logo
রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ১১ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০  

নোট সিরিজের নতুন দুই ডিভাইস আনল স্যামসাং

নোট সিরিজের নতুন দুই ডিভাইস আনল স্যামসাং
যাযাদি ডেস্ক

গ্যালাক্সি নোট সিরিজের নতুন দুই স্মার্টফোন উন্মোচন করেছে স্যামসাং। গত বুধবার নিউইয়র্কে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে গ্যালাক্সি নোট ১০ ও গ্যালাক্সি নোট ১০ পস্নাস ডিভাইস দুটির মোড়ক উন্মোচন করা হয়। গতকাল থেকেই বাংলাদেশে হাই-অ্যান্ড গ্যালাক্সি নোট ১০ পস্নাস ডিভাইসটির প্রাক-ক্রয়াদেশ নেয়া শুরু করেছে স্যামসাং মোবাইল বাংলাদেশ। দেশে ১০ হাজার টাকা ছাড়ে ১ লাখ ৩৪ হাজার ৫০০ টাকায় গ্যালাক্সি নোট ১০ পস্নাসের জন্য প্রাক-ক্রয়াদেশ দেয়া যাচ্ছে।

নিউইয়র্কে নোট সিরিজের নতুন দুই স্মার্টফোন ছাড়াও 'গ্যালাক্সি বুক এস' নামে একটি ল্যাপটপ উন্মোচন করেছে স্যামসাং। স্ন্যাপড্রাগন ৮সিএক্স প্রসেসর সংবলিত এ ল্যাপটপে একবার ফুল চার্জে ২৩ ঘণ্টা পাওয়ার ব্যাকআপ মিলবে। গ্যালাক্সি নোট ১০ ও নোট ১০ পস্নাসের অনেক ফিচারে মিল থাকলেও ডিসপেস্ন, ব্যাটারি ওর্ যামে পার্থক্য রয়েছে। ডিভাইস দুটিতে যথাক্রমে ৬ দশমিক ৩ ও ৬ দশমিক ৮ ইঞ্চির ডিসপেস্ন রয়েছে। গ্যালাক্সি ১০ পস্নাস গ্যালাক্সি নোট সিরিজের সবচেয়ে বড় ফোন।

অ্যামোলেড ডিসপেস্ন প্যানেলযুক্ত নোট ১০ স্মার্টফোনে ৮ গিগাবাইটর্ যাম, ২৫৬ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ ও এলটিই সুবিধা রয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ার বাজারে ডিভাইসটি ফাইভজি সমর্থিত একটি সংস্করণে ১২ গিগাবাইটর্ যাম ব্যবহৃত হবে। ডিভাইসটিতে মাইক্রোএসডি কার্ড স্টট রাখা হয়নি।

অন্যদিকে নোট ১০ পস্নাসে সর্বোচ্চ ১ টেরাবাইট পর্যন্ত মাইক্রোএসডি কার্ড ব্যবহার করা যাবে। ১২ গিগাবাইটর্ যামের এ ডিভাইসের একটি সংস্করণে ২৫৬ গিগাবাইট এবং আরেকটি সংস্করণে ৫১২ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ সুবিধা মিলবে।

স্যামসাং বাংলাদেশের দাবি, উভয় ডিভাইসের উদ্ভাবনী ফিচার ব্যবহারকারীকে নতুন অভিজ্ঞতা দেবে। ডিভাইস দুটির কোয়াড রিয়ার ক্যামেরার আকর্ষণীয় ভিডিও স্ট্যাবিলাইজেশন, লাইভ ফোকাস অন ভিডিও, প্রফেশনাল গ্রেড ভিডিও এডিটিং গ্রাহকের নজর কাড়বে। নতুন ধারার অওরা ব্যাক এবং অওরা হোয়াইট রঙের গ্যালাক্সি নোট ১০ পাস ব্যবহারকারীদের প্রিমিয়াম স্মার্টফোন ব্যবহারের ক্ষেত্রে যে কোনো ডিভাইস ব্র্যান্ডের চেয়ে এগিয়ে রাখবে।

বাংলাদেশে গ্যালাক্সি নোট ১০ পাস সর্বোচ্চ ১৮ মাসের সুদহীন ইএমআই সুবিধায় দি সিটি ব্যাংকের অ্যামেক্স ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে ক্রয় করলে ৫ হাজার টাকা ক্যাশব্যাক মিলবে। পাশাপাশি নির্দিষ্ট মডেলের স্মার্টফোন দিয়ে এক্সচেঞ্জ করার ক্ষেত্রে এক্সচেঞ্জকৃত স্মার্টফোনের নির্ধারিত ভ্যালু বা দাম ধরার পর বাড়তি আরও ২০ হাজার টাকা ক্যাশব্যাকের সুবিধা রাখা হয়েছে। এছাড়াও গ্যালাক্সি নোট ১০ পাসের ক্রেতারা সর্বোচ্চ ১ লাখ টাকার ডিসকাউন্ট ভাউচার পাবেন, যা পরবর্তী সময়ে নির্দিষ্ট মডেলের স্যামসাং ফোরকে ইউএইচডি স্মার্টটিভি কিনতে ব্যবহার করা যাবে। ডিভাইসটি ক্রয়ে বাংলাদেশী ক্রেতারা দ্বিতীয় বছরের জন্য ওয়ারেন্টি প্যাকেজ কিনলে বিনামূল্যে 'ওয়ান-টাইম স্ক্রিন রিপেসমেন্ট' সুবিধা পাবেন।

অন্যদিকে গ্রামীণফোন গ্রাহকরা গ্যালাক্সি নোট ১০ পাস ক্রয়ে বিনামূল্যে ২০ গিগাবাইট ইন্টারনেট ডাটা ব্যবহার করতে পারবেন। জিপি স্টার প্রোগ্রামের আওতায় থাকা গ্রাহকরা পস্নাটিনাম পাস স্টারে আপগ্রেড হতে পারবেন। বাংলাদেশে চলতি মাসের ৩১ তারিখ পর্যন্ত গ্যালাক্সি নোট ১০ পাসের প্রাক-ক্রয়াদেশ দেয়া যাবে।

নিউইয়র্কে উন্মোচনের পরদিনই বাংলাদেশে গ্যালাক্সি নোট ১০ পস্নাসের প্রাক-ক্রয়াদেশ নেয়ার বিষয়ে স্যামসাং বাংলাদেশের হেড অব মোবাইল মো. মূয়ীদুর রহমান বলেন, কাজের পাশাপাশি গেমিং ও বিনোদনের সামঞ্জস্য বজায় রাখতে যারা পছন্দ করেন, তাদের জন্য গ্যালাক্সি নোট ১০ পস্নাস। ডিভাইসটি এমন মানুষদের জন্য উপযুক্ত, যারা যা-ই করে না কেন তা অর্থবহ এবং যাতে ইতিবাচক উদ্দেশ্য বিদ্যমান।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে