logo
মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৬

  ফয়সাল খান   ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

বাসন্তী রঙে মেলা

বাসন্তী রঙে মেলা
হজরত মুহম্মদ স. জীবনচরিত ও ধর্মনীতি শেখ আবদুর
বাংলা বর্ষ পঞ্জিকা পরিবর্তনের ফলে পহেলা ফাল্গুন ও বিশ্ব ভালোবাসা দিবস দুটিই আজ। এই দুটি দিবস একত্রে, তাও আবার শুক্রবার সরকারি ছুটির দিনে। সব মিলিয়ে অন্যরকম এক দিন পার করবে অমর একুশে গ্রন্থমেলা। পাঠক-দর্শনার্থীদের পদচারণায় দিন-রাত মুখরিত থাকবে মেলা প্রাঙ্গণ। এমন একটি দিনের অপেক্ষাতেই ছিলেন লেখক, পাঠক ও প্রকাশকরা। সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় আজ বইমেলার দ্বার খুলে যাবে বেলা ১১টায়। দুপুর ১টা পর্যন্ত থাকবে শিশুপ্রহর। মেলা চলবে টানা রাত ৯টা পর্যন্ত।

বৃহস্পতিবার সরেজমিন বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ঘুরে দেখা যায়, মেলায় যেন বসন্ত গতকাল বিকালেই এসে গেছে। বাসন্তী রংয়ের শাড়িতে মেয়েরা এসেছিলেন দলে দলে। তাদের মাথায় ছিল ফুলের টায়রা। তরুণরাও পাঞ্জাবিসহ বাহারি পোশাক পরেছিলেন। এক সঙ্গে মেলায় ঘুরতে দেখা গেছে অনেক যুগলকে। হাতে হাত রেখে হাঁটতে হাঁটতে অনেকে বিভিন্ন প্যাভিলিয়ন ও স্টল ঘুরেছেন। নেড়েচেড়ে বই দেখেছেন। অনেকে আবার কিনেছেনও।

আবিষ্কার প্রকাশনীর কর্ণধার দেলোয়ার হাসান যায়যায়দিনকে বলেন, মাসের চারটি শুক্রবারই বইমেলার জন্য কাঙ্ক্ষিত দিন। একই সঙ্গে পহেলা বসন্ত, ভ্যালেন্টাইস ডে ও শুক্রবার। সব মিলিয়ে জমে উঠবে মেলা। শুধু তাই নয়, এই রেশ অব্যাহত থাকবে মেলার শেষ দিন পর্যন্ত।

তবে মেলায় দর্শনার্থীদের আনাগোনা বেশি থাকলেও বেচাকেনা ভালো হচ্ছে না বলে জানান নালন্দা প্রকাশনীর প্রকাশক জুয়েল রেদুয়ানুর। তিনি বলেন, দুই-তিন দিন ধরে মেলায় লোকসমাগম হচ্ছে। কিন্তু তেমন বিক্রি হচ্ছে না। বেশিরভাগ দর্শনার্থীই বই ঘেঁটে চলে যাচ্ছেন। অনলাইনে বেচাকেনা বৃদ্ধির একটা প্রভাব এখানে পড়েছে বলে জানান তিনি।

মূল মঞ্চের আয়োজন : বিকালে গ্রন্থমেলার মূল মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় সুব্রত বড়ুয়া রচিত বঙ্গবন্ধুর জীবনকথা শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সুজন বড়ুয়া। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন লুৎফর রহমান রিটন এবং মনি হায়দার। লেখকের বক্তব্য প্রদান করেন সুব্রত বড়ুয়া। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংস্কৃতি-বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোঃ আবু হেনা মোস্তফা কামাল।

প্রাবন্ধিক বলেন, আমাদের সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন বঙ্গবন্ধুর নীতি-আদর্শ ও দর্শন জানা এবং চর্চা করা। নতুন প্রজন্মের নবীন-তরুণদের মধ্যে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে যত আগ্রহ সৃষ্টি করা যাবে, তারা ততই দেশপ্রেমে উদ্বুব্ধ হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সোনার বাংলা গড়ার পক্ষে এটা হতে পারে অত্যন্ত জরুরি উদ্যোগ। সুব্রত বড়ুয়া রচিত বঙ্গবন্ধুর জীবনকথা গ্রন্থখানি কিছুটা হলেও আমাদের এগিয়ে দেবে সেই লক্ষ্যে। উক্তি-ভাষ্যে, আলোচনায় বঙ্গবন্ধুকে এখানে উপস্থাপন করা হয়েছে বিশ্বনেতার মানদন্ডে।

আলোচকরা বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এক বিশাল সমুদ্রের মতো, যিনি তার চেতনায় ধারণ করেছেন বাংলা, বাঙালি ও বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধুর জীবনকথা গ্রন্থের সংক্ষিপ্ত পরিসরে লেখক সুব্রত বড়ুয়া বঙ্গবন্ধুর বর্ণাঢ্য ও সংগ্রামী জীবনকে ইতিহাস ও তথ্যের ভিত্তিতে তুলে আনার প্রয়াস পেয়েছেন। এক কথায় বলা যায়, সাবলীল ভাষায় লেখা বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্ম-বিষয়ক এটি এক অনন্য গ্রন্থ।

গ্রন্থের লেখক বলেন, বঙ্গবন্ধুর জীবনকথা গ্রন্থটি লেখার পেছনে যে দুটি বিষয় আমার প্রেরণা হয়ে কাজ করেছে, তা হলো বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা। এই গ্রন্থে আমি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধুর জীবনকে ইতিহাস, সংগ্রাম ও কর্মের প্রেক্ষাপটে তুলে আনার চেষ্টা করেছি।

লেখক বলছি : বৃহস্পতিবার লেখক বলছি অনুষ্ঠানে নিজেদের নতুন বই নিয়ে আলোচনা করেন রফিক-উম-মুনীর চৌধুরী, মৌলি আজাদ, রাসেল আশেকী এবং শোয়েব সর্বনাম।

কবিতা পাঠ : কবিকণ্ঠে কবিতা পাঠ করেন কবি মাহবুব সাদিক, শাহজাদী আঞ্জুমান আরা, মুনীর সিরাজ এবং মাসুদ হাসান।

আবৃত্তি পরিবেশন করেন আবৃত্তিশিল্পী মো. শাহাদাৎ হোসেন, অনিমেষ কর এবং তামান্না সারোয়ার নীপা।

নৃত্য পরিবেশন করেন সৌন্দর্য প্রিয়দর্শিনী ঝুম্পার পরিচালনায় নৃত্য সংগঠন 'জলতরঙ্গ ডান্স কোম্পানি'র নৃত্য শিল্পীরা। সংগীত পরিবেশন করেন কণ্ঠশিল্পী দীনাত জাহান মুন্নী, আঞ্জুমান আরা শিমুল, কাজী মুয়ীদ শাহরিয়ার সিরাজ জয়, মো. রেজওয়ানুল হক এবং সঞ্জয় কুমার দাস।

নতুন বই : বাংলা একাডেমির জনসংযোগ উপবিভাগের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার অমর একুশে গ্রন্থমেলায় নতুন বই প্রকাশ হয়েছে ১৮০টি। এর মধ্যে উলেস্নখযোগ্য বইয়ের মধ্যে রয়েছে, বাংলা একাডেমি প্রকাশ করেছে সুব্রত বড়ুয়ার বঙ্গবন্ধু-বিষয়ক বই 'বঙ্গবন্ধুর জীবন কথা', অনন্যা এনেছে আনিসুল হকের 'কবিতা সমগ্র', একই প্রকাশনী থেকে রকিব হাসানের গোয়েন্দা কাহিনি 'শয়তানের বাঁশি', অন্যধারা প্রকাশ করেছে হাবীবুলস্নাহ সিরাজীর কবিতার বই 'আমার একজনই বন্ধু', আদর্শ এনেছে জাকির তালুকদারের উপন্যাস 'হাঁটতে থাকা মানুষের দল', আবিস্কার প্রকাশ এনেছে 'জাতির পিতা ও চার নেতা', 'মৃতু্যও মিছিল থেকে বলছি', 'বাংলাদেশ ও ভারত সম্পর্ক', কথাপ্রকাশ এনেছে আনজীর লিটনের প্রবন্ধ 'গদ্যের ধারাপাত', শোভা প্রকাশ এনেছে কচি খন্দকারের গল্পগ্রন্থ 'এক ঢিলে দশ পাখি', নালন্দা এনেছে সুধাংশ শেখর বিশ্বাসের ভ্রমণগল্প 'মস্কোর ঘণ্টা', সময় প্রকাশন এনেছে প্রসূন রায়ের 'রাশিয়ার পরিব্রাজক প্রথম খন্ড', গোলাম রব্বানী টুপুলের 'ভূত রহস্য', চন্দ্রাবতী একাডেমি এনেছে খান মাহবুবের ভ্রমণগ্রন্থ 'সীমান্তের ওপারে'।

আজ যা থাকছে : আজ শুক্রবার ১৪ ফেব্রম্নয়ারি ও ১ ফাল্গুন, অমর একুশে গ্রন্থমেলার ১৩তম দিন। মেলা চলবে সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত। বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত মেলায় থাকবে শিশুপ্রহর। সকাল ১০টায় শিশু-কিশোর আবৃত্তি প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বিকাল ৪টায় গ্রন্থমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে আসাদ চৌধুরী রচিত সংগ্রামী নায়ক বঙ্গবন্ধুর শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন শোয়াইব জিবরান। আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন আনিসুর রহমান এবং নূরুন্নাহার মুক্তা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন অধ্যাপক খুরশীদা বেগম। সন্ধ্যায় রয়েছে কবিকণ্ঠে কবিতাপাঠ, আবৃত্তি এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে