logo
শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০  

পশ্চিমবঙ্গে পৃথক জনসভায় মোদি-মমতার আক্রমণ

জ্জ দিদির সূর্য অস্ত যাবে :মোদি জ্জ নির্বাচনে কালো টাকা খরচ করছে বিজেপি : মমতা

পশ্চিমবঙ্গে পৃথক জনসভায় মোদি-মমতার আক্রমণ
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নরেন্দ্র মোদি
যাযাদি ডেস্ক

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি লোকসভা ভোটে প্রচারে গিয়ে বলেছেন, 'পশ্চিমবঙ্গে দিদির সূর্য অস্ত যেতে চলেছে, তাই তারা গুন্ডারাজ চালাচ্ছে। আসন টলমল, তাই দিদি ভয় পাচ্ছেন। আগামী ২৩ মে আরও একবার ক্ষমতায় আসবে মোদি সরকার এবং ওইদিন থেকে তৃণমূলের অত্যাচারী শাসন শেষের 'কাউন্টডাউন' শুরু হয়ে যাবে। পশ্চিবঙ্গের বোলপুরের ইলামবাজারে বুধবার নির্বাচনী জনসভা থেকে ঠিক এই ভাষাতেই তৃণমূল সরকারকে আক্রমণ করেন মোদি। অন্যদিকে, একইদিন হুগলির শ্রীরামপুরে এক নির্বাচনী জনসভায় মমতা অভিযোগ করেন, লোকসভা নির্বাচনে কালো টাকা খরচ করছে বিজেপি। সংবাদসূত্র : ইনডিয়ান এক্সপ্রেস

মোদির বিদেশ সফর নিয়ে বিভিন্ন জনসভায় যে সমালোচনার ঝড় তুলেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, এদিনের জনসভা থেকে সেই সমালোচনাকেই অস্ত্র করেন মোদি। এদিনের বক্তৃতার সিংহভাগ অংশেই শাসকদলের বিরুদ্ধে 'গুন্ডারাজ' ও 'তোলাবাজি' চালানোর অভিযোগে সরব হন মেদি। তিনি অভিযোগ করেন, 'দিদির গুন্ডাতন্ত্রের শক্তি থাকলে, আমাদের লোকতন্ত্রের শক্তি রয়েছে। দিদি যত সমস্যা তৈরি করবেন, গুন্ডাগিরি চালাবেন, ততই বাংলায় পদ্ম ফুটবে। ক্ষমতায় এসে তৃণমূলের গুন্ডারাজকে দূর করবই।'

এদিনের সভায় আবারও মমতাকে 'স্পিড ব্রেকার' বলে কটাক্ষ করেন তিনি। বলেন, পশ্চিমবঙ্গের উন্নয়নের স্পিডে ব্রেক লাগিয়ে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেবল বর্তমানই নয়, পশ্চিমবঙ্গের মানুষের ভবিষ্যৎ নিয়েও খেলা করছেন তিনি।

অন্যদিকে, মমতা অভিযোগ করেছেন, 'ওরা যদি নোটবাতিল করে আপনাদের চাকরি বাতিল করে পারে, তাহলে আপনারা কেন তাকে বাতিল করবেন না?' তিনি বলেন, ২০২২ সালে ভারতের কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করার কথা বলছে মোদি সরকার। আর এ রাজ্যে আগে কৃষকরা যা আয় করতেন, এখন তার থেকে দ্বিগুণ আয় করেন। মিউটেশন ফি, এমনকি খাজনাও মওকুফ করে দিয়েছে সরকার। পশ্চিমবঙ্গ ছাড়া ভারতের কোনো রাজ্যের কোনো সরকারি হাসপাতালে বিনা পয়সায় চিকিৎসা পাওয়া যায় না।

এরপর উন্নয়ন ও এনআরসি-সহ বিভিন্ন ইসু্যতে ফের মোদিকে নিশানা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বলেন, গত পাঁচ বছর ধরে প্রায় প্রতিদিনই রান্নার গ্যাস, পেট্রপণ্যের দাম বাড়িয়েছে মোদি সরকার। মোদি জমানায় ১২ হাজার কৃষক আত্মহত্যা করেছেন, ১২ লাখ মানুষ চাকরি হারিয়েছেন। নির্বাচনী জনসভায় যারা এসেছিলেন, তাদের কাছে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী জানতে চান, 'নোটবন্দি করে কালো টাকা উদ্ধার করার প্রতিশ্রম্নতি দিয়েছিলেন মোদি। দেশবাসীর অ্যাকাউন্টে ১৫ লাখ রুপি দেয়ার কথা বলেছিলেন। আপনারা কি সেই অর্থ পেয়েছেন?

মমতা বলেন, কালো টাকা সব বিদেশে পাঠিয়ে দিয়েছেন মোদি। সেই টাকা এখন নির্বাচনে খরচ করা হচ্ছে। দিলিস্নতে নতুন সরকার ক্ষমতায় এলে সব দুর্নীতির পর্দা ফাঁস হবে। বিজেপি বিরুদ্ধে ধর্মের নামে বিভাজনের রাজনীতির অভিযোগও তোলেন মমতা।

প্রধানমন্ত্রীর অভিযোগ, ''বাংলায় যেকোনও কাজ করতে গেলেই তৃণমূলের নেতাদের তোলা দিতে হয়? ঘুষ ছাড়া বাংলায় কোনও কাজই হয় না?''

বিদেশ সফর নিয়ে বারবারই বিরোধীদের আক্রমণের মুখে পড়তে হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীকে? কংগ্রেস থেকে শুরু করে তৃণমূল, সমস্ত বিরোধী দলও মোদির বিরুদ্ধে একে শক্ত হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করছে? ইলামবাজারের জনসভা থেকে এদিন বিরোধীদের সেই সমালোচনাকেই হাতিয়ার করেন মোদি? উত্তরে বলেন, ''দিদি বলছেন, চাওয়ালা পাঁচবছরে কেবল বিদেশ যাত্রা করছে? কিন্তু আজ সমগ্র বিশ্ব ভারতের ক্ষমতা দেখতে পাচ্ছে? কারণ, ওই বিদেশ যাত্রার জন্যই ভারতের বলিষ্ঠ আওয়াজ বিশ্বের দরবারে পৌঁছে যাচ্ছে? পাঁচ বছর আগে কারও সমর্থন পেতে গেল দম ফুরিয়ে যেত? আজ সবাই ভারতের পাশে রয়েছে? আগে যে দেশ বেশি দামে তেল ও গ্যাস বিক্রি করত? এখন তারা কম দামে ভারতকে গ্যাস ও তেল দিচ্ছে?''

এখানেই শেষ নয়, তাঁর বিদেশ যাত্রার আরও বেশকিছু সুফল এদিনের সভায় উপস্থিত মানুষের সামনে তুলে ধরেন তিনি? জানান, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ব্যাংকের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে ভারত? সেই ব্যাংকগুলিতে কোনও ভারতীয় কালো টাকা জমা করলেই, সেই 'রিয়েল টাইম ইনফরমেশন' চলে আসবে ভারতের কাছে? সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীকে সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান দিয়েছে সৌদি আরব? এবং সেই বিষয়েও বিরোধীদের কটাক্ষের মুখে পড়তে হয়েছে নরেন্দ্র মোদিকে? এদিন সেই সমস্ত সমালোচনার জবাব দেন তিনি? জানান, ভারতের সঙ্গে বন্ধুত্বের কারণেই সেদেশের জেলে বন্দি আটশো ভারতীয়কে মুক্তি দিয়েছে সৌদি আরব? হজ যাত্রীদের কোটা বাড়ান হয়েছে? আফগানিস্তানে জঙ্গিদের দ্বারা অপহরণ হওয়া একটি বাঙালি মহিলাকে কেন্দ্রীয় সরকার জঙ্গি ডেরা থেকে উদ্ধার করেছে এনেছে বলেও দাবি করেন প্রধানমন্ত্রী? এছাড়া প্রত্যেক জনসভার মতোই এদিনও প্রধানমন্ত্রী অভিযোগ করেন, ''বাংলার সরকার দুর্গাপুজো, সরস্বতী পুজো, রাম নবমী পালন করতে দেয় না? কিন্তু সৌদি আরবে হিন্দু মন্দির তৈরি হচ্ছে?'' এছাড়া তিনি দাবি করেন, দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশের সঙ্গে চলা সীমাবিবাদ মিটিয়েছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার? সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করে জঙ্গিদের ঘরে ঢুকে মারা হয়েছে?
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে