আসামিদের স্বীকারোক্তি

কুপ্রস্তাব দেওয়ায় খুন হন অটোরিকশা চালক সেলিম

কুপ্রস্তাব দেওয়ায় খুন হন অটোরিকশা চালক সেলিম

উত্ত্যক্ত করা ও কুপ্রস্তাব দেওয়ায় ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চালক সেলিম হোসেনকে (২৫) হত্যা করা হয়েছে। নিহত সেলিম পাবনার আতাইকুলা থানার গোসাইপাড়া গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে। মঙ্গলবার পাবনা পুলিশ সুপারের (এসপি) কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ তথ্য জানান এসপি মহিবুল ইসলাম খান।

তিনি জানান, গত ৯ জুন অটোরিকশা নিয়ে সেলিম বাড়ি থেকে বের হয়ে রাতে আর ফিরে আসেননি। পরদিন নিহতের ভাই সিরাজ হোসেন বহালবাড়িয়া গ্রামের কালুকাটা বিলে ক্ষতবিক্ষত লাশের সন্ধান পান। নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখে পুলিশ প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হয় পূর্বপরিকল্পনা এবং প্রতিহিংসার কারণে এ হত্যাকান্ড ঘটেছে। পরে অনুসন্ধান চালিয়ে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে হত্যার ক্লু উদ্ঘাটনে সক্ষম হয় পুলিশ।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম জানান, ঢাকার ধামরাই থানার নওগাঁ বাজার থেকে জড়িত সন্দেহে সাঁথিয়ার ছোন্দহ গ্রামের রাসেল হোসেন ও বহালবাড়িয়া পূর্বপাড়ার রানা শেখকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী বহালবাড়িয়া গ্রাম থেকে আল আমিনের স্ত্রী শিলা খাতুন, হোসেন আলী ও আতাইকুলা বাজারের ভাংড়ি দোকানদার দেলোয়ার হোসেনকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃতদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী দেলোয়ারের কাছে বিক্রি করা অটোরিকশা উদ্ধার করা হয়।

তিনি বলেন, আল আমিনের স্ত্রী শিলাকে সেলিম উত্ত্যক্ত করতেন ও কুপ্রস্তাব দিতেন। বিষয়টি আল আমিনের কানে গেলে তারা সেলিমকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। কৌশলে সেলিমকে বহালবাড়িয়া মোড়ে নিয়ে গিয়ে অতিরিক্ত গাঁজা খাইয়ে নেশাগ্রস্ত করেন। পরে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে ও ধারাল চাকু দিয়ে কুপিয়ে এবং পায়ের রগ কেটে হত্যা করা হয়। সাঁথিয়া থানার ওসি আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম জানান, নিহতের ভাই বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। বাকিদের গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে