শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে ‘ডিআইইউ ফার্মা ক্যারিয়ার এক্সপো-২০২৩’ সমাপ্ত

কাজী দ্বীন মোহাম্মদ বিশেষ প্রতিনিধি
  ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ২০:০৪
ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে ‘ডিআইইউ ফার্মা ক্যারিয়ার এক্সপো-২০২৩’ সমাপ্ত

‘বিশ্ব ফার্মাসিস্টস দিবস ২০২৩’ উপলক্ষ্যে "ফার্মেসি স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করে" এই প্রতিপাদ্য নিয়ে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ফার্মেসি বিভাগের আয়োজনে এবং স্কিল জবস্ ও ক্যারিয়ার ডেভেলাপমেন্ট সেন্টারের সহযোগিতায় দু’ দিনব্যাপি (সেপ্টেম্বর ২৫-২৬) ‘ডিআইইউ ফার্মা ক্যারিয়ার এক্সপো- ২০২৩’ আজ ২৬ সেপ্টেম্বর শেষ হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত সমাপনী অনুষ্ঠানে ফর্মাসিউটিক্যাল ইন্ডাট্রির বিশেষজ্ঞ ব্যক্তিবর্গ শিক্ষার্থীদের সাথে তাদের জ্ঞান, দক্ষতা, অভিজ্ঞতা শেয়ার করেন এবং ক্যারিয়ার নিয়ে বিভিন্ন দিকনির্দেশনা দেন।

সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকরের দুযোর্গ ব্যবস্থপনা ও ত্রাণ বিষয়ক মন্ত্রী ডাঃ এনামুর রহমান, এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হেলথ কেয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস্ লিমিটেডের কর্পোরেটের প্রশিক্ষণ বিষয়ক উদেষ্টা এম মশিউর রহমান। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক এফেয়ার্সের ডীন প্রফেসর ড. মোস্তফা কামাল, এলাইড হেলথ সায়েন্স্স অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মোঃ বেলাল হোসেন, ফার্মেসী বিভাগের সহযোগী বিভাগীয় প্রধান ড. শরিফা সুলতানা।

দু’ দিনব্যাপি অনুষ্ঠানে ছিল র্যালি, ফার্মা অলিম্পিয়াড, সেমিনার, কর্মশালা, পোষ্টার প্রেজেন্টেশন, খেলাধুলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ নানা আয়োজন। সহস্রাধিক শিক্ষার্থী, এল্যামনাই ও ফার্মাসিউটিক্যাল ইন্ডাট্রির বিশেষজ্ঞ ব্যক্তিবর্গ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।

গমাপনী অনুষ্ঠানে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকরের দুযোর্গ ব্যবস্থপনা ও ত্রাণ বিষয়ক মন্ত্রী ডাঃ এনামুর রহমান, এমপি বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশর ঔষধ শিল্প বিশ্বের ১৫৫ টি দেশে রপ্তানী হচ্ছে যা বাংলাদেশর দ্বিতীয় বৃহত্তম রপ্তানী খাত হিসেবে বিবেচিত। স্বাধীন ঔষধ নীতি প্রণয়নের ফলে ধেশের ঔষধ র্শিপ আজ এ পর্যায়ে উন্নীত হয়েছে। তিনি শিক্ষার্থীদের মনোযোগ দিয়ে লেখা পড়া করে এ শিল্পের অগ্রযাত্রাকে বাঁচিয়ে রাখতে এবং গুনগত মান বজায় রেখে আগামীতে আরো বেশী বেশী রপ্তানী বৃদ্ধিতে অবদান রাকার আহবান জানান। ফার্মাসিউটিক্যাল শিল্পে গবেষণা এবং উদ্ভাবন প্রচারের জন্য আরও বেশী বেশী এই ধরনের অনুষ্ঠানের প্রয়োজন আছে বলেও তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন। ইভেন্টে সহায়তাকারী সকল প্রতিষ্ঠান এবং পৃষ্ঠপোষকদের প্রতি তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

যাযাদি/এসএস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে