সীমান্তে জব্দ ভারতীয় সাবান সাংবাদিকের বাড়ি থেকে উদ্ধার

সীমান্তে জব্দ ভারতীয় সাবান সাংবাদিকের বাড়ি থেকে উদ্ধার

নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলার মুন্সিপাড়া সীমান্ত থেকে জব্দ হওয়া ভারতীয় সাবান ময়মনসিংহের ধোবাউড়ায় সাংবাদিক ইকবাল কবীর মানিকের (৪০) বাড়ি থেকে উদ্ধার করছে পুলিশ। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। পরিবারের দাবি সাংবাদিক মানিককে পরিকল্পিতভাবে ফাঁসানো হয়েছে। মানিক ময়মনসিংহ থেকে প্রকাশিত দৈনিক ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস পত্রিকার ধোবাউড়া উপজেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করেন।

রোববার সন্ধ্যার পর উপজেলার কলসিন্দুর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে সাংবাদিক মানিককে আটক করে পুলিশ। এর আগে ঐদিন নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলার মুন্সিপাড়া সীমান্ত থেকে ভারতীয় সাবান জব্ধ করে বিজিবি মুন্সিবাড়ী ক্যাম্প। নাম প্রকাশ না করার শর্তে চারুয়াপাড়া ক্যাম্পের এক বিজিবি কর্মকর্তা ৭ আগস্ট মুন্সিপাড়া ক্যাম্পে তিন হাজার ছয়শ পিস ভারতীয় সাবান জব্দের বিষয়টি জানিয়েছেন।

নেত্রকোনা বিজিবির ৩১ ব্যাটালিয়নের ব্রাঞ্চ অফিসার নাজমুল হোসেন মুন্সিপাড়া ক্যাম্পে ভারতীয় সাবান উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলার মুন্সিপাড়া সীমান্ত থেকে জব্দ হওয়া ভারতীয় সাবান কীভাবে পার্শ্ববর্তী উপজেলার সাংবাদিক মানিকের বাসায় পৌঁছলো এ নিয়ে স্থানীয়দের মাঝে চলছে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা।

এ বিষয়ে সাংবাদিক মানিকের স্ত্রী নাসিমা খাতুন বলেন, 'আনোয়ার চেয়ারম্যানের সাথে আমার স্বামীর পূর্ব শত্রম্নতা ছিল। দীর্ঘদিন থেকেই বিভিন্নভাবে আমার স্বামীকে চেয়ারম্যান আনোয়ার ফাঁসানোর চেষ্টা করছেন। ষড়যন্ত্রমূলকভাবে আমার স্বামীকে পুলিশ দিয়ে ফাঁসানো হয়েছে। আমার স্বামী সম্পূর্ণ নিদোর্ষ।'

এ বিষয়ে ধোবাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা টিপু মুন্সি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায় মানিকের বাড়িতে চোরাচালানের মাধ্যমে ভারত থেকে আনা ভারতীয় সাবান রয়েছে। পরে সন্ধ্যায় তার বাড়িতে তলস্নাশি চালিয়ে তিনটি পস্নাস্টিকের বস্তা থেকে ভারতীয় প্রায় ৫০০ পিস সাবান, একটি খেলনা পিস্তল ও একটি চাকু উদ্ধার করা হয়েছে। এই ঘটনার তার বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়েরের পর সোমবার (৮ আগস্ট) আদালতে পাঠানো হয়েছে। আরেক সাংবাদিককে পুলিশের সামনে মারধরের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ ঘটনায় এখনো কেউ অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন খান সাংবাদিক মানিকের সঙ্গে তার পূর্ব শত্রম্নতা কিংবা তাকে ফাঁসানোর বিষয়টি অস্বীকার করেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে