বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১

ঝুলন্ত সিদ্ধান্ত মানছি না : আন্দোলনের ঘোষণা শিক্ষার্থীদের

যাযাদি ডেস্ক
  ১০ জুলাই ২০২৪, ১৩:১৫
ছবি-যায়যায়দিন

সরকারি চাকরিতে কোটা নিয়ে আবারও দেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। এ নিয়ে দেশের প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রাজপথে নেমে এসেছে।

প্রতিদিন তারা ধারাবাহিক কর্মসূচি পালন করছে। তাদের কর্মসূচির মধ্যে সড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ ও বাংলা ব্লকেড অন্যতম। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের ফলে রাজধানীতে প্রতিদিন তীব্র যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। এতে নগরবাসীকে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়।

এদিকে চাকরির প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহাল রেখে হাইকোর্টের দেওয়া রায় স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ। আজ বুধবার (১০ জুলাই) বেলা ১১টায় আপিল বিভাগে শুনানি শেষে এ রায় দেন আদালত। তবে এ রায় প্রত্যাখ্যান করেছেন আন্দোলনকারীরা।

তবে এ বিষয়ে বৈষম্য বিরোধী ছাত্র আন্দোলনের সমন্বয়ক আব্দুল হান্নান মাসউদ লিখিত এক বার্তায় এ তথ্য জানিয়েছেন, 'আমরা কোন ঝুলন্ত সিদ্ধান্ত মানছি না, আমাদের এক দফা দাবি- সংসদে আইন পাস করে সরকরি চাকরির সকল গ্রেডে শুধুমাত্র পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জন্য ন্যূনতম (সর্বোচ্চ ৫ শতাংশ) কোটা রেখে সকল ধরনের বৈষম্যমূলক কোটা বাতিল করতে হবে। এ দাবি নির্বাহী বিভাগ থেকে যতক্ষণ না পূরণ করা হবে পর্যন্ত রাজপথে আন্দোলন চলবে।

এদিকে কোটাপদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে আজ বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচির জন্য মিছিল শুরু হয়। বেলা ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ্রন্থাগারের সামনে থেকে ‘বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন’ ব্যানারে মিছিল শুরু হয়। ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে মিছিলটি শাহবাগ মোড়ে পৌঁছায়।

আন্দোলনকারী ঢাকা কলেজ ও ইডেন মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীরা নীলক্ষেত মোড় ও সায়েন্সল্যাব মোড় অবরোধ করেছে। রাজধানীর অন্যতম ব্যস্ততম সড়ক গুলিস্তানের জিপিও মোড়ও অবরোধ নিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারের ওঠা ও নামার র‍্যাম্পও অবরোধ করে রাখা হয়েছে। শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অবরোধ করেছেন আগারগাঁও মোড়। মহাখালীতে রেলপথ ও সড়কপথ অবরোধ করেছেন সরকারি তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থীরা।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে