারে পাওয়া যাবে।

আরটিপিসিআর পদ্ধতিকে করোনা পরীক্ষার প্রধান 'স্ট্যান্ডার্ড' ধরা হলেও তাৎক্ষণিক পরীক্ষার জন্য ভারতের কয়েকটি রাজ্য অ্যান্টিজেন পরীক্ষার মাধ্যমে ঘরোয়াভাবে ভাইরাস পরীক্ষা শুরু করছে। সেখানে একেকটি 'ম্যাজিক কিট'র দাম পড়ছে গড়ে ৪৫০

রুপির মতো। তবে গণউৎপাদনে

দাম আরও কমবে।

সংবাদসূত্র : ইনডিয়ান এক্সপ্রেস

৭০০ কিলোমিটার

দৈর্ঘ্যের বজ্রপাত!

যাযাদি ডেস্ক

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলের একটি বজ্রপাত। জাতিসংঘের আবহাওয়া সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ২০১৮ সালে ব্রাজিলে ওই বজ্রপাত হয়েছিল, যার দৈর্ঘ্য ছিল ৭০০ কিলোমিটার! যা বিশ্বরেকর্ড। এর

আগে এত বড় মাপের ভয়ংকর

বজ্রপাত কখনো হয়নি।

বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থার (ডবিস্নউএমও) পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এ পর্যন্ত বিশ্বে দীর্ঘতম বজ্রপাতের দুটি রেকর্ড হয়েছে- একটি ব্রাজিলে, অন্যটি আর্জেন্টিনায়।

জাতিসংঘের আবহাওয়া সংস্থা বলছে, ২০১৯ সালের ৪ মার্চ আর্জেন্টিনার মেগাফ্লাশের (বজ্রপাত) স্থায়িত্ব ছিল ১৬.৭৩ সেকেন্ড। আর তার আগের বছর, অর্থাৎ ২০১৮ সালের ৩১ অক্টোবর ব্রাজিলে দেখা দেওয়া বজ্রপাতের দৈর্ঘ্য মেপে দেখা গেছে ৭০০ কিলোমিটারের কাছাকাছি, যা যুক্তরাজ্যের লন্ডন শহর থেকে সুইজারল্যান্ডের বাসেল

শহরের দৈর্ঘ্যের সমান।

ব্রাজিলের এই দীর্ঘতম বজ্রপাতের বিষয়ে আবহাওয়াবিদরা বলছেন, এটি একেবারে অত্যাশ্চর্য একটি ঘটনা।

এর আগের ঘটনাটি ঘটেছিল ২০০৭ সালে, যে সময়ে বজ্রপাতের দৈর্ঘ্য ছিল ৩২১ কিলোমিটার। সেটি ঘটেছিল যুক্তরাষ্ট্রের ওকলাহামা প্রদেশে। ৭.৭৪ সেকেন্ড ধরে সেটি চলেছিল।

আর ১৯৯৪ সালে মিসরে একটি বজ্রপাত হয়। ওই বজ্রপাতে ৪৬৯ জনের মৃতু্য হয়। সংবাদসূত্র :জাকার্তা পোস্ট
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে